আমাদের সঙ্গে যোগাযোগের মাধ্যম : amaderbharatnews@gmail.com    ‍অযোধ‍্যার রামমন্দির নির্মাণের জন‍্য সংসদে বিল আনতে চলেছে বিজেপি, জানালেন বিজেপি মন্ত্রী।    লোকসভা নির্বাচনে বিজেপির সহানুভূতির ভোট আটকাতেই কি ‘বাজপেয়ী ভালো মোদীর চেয়ে’ বোঝাতে চাইছেন বিরোধীরা।    প্রয়াত প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী বাজপেয়ীর স্মরণ সভায় রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ জানাবে রাজ্য বিজেপি।    বীরভূমের তিন বিজেপি নেতার নিরাপত্তায় কেন্দ্রীয় বাহিনী।    বিজেপি কর্মীর পরিবারের সদস্যদের দলে যোগ দেওয়াতে গিয়ে পুরুলিয়া ছাড়লেন অপমানিত তৃণমূল সাংসদ ডাঃ শান্তনু সেন।    অটলজীর মৃত্যুতে নলহাটিতে মাথা মুণ্ডন করে শ্রাদ্ধ সারল বিজেপি, নানুরে কর্মীদের মারধর।    “সাম্প্রদায়িক বিজেপিকে রুখতে পশ্চিমবঙ্গের মহিলারাই যথেষ্ট” : চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য।    ‘বাংলাকে কাশ্মীর হতে দেব না’! শরণার্থীদের নাগরিকত্ব দেওয়ার দাবি উঠল হিন্দু সংহতির সভায়।    নারদ তদন্তে ‘ভুয়ো কোম্পানি’-র তথ্য দিয়েছেন রত্না! আয়কর বিভাগকে চিঠি ইডির।    শিলিগুড়ির ১৫ বছরের কিশোরীর অঙ্গে পুনর্জীবন ৩ টি প্রাণের।    প্রকাশিত হল রাজ্যে গ্রুপ-ডি নিয়োগের ফলাফল।    মুম্বই থেকে মুর্শিদাবাদে বাড়ি ফেরার পথে বারাকপুরে ট্রেনে মৃত্যু রেলযাত্রীর।    আজ আপনার কেমন যাবে জেনে নিন।    গড়িয়ায় আক্রান্ত অভিনেতা, সোনারপুর থানায় অভিযোগ দায়ের।    অক্ষয় ফের কমেডি ছবিতে ফিরছেন ‘হেরা ফেরি’-৩ নিয়ে।    প্রেমে পড়েছেন শ্রাবন্তী, গুঞ্জন টলিপাড়ায়।    ছোটে নবাব স‌ইফ আলি খানের জন্মদিন পালন হল একেবারে নবাবীয়ানায়।    বাহুবলীর প্রভাসকে দেখা যাবে ‘সাহো’ ছবিতে।    অসুস্থ কিংবদন্তী সঙ্গীতশিল্পী দ্বিজেন মুখোপাধ্যায়, ভর্তি এসএসকেএমে।    ধর্মঘটের জেরে বন্ধ হতে চলেছে বাংলার টেলি সিরিয়াল।
BREAKING NEWS:
  • আটলবিহারী বাজপেয়ীর অন্তিম যাত্রা
  • শেষ শ্রদ্ধা জানাতে অগনিত মানুষ রাস্তায়
  • রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় সম্পন্ন অন্ত্যেষ্টি ক্রীয়া।
{"effect":"slide-h","fontstyle":"normal","autoplay":"true","timer":4000}


প্রতিবন্ধকতা কাটিয়ে ভূগোলের শিক্ষিকা হতে পারবে কি কৃষ্ণা!

