যেকোন রকম বিজ্ঞাপনের জন্য আমাদের সঙ্গে যোগাযোগের মাধ্যম : amaderbharatdesk@gmail.com    ৩ হাজারের বেশি অ্যান্টি ট্যাংক মিসাইল কিনতে পারে ভারত ফ্রান্স থেকে।     কংগ্রেসের ইস্তেহারে রামমন্দির যুক্ত হলে আমরা তাদের সমর্থনের কথা ভাবতে পারি : ভিএইচপি।    বিজেপির বিরুদ্ধে কংগ্রেসের প্রার্থী হতে পারেন করিনা কাপুর।    মমতা নয় রাহুলকেই নেতা দেখতে চান তারা, ব্রিগেডের পরেই জানালেন তেজস্বী, স্টালিনরা।     একসময় কাগজ কুড়াতেন আজ চণ্ডীগড়ের মেয়র এই বিজেপি নেতা।    ব্রিগেডে খরচের উসুল তুলতে ব্যর্থ তৃণমূল, সোশ্যাল মিডিয়ায় মোদিকে হারিয়েই সন্তুষ্ট।    মালদায় অমিত শাহ-যোগীর সভা সফল করার জন্য বিজেপির তিন প্ল্যান।    ব্রিগেডের সভার বদলে আসানসোলে সভা করবে প্রধানমন্ত্রী, জানালেন দিলীপ ঘোষ।    জম্মু-কাশ্মীরে একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাবে বিজেপি , দাবি রাম মাধবের।    জয়নগরে অমিত শাহের সভার আগেই রাস্তাঘাট তৃণমূলের দখলে।    লোকসভা নির্বাচনকে মাথায় রেখে সফরে জিটিএর প্রতি মুক্তহস্ত মমতা।    ডুয়ার্সে চিতাবাঘের চামড়া সহ আটক পাঁচ চোরাচালানকারী।    আজ আপনার কেমন যাবে জেনে নিন।    বিজেপি নেতার মাতৃবিয়োগে সমবেদনা জানাতে দুর্গাপুরে রাজ্যপাল।


২০১৯ এ বিজেপির পক্ষে আরও বড় ঝড় উঠবে, সেই ভয়ে বিরোধিরা একজোট হয়েছে, মোদী

আমাদের ভারত ডেস্ক, ১৪ সেপ্টেম্বর: ২০১৩-১৪র তুলনায় ২০১৯এ অনেক বড় ঝড় উঠবে বিজেপির অনুকূলে। সেই ভয়টাই আগে থেকে টের পেয়েছে বিরোধিরা। সেই জন্যই তারা একজোট হবার চেষ্টা করে যাচ্ছে। এভাবেই বিরোধীদের গুরুত্বহীন করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আর মনোবল বাড়ালেন দলের কর্মীদের।

বৃহস্পতিবার নমো অ‍্যাপের মাধ‍্যমে দলীয় কর্মীদের সঙ্গে বৈঠক করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সেখানে তিনি বলেন বিরোধিরা মনে করছে ২০১৩-১৪ র তুলনায় অনেক বড় ঝড় ব‌ইতে চলেছে বিজেপির অনুকূলে। আর সেই ভয়েতেই বিরোধী দল গুলো একজোট হবার চেষ্টা চালাচ্ছে। কারণ তারা মনে করছেন বিজেপির ঝড়ে একক ভাবে তাদের অস্তিত্ব বিপন্ন‌ হতে পারে। সেই কারণেই বিরোধিরা একের পর এক ইস‍্যু তুলে আসলে নিজেদের অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখার চেষ্টা চালাচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রী দাবি করেন বিরোধিরা যতই চেষ্টা করুক ভারতবাসী সব বিষয় সম্পর্কে ওয়াকিবহাল। গত চার বছরে কংগ্রেস সহ বিরোধী‌ দলগুলোর মুখোশ খুলে গেছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন ২০১৪তে জনগণ তাদের দিক থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়ে তাদের ক্ষমতাচ্যুত করেছিল। কিন্তু বিরোধীদলের ভূমিকা পালন করতেও তারা সম্পূর্ণ ভাবে ব‍্যর্থ।

নরেন্দ্র মোদী বলেন তার সরকার জাতপাত নির্বিশেষে সবটা সাত সবটা বিকাশ মডেলের কার্যক্ষেত্রে রূপান্তর ঘটাতে পেরেছে। তাইতো কয়লা ও টেলিকমের মত বড় ক্ষেত্রকে দুর্নৈ কবল থেকে মুক্ত করে উন্নয়নের দিকে যাত্রা করাতে সক্ষম হয়েছে।

Leave a Reply

avatar
  Subscribe  
Notify of