বিজ্ঞাপনের জন্য আমাদের সঙ্গে যোগাযোগের মাধ্যম : amaderbharatdesk@gmail.com    “ওদেরকে শাস্তি দেওয়ার সময় এসে গেছে” কংগ্রেসকে তোপ যোগগুরু রামদেব বাবার।    রাত পোহালেই রাজ্যে দ্বিতীয় দফায় নির্বাচন।     দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি ও রায়গঞ্জ লোকসভা কেন্দ্রে হবে ভোটগ্রহণ।    “টাকার থলি নিয়ে রাস্তায় রাস্তায় ঘুরছে আরএসএসের দালালরা” অভিযোগ মমতার।    সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেলে ছয় মাসের মধ্যেই বিধানসভা ভোট করাব বললেন আলুয়ালিয়া।    ঝাঁটা হাতে কেন্দ্রীয় বাহিনীকে এলাকা ছাড়া করার নিদান রাজ্যের মন্ত্রীর।    কান্দিতে অধীর গড়ে দাঁড়িয়ে কংগ্রেস ও বিজেপিকে তোপ মমতার।    নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার জন্য “ইউনিক কালার কোডিং” ব্যবস্থা।    আরও কড়া হল কমিশন, দুবের মাথায় বসল নতুন পর্যবেক্ষক।    অমিত, যোগীর জোড়া ফলায় মমতাকে ঘায়েলের চেষ্টা বিজেপির।    জয়ের প্রচারে আমতায় রাজনাথ সিং।    ঘাটালে একা কুম্ভ ভারতী।    আজ আপনার কেমন যাবে জেনে নিন।    ভোটের দিনগুলোয় কেন্দ্রীয় নেতাদের এনে কিস্তিমাত করতে কৌশল বিজেপির।


ভোটের লড়াই এবার শাড়িতেও! ‘মোদী শাড়ি’, ‘মমতা শাড়ি’ ……

দীপান্বিতা সাধুখাঁ :

নির্বাচনের মরসুমে বাজারে এসেছে ভোটের শাড়ি৷ বাম-বিজেপি থেকে কংগ্রেস-তৃণমূল, বিভিন্ন দলের প্রতীক সম্বলিত শাড়ি বিক্রি হচ্ছে নিউ মার্কেটে ৷ শাড়িতে রয়েছে মোদী-মমতা-রাহুল-প্রিয়াঙ্কার ছবিও৷ পৃথিবীর সবচেয়ে বড় গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রে নির্বাচন৷ এই নির্বাচন শুধুই দিল্লির ক্ষমতা দখলের লড়াই নয়, দেশবাসীর অন্যতম পার্বণও বটে৷ দোল-দীপাবলি-ঈদ-বড়দিন প্রতি বছর আসে, কিন্তু দেশ জুড়ে এত বড় ভোট উৎসব আসে পাঁচ বছর অন্তর৷ সেই উৎসব ঘিরে মেতে উঠেছে মানুষ৷ তার ছোঁয়া দেখা যাচ্ছে সর্বত্র৷ বাদ যাচ্ছে না পোশাকও৷
বাজারে এসে গিয়েছে নতুন ডিজাইনের শাড়ি৷ তাতে থাকছে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নির্বাচনি প্রতীক৷ শাড়িতে শোভা পাচ্ছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী, তাঁর বোন প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর হাসিমুখ৷ নিউ মার্কেটের মানসা শাড়ির দোকানে এমনই ডিজিটাল প্রিন্টের শাড়ি মিলছে৷ প্রতিটি শাড়িই সুন্দরভাবে ডিজাইন করা ৷ বিজেপির পদ্ম, কংগ্রেসের হাত ও তৃণমূলের ঘাসফুল প্রতীক দেখা যাচ্ছে৷ কোথাও বড় মাপের প্রতীক, কোথাও ছোট ছোট অসংখ্য প্রতীকে আঁচল ভরে দেওয়া হয়েছে৷ কমিউনিস্টদের কাস্তে-হাতুড়িও বাদ নেই, তাদের শাড়ি সেজে উঠেছে শুধু প্রতীকে ৷ প্রতি শাড়িতে নির্দিষ্ট দলের রং’কে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে৷ কংগ্রেস ও তৃণমূলের ক্ষেত্রে যা সবুজ, বিজেপির ক্ষেত্রে গেরুয়া, বামেদের বেলায় আবার লাল৷

নবীন ইসরানির মানসা শাড়ির দোকান এখন নিউ মার্কেটে আকর্ষণের কেন্দ্র হয়ে উঠেছে৷ তাঁর দোকানে শাড়ি কিনতে এসে মহিলারা বিস্মিত হচ্ছেন ভোটের শাড়ি দেখে৷ একেকটি শাড়ির দাম রাখা হয়েছে ১০০০ থেকে ১২০০ টাকা।

দেখুন ভিডিও :-

Leave a Reply

avatar
  Subscribe  
Notify of