বিজ্ঞাপনের জন্য আমাদের সঙ্গে যোগাযোগের মাধ্যম : amaderbharatdesk@gmail.com    “ওদেরকে শাস্তি দেওয়ার সময় এসে গেছে” কংগ্রেসকে তোপ যোগগুরু রামদেব বাবার।    রাত পোহালেই রাজ্যে দ্বিতীয় দফায় নির্বাচন।     দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি ও রায়গঞ্জ লোকসভা কেন্দ্রে হবে ভোটগ্রহণ।    “টাকার থলি নিয়ে রাস্তায় রাস্তায় ঘুরছে আরএসএসের দালালরা” অভিযোগ মমতার।    সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেলে ছয় মাসের মধ্যেই বিধানসভা ভোট করাব বললেন আলুয়ালিয়া।    ঝাঁটা হাতে কেন্দ্রীয় বাহিনীকে এলাকা ছাড়া করার নিদান রাজ্যের মন্ত্রীর।    কান্দিতে অধীর গড়ে দাঁড়িয়ে কংগ্রেস ও বিজেপিকে তোপ মমতার।    নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার জন্য “ইউনিক কালার কোডিং” ব্যবস্থা।    আরও কড়া হল কমিশন, দুবের মাথায় বসল নতুন পর্যবেক্ষক।    অমিত, যোগীর জোড়া ফলায় মমতাকে ঘায়েলের চেষ্টা বিজেপির।    জয়ের প্রচারে আমতায় রাজনাথ সিং।    ঘাটালে একা কুম্ভ ভারতী।    আজ আপনার কেমন যাবে জেনে নিন।    ভোটের দিনগুলোয় কেন্দ্রীয় নেতাদের এনে কিস্তিমাত করতে কৌশল বিজেপির।


নন্দীগ্রামে হনুমান ভক্তদের ওপর হামলার অভিযোগ

আমাদের ভারত ডেস্ক, নন্দীগ্রাম, ২৬ ডিসেম্বর : নন্দীগ্রামের জানকিনাথ মন্দিরের পার্শবর্তী ডগলাস মাঠে আজ হনুমানজির বাৎসরিক  পুজোর আয়োজন করা হয়েছে। সেই পুজোয় আগত ভক্তদের পথ আটকে পুজোর স্থলে যেতে বাধা দেয়। সেই বাধা দেওয়াকে কেন্দ্র করে গন্ডগোলের সূত্রপাত।
হনুমান জয়ন্তীর পুজো উপলক্ষ্যে বিশাল ভক্ত সমাবেশের আয়োজন করে নন্দীগ্রাম বজরং কমিটি। প্রায় ৩০হাজার ভক্তের সমাবেশ ও খাওয়ার আয়োজন করা হয়েছে বলে উৎসব কমিটির পক্ষ থেকে জানা গেছে।

সকাল থেকেই নন্দীগ্রাম বিভিন্ন এলাকা সহ জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে ভক্তবৃন্দ পুজোর স্থলের দিকে আসতে থাকে মিছিল করে। এই রকম একটি ভক্তের মিছিল যখন নন্দীগ্রামের তেরোপেখীয়ার দিক থেকে আসছিল সেই সময় নন্দীগ্রামের বয়ালের কাছে মিছিলটিকে আটকে দেয় একদল দুষ্কৃতি। পথ আটকে ভক্তদের মারধর করা হয় বলে অভিযোগ। পরে মারধরের খবর পেয়ে পুজোর স্থল থেকে গাড়ি করে কয়েকশ ভক্ত গন্ডগোল স্থলের কাছে গেলে মিছিলে বাধাদান কারিদের সঙ্গে বচসা ও হাতাহাতি হয় বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে। এর পর আরও ভক্ত সেখানে পৌঁছলে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। এই ঘটনার পরে গন্ডগোলের খবর পেয়ে নন্দীগ্রাম থানার পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি আয়ত্তে আনে।

এরপর কয়েক হাজার ভক্ত টেঙ্গুয়া মোড়ে পথ অবরোধ করে। প্রায় এক ঘণ্টা অবরোধ চলে। পরে পুলিস গিয়ে হামলাকারীদের গ্রেফতারের আশ্বাস দিলে অবরোধ উঠে যায়।

ফটো : টেঙ্গুয়া মোড়ে পথ অবরোধ।

Leave a Reply

avatar
  Subscribe  
Notify of