১৩ শিশুর মৃত্যুর কারণ মোবাইল ফোন।    কাশ্মীরের মুখ‍্যমন্ত্রীকে জেহাদি বললেন কাঠুয়াকান্ডে অভিযুক্তদের আইনজীবী।    ১৪ মে বাংলায় পঞ্চায়েত নির্বাচন, ১৭ মে গণনা! অবশেষে দিন ঘোষণা নির্বাচন কমিশনের।    টিকিট দেয়নি দল, তৃণমূল ছেড়ে কংগ্রেসে যোগ দুবারের বিজয়ী লড়াকু প্রার্থীর।    ‘গণতন্ত্রকে বলি দিয়ে, সংবিধানকে কচু কাটা করে কী প্রয়োজন এই ভোটের?’ প্রশ্ন তুললেন প্রাক্তন বিচারপতি অশোক গঙ্গোপাধ্যায়।    পঞ্চায়েত ভোটে ‘বিজেপির জয়ের কলঙ্ক’ থেকে পশ্চিমবঙ্গকে মুক্ত রাখার ডাক বুদ্ধের।    চার্জ দেওয়া অবস্থায় মোবাইল ফোনে কথা বলতে গিয়ে মৃত্যু কিশোরের।     পঞ্চায়েত নির্বাচনের দিন ঘোষনা হওয়ার খুশি মুখ্যমন্ত্রী।    একদফা ভোট নিয়ে বিজেপির কোনও আপত্তি নেই।    অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের দাবিতে অবস্থানে বসবে বামেরা : বিমান বসু।    নারকেলডাঙার রাজাবাজারে মিলল ২০ হাজার কেজি ভাগাড়ের মাংস, শহর জুড়ে তল্লাশি।    আপনার এ সপ্তাহ কেমন যাবে জেনে নিন আমাদের সাপ্তাহিক রাশিফল থেকে।
BREAKING NEWS:
  • ভোটের দিন ঘোষনা হল।
  • সারা রাজ্যে 14 মে একদফায় ভোট।
  • ভোটে নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন বিরোধীদের।
  • পঞ্চায়েত ভোট গননা 17 মে।
{"effect":"slide-h","fontstyle":"normal","autoplay":"true","timer":4000}


গঙ্গাজল বোতলে করে বৈতরণী পার করছে ডাক বিভাগ

আমাদের ভারত ডেস্ক,৮সেপ্টম্বর : পুজো করতে বসেছেন আর দেখলেন গঙ্গাজল নেই। ভাবছেন কি করবেন। চিন্তা নেই কাছের পোস্ট অফিসে পেয়ে যাবেন গঙ্গাজল। ৫০০ মিলি গঙ্গাজলের বোতলের দাম মাত্র ২২ টাকা। হৃষিকেশ কিংবা গঙ্গোত্রীর এই ‘পবিত্র গঙ্গাজল’ বিক্রি করে লাভের মুখ দেখছে ভারতীয় ডাক বিভাগ। বিক্রিও হচ্ছে ভাল। এমনকি চাইলে এখন থেকে গঙ্গাজল ডাকযোগে বাড়ি বসে কেনা যাচ্ছে, যা ভারতের যে কোনো জায়গায় ঘরেও পৌঁছে যাবে।

প্রসঙ্গত, গঙ্গা নদী হিন্দুদের কাছে অত্যন্ত পবিত্র। পূজো তবে ডাকযোগে শুধু গঙ্গাজলই নয়, সারাদেশের বিখ্যাত মন্দিরগুলোর পূজার প্রসাদও এখন থেকে কেনা যাচ্ছে। প্রতিযোগিতার মুখে পড়ে ডাকবিভাগকে তুলে ধরতে নানা পদক্ষেপ করছে নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। তারই সংযোজন পোস্ট অফিসে গঙ্গাজল বিক্রি। ফলে গঙ্গাজলের খোঁজে দৌড়ঝাঁপ, পাড়া-প্রতিবেশীর উপরে নির্ভর করার দিন শেষ। আপাতত, এলাকার পোস্ট অফিসে গেলেই পাবেন হৃষিকেশের বিশুদ্ধ গঙ্গাজল।
সামনেই পুজোর মরসুম। দশ দিন ধরে চলবে দেবী দুর্গার আরাধনা। তাঁর পর কালী পুজো, কোজাগরী লক্ষী পুজো, ছট পুজো। সব পুজোরই অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ গঙ্গা জল। ফলে পুজো মরসুমে গঙ্গা জল বিক্রি করে ভালই লাভের আশায় রয়েছে ডাক বিভাগ। এমনিতেই প্রতিদিন দুই থেকে তিন বোতল  বিক্রি করে ডাকঘর। ভারতে ১লক্ষ‍ ৫৪ হাজার  ৮৮২ ডাকঘর। প্রতিটি ডাকঘর পিছু মাত্র দুটি বোতল দিনে বিক্রি হলেও সেই অঙ্ক দাঁড়ায় ৬৮ লক্ষ ১৪ হাজার ৮০৮ টাকা দৈনিক। ফলে এই বিপুল লাভে উচ্ছ্বসিত খোদ ডাক বিভাগ।

loading...

Leave a Reply

Be the First to Comment!

avatar
  Subscribe  
Notify of