বিজ্ঞাপনের জন্য আমাদের সঙ্গে যোগাযোগের মাধ্যম : amaderbharatdesk@gmail.com    “ওদেরকে শাস্তি দেওয়ার সময় এসে গেছে” কংগ্রেসকে তোপ যোগগুরু রামদেব বাবার।    রাত পোহালেই রাজ্যে দ্বিতীয় দফায় নির্বাচন।     দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি ও রায়গঞ্জ লোকসভা কেন্দ্রে হবে ভোটগ্রহণ।    “টাকার থলি নিয়ে রাস্তায় রাস্তায় ঘুরছে আরএসএসের দালালরা” অভিযোগ মমতার।    সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেলে ছয় মাসের মধ্যেই বিধানসভা ভোট করাব বললেন আলুয়ালিয়া।    ঝাঁটা হাতে কেন্দ্রীয় বাহিনীকে এলাকা ছাড়া করার নিদান রাজ্যের মন্ত্রীর।    কান্দিতে অধীর গড়ে দাঁড়িয়ে কংগ্রেস ও বিজেপিকে তোপ মমতার।    নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার জন্য “ইউনিক কালার কোডিং” ব্যবস্থা।    আরও কড়া হল কমিশন, দুবের মাথায় বসল নতুন পর্যবেক্ষক।    অমিত, যোগীর জোড়া ফলায় মমতাকে ঘায়েলের চেষ্টা বিজেপির।    জয়ের প্রচারে আমতায় রাজনাথ সিং।    ঘাটালে একা কুম্ভ ভারতী।    আজ আপনার কেমন যাবে জেনে নিন।    ভোটের দিনগুলোয় কেন্দ্রীয় নেতাদের এনে কিস্তিমাত করতে কৌশল বিজেপির।


জন্মের আগেই বাইরের জগৎ সম্পর্কে যা জানতে পারে শিশু

আমাদের ভারত ডেস্ক, ১০ ফেব্রুয়ারি: জন্ম নেওয়ার আগে পর্যন্ত মায়ের গর্ভে বেড়ে ওঠে শিশু, এ কথা সকলেরই অজানা নয়। সদ্য জন্মানো, চোখ না ফোটা, মনের ভাব প্রকাশ করতে না পারা একরত্তি শিশু যা যা জেনে জন্মায়, তা জানলে রীতিমতো অবাক হতে হয়! গবেষণা বলছে, মায়ের পেটের ভিতরে যে অ্যামনিওটিক ফ্লুইডে ভেসে থাকে শিশু, তার মাধ্যমেই বাইরের জগতের অনেক কিছুই পৌঁছে যায় তার কাছে। এবং কয়েক মাস সময়ে, সে সব সম্পর্কে বেশ ভালই ধারণা তৈরি হয়ে যায় তার।

শব্দ: গর্ভাবস্থায় মা যত কথা বলেন, গর্ভের শিশু কয়েক মাস পর থেকেই সেই সব শব্দ টেপ রেকর্ডারের মতো শুনতে পায়। তাই জন্মের পরে মায়ের গলা চিনতে খুব একটা অসুবিধা হয় না শিশুর। এমনকী গর্ভাবস্থায় মায়ের আশপাশে যাঁরা ছিলেন, তাঁদের কণ্ঠস্বরও তার পরিচিত মনে হয়।

ভাষা: গর্ভে থাকাকালীন কানের গঠন তৈরি হওয়ার পর থেকেই শিশু তার মাতৃভাষা সঙ্গে পরিচিত হতে শুরু করে। যদি কখনও কল্পনা করেন, মাতৃগর্ভে চোখ বুজে, কান খাড়া করে আপনাদের কথাবার্তা শুনছে শিশু— তা হলে খুব ভুল ভাবেননি। পেটের ভিতরে শিশুর হাবভাব অনেকটা এ রকমই থাকে।

স্বাদ: গর্ভে থাকার আট থেকে পনেরো সপ্তাহের মধ্যেই শিশুর এই ক্ষমতা তৈরি হয়ে যায়। তখন থেকেই সে আলাদা করতে পারে মিষ্টি, টক আর তেতো স্বাদ। তাই জন্মের কয়েক মাস পরে যখন সে খাওয়াদাওয়া শুরু করে, তখন এই তিনটে স্বাদের বাইরে নতুন কোনও ফ্লেভার জিভে ঠেকলে, সে ভালই বুঝতে পারে তারতম্য।

আলো: ভ্রূণ অবস্থায় সাত সপ্তাহের আগে তার চোখই ফোটে না ভাল করে। কিন্তু গবেষণায় দেখা গেছে, সেই অবস্থাতেও মাতৃগর্ভের অন্ধকারে কোনও ভাবে আলো পৌঁছে দিলে, সে তার চোখ সরিয়ে নিচ্ছে। এমনকী জন্মের সময় যত কাছাকাছি এগিয়ে আসে, তত চোখ পিটপিট করতে শেখে সে। পৃথিবীর চড়া আলোকে মানিয়ে নেওয়ার জন্য পেটের ভিতরেই চলে প্রস্তুতি।

গন্ধ: মায়ের পেটে যে ফ্লুইডে শিশু ভেসে থাকে, তার গন্ধ হয় অনেকটাই মায়ের শরীরের গন্ধের মতো। তাই জন্মের পরে মায়ের গায়ের সেই গন্ধ সহজেই বুঝতে পারে সে। তাই মায়ের কোলেই সব চেয়ে নিরাপদ বোধ করে। জন্মের পরে আলাদা করে মায়ের গায়ের গন্ধ চিনতে হয় না তাকে।

Leave a Reply

avatar
  Subscribe  
Notify of