যেকোন খবরের জন্য আমাদের সঙ্গে যোগাযোগের মাধ্যম : amaderbharatnews@gmail.com    এই বছরই দ্বিতীয় বার লালকেল্লায় জাতীয় পতাকা উত্তোলন করতে চলেছেন মোদী, জানেন কি কেন।    আদিবাসী শিশুদের নতুন জামাকাপড় দিল হিন্দু সংহতি।    ধুনুচি নাচ থেকে পেটপুরে ভুরিভোজ, পুজোয় মেতে উঠেছে আট থেকে আশি।    “লোকসভা নির্বাচনের আগে চালু হবে ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রো”: বাবুল সুপ্রিয়।    পুজো স্পেশাল শপিং অফার চালু করল স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া।    পুজোর মধ্যেও রাজনৈতিক সংঘর্ষ, গুড়াপে আক্রান্ত বিজেপি, বাড়ি ভাঙ্গচুর, আগুন।    ট্যাংরার গুদামে ভয়াবহ অাগুন, ঘটনাস্থলে দমকলের ৫টি ইঞ্জিন।    কল্যাণী হাইওয়েতে বেপরোয়া গতির বলি বাইক আরোহী।    ট্রেনে এবার ঝাঁকুনি ফ্রি সফর।    মেদিনীপুরে শিল্পের উন্নত পরিকাঠামো গড়তে মুখ্যমন্ত্রীর উদ্যোগ।    র‍্যাফটিং করতে গিয়ে তিস্তার জলে তলিয়ে মৃত্যু ভিন রাজ্যের মহিলার।    ভাড়াটিয়ার পরকীয়ায় বাধা দিয়ে সোনারপুরে খুন বাড়ির মালিক।    আজ আপনার কেমন যাবে জেনে নিন।    পুজোর মরসুমে বালুরঘাটে জমে উঠেছে রমরমা জুয়ার আসর।
BREAKING NEWS:
  • আজ মহানবমী।
  • সকাল থেকেই মন্ডপে মন্ডপে ভীড়।
{"effect":"slide-h","fontstyle":"normal","autoplay":"true","timer":4000}


ঠান্ডা ও শৈতপ্রবাহে ক্ষতির মুখে মালদার পান চাষ

আমাদের ভারত, মালদা, ১১ জানুয়ারি : তীব্র ঠান্ডা ও শৈতপ্রবাহে ব্যাপক ক্ষতির মুখে মালদার পান চাষ। এখনো পর্যন্ত কয়েক লক্ষ টাকার ক্ষতি হয়ে গিয়েছে। মাথায় হাত পড়েছে চাষীদের। কিভাবে তারা চাষ করার জন্য নেওয়া ঋণ শোধ করবে তা বুঝতে পারছে না। বাধ্য হয়ে এবার প্রশাসনের দ্বারস্থ হয়েছে কয়েকশো পান চাষী। প্রশাসনের পক্ষ থেকেও ব্যবস্থা নেওয়ার আস্বাস দেওয়া হয়েছে।
মালদা জেলায় পুরাতন মালদার মুচিয়া, চাঁচোল, হরিশ্চন্দ্রপুর ব্লক গুলিতে পান চাষ হয়। এই বছর জেলার ১৮০ হেক্টর জমিতে পান চাষ হয়েছে। এই পান শিলিগুড়ি কলকাতা সহ অন্যান্য রাজ্য ও বাংলাদেশে রপ্তানী করা হয়। চাষীরা জানান, তীব্র ঠান্ডা তার সাথে পাল্লা দিয়ে শৈতপ্রবাহ ও কুয়াশার ফলে গাছ থেকে পাতা খসে পরছে। যতটুকু পান গাছে আছে তাও নষ্ট হয়ে গেছে। যা বাজারে বিক্রী হবে না। অনেক পানচাষী ব্যাঙ্ক থেকে ও স্থানীয় মহাজনদের কাছ থেকে চাষ করার জন্য ঋন নিয়েছেন। সেই ঋণ কিভাবে শোধ করবে ও আগামী দিনে এই ক্ষতির পর পান চাষ করবে কিনা তাই নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছে চাষীরা। এখনি যদি সরকার পাশে না দাঁড়ায় তাহলে এই চাষ বন্ধ করে চাষীদের ভিন রাজ্যে শ্রমিকের কাজ করতে যাওয়া ছাড়া উপায় থাকবে না বলে তাদের দাবি।
জেলা উদ্যানপালন বিভাগের আধিকারিক রাহুল চক্রবর্তী চাষীদের পাশে থাকা যাবতীয় যথাযোগ্য ব্যবস্থা নেওয়ার আস্বাস দিয়েছে।

Leave a Reply

avatar
  Subscribe  
Notify of