কুমারস্বামী রাজনীতির মিলিন্দ সুমন।    পাকসেনার গুলিতে সাতদিনে নিহত ৪২ ভারতীয়।    বিশ্বভারতীর সমাবর্তন অনুষ্ঠানে মোদী হাসিনার দ্বিপাক্ষিক বৈঠকই গুরুত্বপূর্ণ।    কর্নাটকে আবার আস্থা ভোট বৃহস্পতিবার, টিকবে তো জোট সরকার।    প্রয়োজন মিটে গেলে ছুড়ে ফেলে দেন মমতা : মুকুল রায়।    বিরাটির খোলা রাস্তায় তৃণমূল পুরপ্রধান-উপ পুরপ্রধানের লড়াই, থামাতে গিয়ে রীতিমতো হেনস্থা সাংসদ সৌগত রায়ের।    হৃদযন্ত্র প্রতিস্থাপনের পর ভালোই আছেন দিলচাঁদ, খুশি চিকিৎসকরা।    তারাপীঠে পুজো দিতে এসে হাতাহাতিতে জড়ালেন ঝাড়খণ্ডের মুখ্যমন্ত্রীর উপদেষ্টা।    শাসক দলের অত্যাচারে ভিটেমাটি ছাড়লেন রাজগঞ্জের কয়েকটি পরিবার।    শতাব্দী এক্সপ্রেসের খাবার খেয়ে অসুস্থ ২০ জন যাত্রী।    আরামবাগে বিভিন্ন হোটেলে মধুচক্রের রমরমা, আটক বাংলাদেশি তরুণী।    আপনার এ সপ্তাহ কেমন যাবে জেনে নিন আমাদের সাপ্তাহিক রাশিফল থেকে।
BREAKING NEWS:
  • রাজ্য জয়েন্ট এনট্রান্সের ফল প্রকাশ।
  • জয়েন্টে প্রথম অভিনন্দন বোস।
{"effect":"slide-h","fontstyle":"normal","autoplay":"true","timer":4000}


অকংগ্রেসি তৃতীয় ফ্রন্ট সত‍্যিই কি মমতা চান?কেন তাহলে জেডিএস কংগ্রেস জোটের প্রস্তাব তাঁর

আমাদের ভারত ডেস্ক,১৬ মে: আঞ্চলিক দলগুলি নিয়ে তৃতীয় ফ্রন্ট গড়ার তোড়জোড় শুরু হয়েছে বেশকিছু দিন। আর এই তৃতীয় ফ্রন্ট গঠনের ক্ষেত্রে বারবার বলা হয়েছিল অকংগ্রেসি অবিজেপি তৃতীয় ফ্রন্ট গঠন করা হবে। আর এই তৃতীয় ফ্রন্ট গঠনের অন‍্যতম কান্ডারী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আগে কংগ্রেসের সঙ্গে হাত মেলালেও এবার আর তিনি তৃতীয় ফ্রন্টের মধ্যে কংগ্রেসকে চান না। তাই তিনি সোনিয়ার নৈশভোজেও উপস্থিত হন নি। কংগ্রেসের তরফে তাকে একাধিক বার বলা হয়েছে একছাতার তলায় জোট গড়তে? তখন কোন সদুত্তর পাওয়া যায় নি তৃণসুপ্রিমোর কাছ থেকে। কিন্ত কর্নাটক নির্বাচনে দেখা যাচ্ছে অঙ্ক পাল্টে গেছে অনেকটাই। হয়ত কংগ্রেসকে সঙ্গে নিয়ে এক ছাতার তলায় আসতে চলেছেন তৃণমূলের সর্বেসর্বা। কারণ হিসেবে রাজনৈতিক মহলের একাংশের ধারণা রাজ‍্যসভা নির্বাচনে সময় আঞ্চলিক দলগুলিকে একসঙ্গে ধরে রাখা যায় নি। মায়াবতী অখিলেশ জোট ভেঙে নির্বাচনে অংশ গ্রহন করেন। আর তাঁর ফায়দা হয় বিজেপির। তারপর থেকেই আবার দেখা যাচ্ছে মমতা সোনিয়া সক্ষতা বাড়তে শুরু করেছে। সূত্রের খবর কর্নাটকের ফলাফলের পরেই তৃণমূল সুপ্রিমো ফোন করেন সোনিয়াকে আর পরামর্শ দেন গোয়া ,মেঘালয়ের ভুল যেন কংগ্রেস আর না করে। জেডিএসকে সমর্থন করে। অন্যদিকে দেবেগৌড়াকেও তিনি ফোনে কংগ্রেসের সঙ্গে জোট করার অনুরোধ করেন। এককথায় বিজেপিকে আটকাতে তিনি কংগ্রেসের সহায় হন। অন্যদিকে টুইটারে একথাও তিনি বলেন ভোটের আগে জেডিএস কংগ্রেস জোট হলে নির্বাচনের ফলাফল অন‍্যরকম হতো। বিজেপি ৫০ এর বেশি আসন পেত না। এথেকে স্পষ্ট তৃতীয় ফ্রন্ট অবিজেপি অবশ‍্যই হবে কিন্তু অকংগ্রেসি নয়। তাহলে কি ইউ পি এ থ্রি তৈরির পথ প্রশস্থ করল কর্নাটক নির্বাচনে। সময় তার উত্তর দেবে।

loading...

Leave a Reply

Be the First to Comment!

avatar
  Subscribe  
Notify of