যেকোন রকম বিজ্ঞাপনের জন্য আমাদের সঙ্গে যোগাযোগের মাধ্যম : amaderbharatdesk@gmail.com    ৩ হাজারের বেশি অ্যান্টি ট্যাংক মিসাইল কিনতে পারে ভারত ফ্রান্স থেকে।     কংগ্রেসের ইস্তেহারে রামমন্দির যুক্ত হলে আমরা তাদের সমর্থনের কথা ভাবতে পারি : ভিএইচপি।    বিজেপির বিরুদ্ধে কংগ্রেসের প্রার্থী হতে পারেন করিনা কাপুর।    মমতা নয় রাহুলকেই নেতা দেখতে চান তারা, ব্রিগেডের পরেই জানালেন তেজস্বী, স্টালিনরা।     একসময় কাগজ কুড়াতেন আজ চণ্ডীগড়ের মেয়র এই বিজেপি নেতা।    ব্রিগেডে খরচের উসুল তুলতে ব্যর্থ তৃণমূল, সোশ্যাল মিডিয়ায় মোদিকে হারিয়েই সন্তুষ্ট।    মালদায় অমিত শাহ-যোগীর সভা সফল করার জন্য বিজেপির তিন প্ল্যান।    ব্রিগেডের সভার বদলে আসানসোলে সভা করবে প্রধানমন্ত্রী, জানালেন দিলীপ ঘোষ।    জম্মু-কাশ্মীরে একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাবে বিজেপি , দাবি রাম মাধবের।    জয়নগরে অমিত শাহের সভার আগেই রাস্তাঘাট তৃণমূলের দখলে।    লোকসভা নির্বাচনকে মাথায় রেখে সফরে জিটিএর প্রতি মুক্তহস্ত মমতা।    ডুয়ার্সে চিতাবাঘের চামড়া সহ আটক পাঁচ চোরাচালানকারী।    আজ আপনার কেমন যাবে জেনে নিন।    বিজেপি নেতার মাতৃবিয়োগে সমবেদনা জানাতে দুর্গাপুরে রাজ্যপাল।


মহিলাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ট্রেনে এবার’প্যানিক বাটন’

আমাদের ভারত, ১৬ মে:মহিলা যাত্রীদের নিরাপত্তাকে আরো জোরদার করতে উত্তর পূর্ব রেলওয়ে রাতের ট্রেনে মহিলা পুলিশের পাশাপাশি ট্রেনের কামরায় ‘প্যানিক বাটন’ এর ব্যাবস্থা নেওয়ার পরিকল্পনা করা হয়েছে।’মহিলা এবং শিশু নিরাপত্তা’র ওপর জোর দিয়ে এবছর রেলওয়ে সাবার্বান রেলওয়ে পুলিশ মোতায়েনের পাশাপাশি আর পি এফ এ মহিলা পুলিশ নিয়োগেও জোর দিচ্ছেন। একথা পিটিআই কে জানান উত্তর পূর্ব রেলের প্রধান পি আর ও সঞ্জয় যাদব।
যাদব বলেন মহিলাদের সাথে ঘটে যাওয়া বিভিন্ন দুর্ঘটনা এড়াতে ট্রেনের বিভিন্ন কামরায় প্যানিক বাটন এর ব্যাবস্থা রাখতে চান তারা,যেটি গার্ডের কামরার সাথে লিঙ্ক করা থাকবে। মহিলাদের সুবিধা মতো জায়গায় সুইচটি থাকবে, যাতে তারা বিপদে পড়লে এটি ব্যবহার করতে পারেন। এবং ট্রেনে উপস্থিত রেলের স্টাফ ওই সংকেত অনুসরণ করে নির্দিষ্ট কামরায় তাড়াতাড়ি পৌঁছুতে পারেন।
এখনও পর্যন্ত এই ধরণের পরিস্থিতিতে পড়লে হেল্পলাইন নাম্বারে কল বা এস এম এস করে বা কামরার চেন টেনে মহিলাদের অপেক্ষা করতে হয়। কিন্তু এই প্যানিক বাটন তাদের দিকে খুব শীঘ্রই সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিতে পারবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।শুধু তাই নয় মহিলা কামরার রং আলাদা করে বা জানলায় তারের জাল লাগিয়ে তাদের নিরাপত্তার দিকটিকে সুরক্ষিত করা হবে বলেও জানান যাদব জি।
এই প্রস্তাবের উপর ভিত্তি করে কাজ চলছে । মনে করা হচ্ছে এ বছরেই প্যানিক বাটন চালু করা যাবে। রেলওয়ে আরো প্রস্তাব এনেছে যাতে প্রতি মাসে মহিলা নিরাপত্তার পাশাপাশি সর্বভারতীয় নিরাপত্তার হেল্পলাইনটিও আরও উন্নত করা যায়। সিসিটিভি ক্যামেরা মহিলা কামরায় ও প্ল্যাটফর্মেও রাখা ও লাইভ ফিড এর ব্যাবস্থা করা হবে। সঞ্জয় যাদব আরও বলেন যে রেলওয়ে আইন সংশোধনের মাধ্যমে মহিলাদের ওপর হওয়া অন্যায়ের বিরুদ্ধে আরও কড়া আইন আনার ব্যাপারেও রেলওয়ে পদক্ষেপ নেবে।

Leave a Reply

avatar
  Subscribe  
Notify of