খারিজ অনাস্থা, জয়ের হাসি মোদির ঠোঁটে।    ২১-র সভা থেকে মমতার অঙ্গীকার ১৯-এ ভারত দখল।    ২১ জুলাইয়ে সংখ্যালঘু উন্নয়ন নিয়ে নিশ্চুপ মমতা, ক্ষোভ মুসলিম মহলে।    মমতার প্রশ্নের উত্তরে মমতাকেই বিঁধলেন মুকুল।    “কৃষক বন্ধু প্রধানমন্ত্রী, অথচ বন্যায় কৃষকরাই মরছে”: মানস ভুঁইয়া।    মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি দেওয়া দলীয় ঝাণ্ডার উপর তৃণমূল নেতার পা দেওয়া ছবি ভাইরাল পুরুলিয়ায়।    জেল থেকে বেরিয়ে আন্দোলন নিয়ে ফের বৈঠক অলীকের।    পর পর ১৯টি গুলি খেয়েও ভারতের পতাকা কার্গিলের পাহাড়ে উড়িয়েছিলেন ব্রিগেডিয়ার যোগেন্দ্র সিং যাদব।    আপনার দিনটি কেমন যাবে জেনে নিন আমাদের দৈনিক রাশিফল থেকে।    ২০ বছরে কাইলি বিশ্বের কমবয়সী ধনী মহিলা, কে এই যুবতী?    খোলামেলা পোশাকে উর্বশী রাউতেলা, সোশ্যাল মিডিয়ায় আলোড়ন।    প্রফুল্ল কন্যার বিবাহ-সঙ্গীত অনুষ্ঠানে উপস্থিত প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক ধোনি সহ পরিবার।     এশিয়া জুনিয়র ব্যাডমিন্টন চ্যাম্পিয়নশিপে ৫৩ বছর পর সোনা ভারতের।
BREAKING NEWS:
  • ২৩ আগস্ট ব্রিগেডে বিজেপির সভা।
  • ১৯ আগস্ট তৃণমূল ব্রিগেড সভা করবে
{"effect":"slide-h","fontstyle":"normal","autoplay":"true","timer":4000}


ঠান্ডা ও শৈতপ্রবাহে ক্ষতির মুখে মালদার পান চাষ

আমাদের ভারত, মালদা, ১১ জানুয়ারি : তীব্র ঠান্ডা ও শৈতপ্রবাহে ব্যাপক ক্ষতির মুখে মালদার পান চাষ। এখনো পর্যন্ত কয়েক লক্ষ টাকার ক্ষতি হয়ে গিয়েছে। মাথায় হাত পড়েছে চাষীদের। কিভাবে তারা চাষ করার জন্য নেওয়া ঋণ শোধ করবে তা বুঝতে পারছে না। বাধ্য হয়ে এবার প্রশাসনের দ্বারস্থ হয়েছে কয়েকশো পান চাষী। প্রশাসনের পক্ষ থেকেও ব্যবস্থা নেওয়ার আস্বাস দেওয়া হয়েছে।
মালদা জেলায় পুরাতন মালদার মুচিয়া, চাঁচোল, হরিশ্চন্দ্রপুর ব্লক গুলিতে পান চাষ হয়। এই বছর জেলার ১৮০ হেক্টর জমিতে পান চাষ হয়েছে। এই পান শিলিগুড়ি কলকাতা সহ অন্যান্য রাজ্য ও বাংলাদেশে রপ্তানী করা হয়। চাষীরা জানান, তীব্র ঠান্ডা তার সাথে পাল্লা দিয়ে শৈতপ্রবাহ ও কুয়াশার ফলে গাছ থেকে পাতা খসে পরছে। যতটুকু পান গাছে আছে তাও নষ্ট হয়ে গেছে। যা বাজারে বিক্রী হবে না। অনেক পানচাষী ব্যাঙ্ক থেকে ও স্থানীয় মহাজনদের কাছ থেকে চাষ করার জন্য ঋন নিয়েছেন। সেই ঋণ কিভাবে শোধ করবে ও আগামী দিনে এই ক্ষতির পর পান চাষ করবে কিনা তাই নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছে চাষীরা। এখনি যদি সরকার পাশে না দাঁড়ায় তাহলে এই চাষ বন্ধ করে চাষীদের ভিন রাজ্যে শ্রমিকের কাজ করতে যাওয়া ছাড়া উপায় থাকবে না বলে তাদের দাবি।
জেলা উদ্যানপালন বিভাগের আধিকারিক রাহুল চক্রবর্তী চাষীদের পাশে থাকা যাবতীয় যথাযোগ্য ব্যবস্থা নেওয়ার আস্বাস দিয়েছে।

Leave a Reply

Be the First to Comment!

avatar
  Subscribe  
Notify of