যেকোন রকম বিজ্ঞাপনের জন্য আমাদের সঙ্গে যোগাযোগের মাধ্যম : amaderbharatdesk@gmail.com    চলে গেলেন দক্ষিণ ভারতে বিজেপির পদ্ম ফোটানোর অন্যতম কারিগর ও সৈনিক অনন্ত।    হিন্দু শরণার্থীদের নাগরিকত্ব, অবৈধ অনুপ্রবেশকারি বিতাড়নের দাবিতে রাজ্য জুড়ে আন্দোলনের পথে হিন্দু সংহতি।    মদ ও মাংস বিক্রিতে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হল অযোধ্যা জেলায়।    রথযাত্রার অনুমতি নিয়ে পুলিশের বিরুদ্ধে গড়িমসির অভিযোগ, আদালতে যাওয়া হুমকি দিলীপ ঘোষের।    মোদী উদ্বোধন করলেন দেশের প্রথম আন্তঃ রাজ্য জলপথ পন্য পরিবহন পরিষেবা, জলপথে যুক্ত হল উত্তর প্রদেশ -পশ্চিমবঙ্গ।    দাড়িভিট কাণ্ডে জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের রিপোর্ট চায় হাইকোর্ট।    এসআরএফটিআই ক্যাম্পাসে ভিন রাজ্যের ছাত্রীর শ্লীলতাহানির অভিযোগ।    বন্দিদশা থেকে মুক্তি, দেশে ফিরলেন মালয়েশিয়ায় নিপীড়িত কলকাতার সঞ্জয় মল্লিক।    রোগী মৃত্যুকে ঘিরে গাফিলতির অভিযোগে ফের রণক্ষেত্র পিয়ারলেস, ভাঙচুর।    সহবাস করার পরে ভুয়ো ফেসবুক অ্যাকাউন্ট খুলে সেই ছবি পোষ্ট করায় গ্রেফতার যুবক।    রাজ্য সরকারি কর্মীদের জন্য এবার ছট পুজোয় দু’দিন ছুটি ঘোষণা রাজ্য সরকারের।    আইএসএলের ধাঁচে সুন্দরবন মাতল ফুটবল উৎসবে।    আজ আপনার কেমন যাবে জেনে নিন।    গ্যাসের আলো থেকে এলইডি, জগদ্ধাত্রীর শহরে আলোর বিবর্তন।
BREAKING NEWS:
  • পুরীগামী ধৌলি এক্সপ্রেস লাইনচুত্য।
  • পাঁশকুড়ার কাছে লাইনচুত্য হয় ধৌলি।
  • দূর্ঘটনায় কোন হতাহতের খবর নেই।
{"effect":"slide-h","fontstyle":"normal","autoplay":"true","timer":4000}


সেক্স পলিটিক্স!

শান্তনু সিংহ, আইনজীবী

………………………………………………………………….

কলকাতা, ৮ মে: “মেট্রোতে দেবতনু ভট্টাচার্য্যের হাতে যুগল নিগৃহীত হয়েছে “- নিখুঁত ভাবে সাজানো এই গল্পটা আমাদের হাল্কা ভাবে নেওয়া উচিত নয়, এটা একটা গভীর ষড়যন্ত্র যা তৈরি করেছে কমিউনিস্ট-ইসলামিক শক্তি জোট, যেখানে উদ্দেশ্য হচ্ছে বাংলার যুবকদের জাতীয়তাবাদী আন্দোলনের বিরুদ্ধে প্ররোচিত করা।
প্রথম চারদিনে দেবতনু ভট্টাচার্য্য কমিউনিস্টদের কাছ থেকে পেয়েছেন তিরিশ হাজার পোস্ট এবং কমেন্ট, বিভিন্ন ফেক এবং রিয়েল আই ডি থেকে। যার সবটাই ছিল নোংরা এবং অকথ্য ভাষায় গালিগালাজে ভর্তি। ওই ঘটনার পর,যুগল যেভাবে শীতঘুমে চলে গিয়েছে, তাতে সন্দেহের মাত্রা আরো বাড়ছে।
ওই বিশেষ দিনে, আমি নিজে, সঙ্গে তপন ঘোষ, দেবতনু ভট্টাচার্য্য এবং বাংলাদেশের একজন আইনজীবী একসাথে একটা মিটিংয়ে ছিলাম। বিকাল চারটে থেকে রাত্রি আটটা অবধি। তারপর একসাথে ডিনার করলাম। দেবতনু ভট্টাচার্য্য বেড়িয়ে গেলেন তাঁর নিজের বাড়ির উদ্দেশ্যে, সংগঠনের গাড়িতে।
২০০৫ অবধি কমিউনিস্টরা তাদের আদর্শের কথা বলতো, যদিও সেটা ছিল ভাববাদী, যা যুবকদের আকর্ষণ করতো । কিন্তু ২০০৫ থেকে কমিউনিস্টরা আদর্শের জন্য হারিয়েছেন তাঁদের সমস্ত রকমের অর্ন্তদৃষ্টি। তাই যুবকদের আকর্ষণের জন্য তারা এখন উদ্ভাবিত করেছে “সেক্স-পলিটিক্স”- যুবকদের বিপথে চালিত করার জন্য।
আমরা জানি, কানু সান্যাল, জঙ্গল সাঁওতাল, অসীম চ্যাটার্জিদের। থাকতে পারে আমাদের তাদের সাথে আদর্শগত বিরোধ। কিন্তু তাদের প্রতি কারো অশ্রদ্ধা ভাব নেই। আমরা কখনো তাদের কাছ থেকে সংজ্ঞা – শুনিনি ন্যাপকিন আন্দোলনের , ব্রা প্রদর্শনের বা হোক চুম্বন অথবা হোক আলিঙ্গনের।তাঁরা সর্বদাই জোর দিতেন আদর্শের উপর, যদিও তা অনেকের কাছে পছন্দ হয়নি তবুও সেটা যুবদের সেক্স-পলিটিক্সের দিকেও মিসলিড করেনি।
কমিউনিস্টদের সাথে আমার আদর্শগত বিরোধ সত্ত্বেও আমি আশাবাদী,তারা জোর দেবেন শুধুমাত্র আদর্শগত আন্দোলনের,কিন্তু কখনই সেক্স-পলিটিক্সের নয়। সেক্স-পলিটিক্স সমাজকে নিয়ে যাবে খাদের কিনারায়,যেখানে কুকর্মকারীরা নিজেই থাকবে একটা অংশ হিসেবে।

Leave a Reply

avatar
  Subscribe  
Notify of