আমাদের ভারত, রামপুরহাট, ১০ জুন: তিন বছর তি আগে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে বাবার। এরপর মা বংশের পেশা টিকিয়ে রেখে দুই মেয়েকে বড় করে তুলেছেন। সেই বাড়ির ছোট মেয়ে এবার উচ্চ মাধ্যমিকে ৪৪৫ নম্বর পেয়ে বীরভূমের কড়কড়িয়া জয় তারা উচ্চ বিদ্যালয়ে প্রথম স্থান অধিকার করেছে। ভূগোল নিয়ে পরে শিক্ষিকা হতে চায় সে। কিন্তু বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে অর্থ। সরকারি কিংবা বেসরকারি ভাবে কেউ এগিয়ে এলে উচ্চ শিক্ষায় এগিয়ে যাওয়া সম্ভব হবে বলে পরিবারের দাবি। কৃষ্ণা প্রামানিক দুই বোনের মধ্যে কৃষ্ণা ছোট। বড় বোনের বিয়ে হয়েছে আগেই। বর্তমানে তারাপীঠ থানার ফুলিডাঙ্গা গ্রামের বাসিন্দা। বাবা আশিস প্রামানিক পেশায় ছিলেন নাপিত। বছর তিনেক আগে হৃদরোগে মারা যান তিনি। এরপর মা যূথিকা প্রামানিক বাড়ি বাড়ি গিয়ে মেয়েদের ‘ভ্রূ’ প্লাগ করে যৎসামান্য আয় করে মেয়ের পড়াশোনা চালিয়েছেন। তবে ভাই এবং বাবা যথেষ্ট সহযোগিতা করেছেন বলে দাবি করেন যূথিকাদেবী। তিনি বলেন, “শ্বশুর বাড়ি মুর্শিদাবাদের কেলাই গ্রামে। কিন্তু বাবার অমতে স্বামী বিয়ে করার জন্য ঠাঁই হয়নি শ্বশুর বাড়িতে। ফলে কার্যত বিয়ের পর থেকেই বাপের বাড়ি তারাপীঠের ফুলিডাঙ্গা গ্রামে ঘর বাঁধেন যূথিকাদেবী। প্রথম দিকে স্বামীর সেলুন ব্যবসায় চলত সংসার। স্বামীর মৃত্যুতে ভাই এবং বাবার সাহায্যে চলছে সংসার। মেয়ে কৃষ্ণার উচ্চ মাধ্যমিকে সাফল্যের পিছনে বাবা ও ভাইয়েরে ভূমিকা রয়েছে যথেষ্ট। যূথিকাদেবী বলেন, “আমার আয় সামান্যই। বাবা ভাইরা এগিয়ে না এলে মাঝ পথেই পড়া ছাড়তে হত মেয়েকে”। কৃষ্ণা বলেন, “আমার পড়ার পিছনে বাবার ভূমিকা ছিল যথেষ্ট। বাবা মারা যাওয়ার পর ভেঙ্গে পড়েছিলাম। কিন্তু মামারা যেভাবে পাশে দাঁড়িয়েছিলেন তা ভুলতে পারব না”। সফল্যের পিছনে গৃহশিক্ষক নারায়ণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের কথা বার বার মুখে আনে কৃষ্ণা। সে জানায়, নারায়ণবাবু যেভাবে বিনা পারিশ্রমিকে আমাকে ইংরেজি পড়িয়েছেন তা ভোলার নয়। তার সাহায্যেই ইংরেজিতে ৮০ নম্বর পেয়েছি। নারায়ণবাবু বলেন, “শুধু কৃষ্ণা নয়, এলাকার দরিদ্র পরিবারের ছেলেমেয়েদের বিনা পারিশ্রমিকেই পড়াই। তাদের মধ্যে কৃষ্ণা রয়েছে। তবে ওর মধ্যে একাগ্রতা লক্ষ্য করেছিলাম। জানতাম ও ভালো ফল করবে”। স্কুলের শিক্ষক অর্ঘ্য ঘোষ বলেন, “এবার আমাদের স্কুলের প্রথম কৃষ্ণা। হাজারো প্রতিবন্ধকতার মধ্যে যে সাফল্য কৃষ্ণা পেয়েছে তাতে আমরা খুশি”। কৃষ্ণার সাফল্যে খুশি মামিমা অপর্ণা প্রামানিক থেকে প্রতিবেশীরাও। কিন্তু কৃষ্ণা আজও দুশ্চিন্তায় ভুগছে। তার চিন্তা আগামী দিনে ভূগোল নিয়ে পড়ে সে শিক্ষিকা হতে পারবে তো? কারণ অর্থ যে বড় প্রতিবন্ধকতা!

Leave a Reply

Be the First to Comment!

avatar
  Subscribe  
Notify of