বিশ্বকাপে ফুটবল মাঠে বরাবর‌ই স্বপ্রতিভ ছিলেন ক্রোট প্রসিডেন্ট।    ফরাসীদের বিশ্বকাপ জয়, আনন্দে মাতল চন্দননগর।    বিশ্বকাপের মহারণে মাঠে সাক্ষী থাকলেন মহারাজ।    সমুদ্রে মাছ ধরতে গিয়ে নিখোঁজ তিনটি ট্রলার সহ ১৯ মৎস্যজীবী।    মা মাটি মানুষের সরকার সিন্ডিকেটের ইচ্ছাতেই চলছে : মোদী।    কৃষকদের উন্নতির জন্য বিজেপির অাগে কেউ এত ভাবেনি : মোদী।    মেটিয়াবুরুজে দুর্ঘটনায় মৃত বাবা-মেয়ে, প্রতিবাদে ১০টি গাড়িতে ভাঙচুর ক্ষুব্ধ জনতার।    তৃণমূলের জুলুম থেকে আর কয়েক মাসের মধ্যেই মিলবে মুক্তি : মোদী।     হাতজোড় করে স্বাগত জানালেন মমতা! ধন্যবাদ জানালেন মোদী।    মোদীর সভায় চাঁদোয়া ভেঙ্গে অাহত ৩০।    পুলিশের বাধায় প্রধানমন্ত্রীর সভায় যেতে পারলেন না অনেকে, খড়্গপুরে বিজেপি কর্মীদের হাতে আক্রান্ত পুলিশ।    বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে কিশোরীকে ধর্ষণ, গ্রেপ্তার সিভিক ভলান্টিয়ার।    বজবজে ভাইস চেয়ারম্যান অনুগামীদের বিরুদ্ধে বিজেপি কর্মীদের মারধর,বাড়ি ভাঙ্গচুরের অভিযোগ।    আপনার দিনটি কেমন যাবে জেনে নিন আমাদের দৈনিক রাশিফল থেকে।    চিৎপুরের যাত্রাপাড়ায় বিশেষ গিমিক টেলিভিশন সিরিয়ালের জুটি।    মস্তিষ্কের পুষ্টিতে সুপ অপরিহার্য, বলছেন খাদ্য বিশেষজ্ঞরা।
BREAKING NEWS:
  • ২০১৮ বিশ্বকাপ ফুটবলে জয়ী ফ্রান্স।
  • ফাইনালে ফ্রান্স-৪ ক্রোয়েশিয়া-২
  • তৃতীয় স্থানের খেলায় বেলজিয়াম জয়ী
{"effect":"slide-h","fontstyle":"normal","autoplay":"true","timer":4000}


বালুরঘাটের কৃষকের মেয়ে জাতীয় হকিতে যোগ দিতে পৌঁছাল ছত্রিশগড়, আশায় ভাটরা গ্রাম ও তার পরিবার

আমাদের ভারত ডেস্ক, বালুরঘাট, ৭ নভেম্বর : হকিতে জাতীয় স্তরে জেলার নাম উজ্জ্বল করতে ছত্রিশগড় পাড়ি দিল কৃষকের মেয়ে। বালুরঘাটের নদীপার বালিকা বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেনীর ছাত্রী মল্লিকা পাহান সোমবার বাবা মদন পাহানকে নিয়ে রওনা হন জাতীয় পর্যায়ে অংশগ্রহণ করতে। শোরগোল গোটা দক্ষিণ দিনাজপুর জেলাজুড়ে। এদিকে ছোট্ট মল্লিকার সফলতার আশায় এখন দিন গুনছেন বালুরঘাটের বোয়ালদাড় গ্রাম পঞ্চায়েতের ভাটরা গ্রামের বাসিন্দারা। বিগত দুবছরে স্কুল লেবেলে জেলা থেকে রাজ্য এবং তারপর জাতীয় পর্যায়ে পৌছানোর গতিতে অবাক স্কুলের শিক্ষক-শিক্ষিকারা। আগামী ১০ থেকে ১৭ নভেম্বর ছত্তিসগড়ে স্কুল পর্যায়ের ওই হকিতে অংশ নেবে বালুরঘাটের মল্লিকা। দেশের হয়ে খেলে সকলের মুখ উজ্জ্বল করতে চায় মল্লিকা। ভাটরার বাসিন্দা পেশায় কৃষক মদন পাহান এর বড় মেয়ে মল্লিকা পাহান। পরিবারে স্ত্রী ছাড়াও আর এক ছেলে রয়েছে। মেয়ে মল্লিকার খেলার প্রতি আগ্রহ থাকলেও আর্থিক অনটনের কারনে কিছুটা গুটিয়ে ছিলেন তিনি বলে জানান বাবা মদন। তবে স্কুলের উদ্যোগে তাদের অনেকটাই স্বপ্ন পুরন হয়েছে। তাদের আশা হকিতে মল্লিকা দেশের মুখ উজ্জ্বল করবেই।
নদীপার বালিকা বিদ্যালয়ের গেম বিষয়ক শিক্ষিকা নিভা মন্ডল জানিয়েছেন, ক্লাস ফাইভ থেকেই হকি খেলায় দুর্দান্ত ছিল মল্লিকা। স্কুল ও তার নিজের প্রচেষ্টাই ভালো খেলে জেলা থেকে রাজ্য এবং সেখান থেকে আজ জাতীয়স্তরে ডাক পেয়েছে। তার সাফল্যে সকলেই খুশি। তারা আশাবাদী ভবিষ্যৎ এ মল্লিকা শুধু স্কুল বা জেলার নয়,গোটা দেশের মুখ উজ্জ্বল করবে।

loading...

Leave a Reply

Be the First to Comment!

avatar
  Subscribe  
Notify of