১৩ শিশুর মৃত্যুর কারণ মোবাইল ফোন।    কাশ্মীরের মুখ‍্যমন্ত্রীকে জেহাদি বললেন কাঠুয়াকান্ডে অভিযুক্তদের আইনজীবী।    ১৪ মে বাংলায় পঞ্চায়েত নির্বাচন, ১৭ মে গণনা! অবশেষে দিন ঘোষণা নির্বাচন কমিশনের।    টিকিট দেয়নি দল, তৃণমূল ছেড়ে কংগ্রেসে যোগ দুবারের বিজয়ী লড়াকু প্রার্থীর।    ‘গণতন্ত্রকে বলি দিয়ে, সংবিধানকে কচু কাটা করে কী প্রয়োজন এই ভোটের?’ প্রশ্ন তুললেন প্রাক্তন বিচারপতি অশোক গঙ্গোপাধ্যায়।    পঞ্চায়েত ভোটে ‘বিজেপির জয়ের কলঙ্ক’ থেকে পশ্চিমবঙ্গকে মুক্ত রাখার ডাক বুদ্ধের।    চার্জ দেওয়া অবস্থায় মোবাইল ফোনে কথা বলতে গিয়ে মৃত্যু কিশোরের।     পঞ্চায়েত নির্বাচনের দিন ঘোষনা হওয়ার খুশি মুখ্যমন্ত্রী।    একদফা ভোট নিয়ে বিজেপির কোনও আপত্তি নেই।    অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের দাবিতে অবস্থানে বসবে বামেরা : বিমান বসু।    নারকেলডাঙার রাজাবাজারে মিলল ২০ হাজার কেজি ভাগাড়ের মাংস, শহর জুড়ে তল্লাশি।    আপনার এ সপ্তাহ কেমন যাবে জেনে নিন আমাদের সাপ্তাহিক রাশিফল থেকে।
BREAKING NEWS:
  • ভোটের দিন ঘোষনা হল।
  • সারা রাজ্যে 14 মে একদফায় ভোট।
  • ভোটে নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন বিরোধীদের।
  • পঞ্চায়েত ভোট গননা 17 মে।
{"effect":"slide-h","fontstyle":"normal","autoplay":"true","timer":4000}


ভাঙড়ে তৃণমূলের গোষ্ঠী কোন্দলের জের, প্রার্থীকে মারতে এসে দুষ্কৃতিরা মারল অন্য মহিলাকে

আমাদের ভারত, ভাঙড়, ৯ এপ্রিল: তৃণমূলের গোষ্ঠী কোন্দলের জেরে মাঝে মধ্যেই অশান্তি ছড়াচ্ছে দক্ষিণ ২৪ পরগনার ভাঙড়ে। কাইজার আহমেদ অনুগামী অষ্টমী মণ্ডল এবার তৃণমূল কংগ্রেসের গ্রামসভার প্রার্থী হওয়ায় রেজ্জাক মোল্লার অনুগামীরা রবিবার রাতে তাঁকে মারতে এসেছিল। কিন্তু অন্ধকারে বুঝতে না পেরে দুষ্কৃতীরা অষ্টমী মণ্ডলের পরিবর্তে রুনু মণ্ডল নামে এক মহিলাকে মারধর করে। পরে ভুল বুঝতে পেরে পালিয়ে যায়। ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনার ভাঙড়ের ঘুনিমেঘি এলাকায়। ঘটনায় আহত মহিলাকে উদ্ধার করে রাতেই স্থানীয় নলমুড়ি হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যান স্থানীয়রা। ঘটনাকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ছড়িয়েছে এলাকায়।

স্থানীয় সুত্রে খবর গত কয়েকমাস ধরেই ভাঙড়ের তৃণমূল নেতা কাইজার আহমেদের আনুগামীদের সাথে রেজ্জাক মোল্লা অনুগামিদের বিরোধ লেগেই রয়েছে। ঘটনার জেরে মাঝে মধ্যেই দুইপক্ষ একে অপরের সাথে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ছে। এই ঘুনিমেঘি এলাকায় গ্রামসভায় এবারে তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী হয়েছেন অষ্টমী মণ্ডল নামে কাইজার আহমেদ অনুগামী এক মহিলা। সেই কারনেই রাগে ও ক্ষোভে ফুঁসছিল রেজ্জাক অনুগামীরা। বদলা নিতে তাই প্রার্থীকেই মারধরের পরিকল্পনা করেছিল তারা। রবিবার রাত আটটা নাগাদ প্রার্থী অষ্টমী মন্ডল স্থানীয় একটি দোকানে দরকারে এসেছিলেন। অভিযোগ, সেই সময় এলাকার বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দিয়ে দোকানে দাঁড়িয়ে থাকা আষ্টমী মন্ডলের উপর হামলা করতে যায় বাইকে করে আসা কয়েকজন দুষ্কৃতি। কিন্তু অন্ধকারে বুঝতে না পেরে অষ্টমী মণ্ডলের পরিবর্তে তারা মেরে বসে দোকানে দাঁড়িয়ে থাকা আরএক মহিলা রুনু মণ্ডলকে।
কিছুক্ষণের মধ্যেই অবশ্য নিজেদের সেই ভুল বুঝতে পেরে এলাকা থেকে পালিয়ে যায় অভিযুক্তরা। ঘটনাকে কেন্দ্র করে নতুন করে উত্তেজনা ছড়িয়েছে এলাকায়। যদিও এই অভিযোগের কথা অস্বীকার করেছেন রেজ্জাক অনুগামী স্থানীয় তৃণমূল নেতারা। এ বিষয়ে ইতিমধ্যেই ভাঙড় থানায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে ভাঙড় থানার পুলিশ।     

loading...

Leave a Reply

Be the First to Comment!

avatar
  Subscribe  
Notify of