যেকোন রকম বিজ্ঞাপনের জন্য আমাদের সঙ্গে যোগাযোগের মাধ্যম : amaderbharatdesk@gmail.com    ৩ হাজারের বেশি অ্যান্টি ট্যাংক মিসাইল কিনতে পারে ভারত ফ্রান্স থেকে।     কংগ্রেসের ইস্তেহারে রামমন্দির যুক্ত হলে আমরা তাদের সমর্থনের কথা ভাবতে পারি : ভিএইচপি।    বিজেপির বিরুদ্ধে কংগ্রেসের প্রার্থী হতে পারেন করিনা কাপুর।    মমতা নয় রাহুলকেই নেতা দেখতে চান তারা, ব্রিগেডের পরেই জানালেন তেজস্বী, স্টালিনরা।     একসময় কাগজ কুড়াতেন আজ চণ্ডীগড়ের মেয়র এই বিজেপি নেতা।    ব্রিগেডে খরচের উসুল তুলতে ব্যর্থ তৃণমূল, সোশ্যাল মিডিয়ায় মোদিকে হারিয়েই সন্তুষ্ট।    মালদায় অমিত শাহ-যোগীর সভা সফল করার জন্য বিজেপির তিন প্ল্যান।    ব্রিগেডের সভার বদলে আসানসোলে সভা করবে প্রধানমন্ত্রী, জানালেন দিলীপ ঘোষ।    জম্মু-কাশ্মীরে একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাবে বিজেপি , দাবি রাম মাধবের।    জয়নগরে অমিত শাহের সভার আগেই রাস্তাঘাট তৃণমূলের দখলে।    লোকসভা নির্বাচনকে মাথায় রেখে সফরে জিটিএর প্রতি মুক্তহস্ত মমতা।    ডুয়ার্সে চিতাবাঘের চামড়া সহ আটক পাঁচ চোরাচালানকারী।    আজ আপনার কেমন যাবে জেনে নিন।    বিজেপি নেতার মাতৃবিয়োগে সমবেদনা জানাতে দুর্গাপুরে রাজ্যপাল।


প্রিরিসাইডিং অফিসারের হত্যার প্রতিবাদে শিলিগুড়ির ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়ক অবরোধ করে ভোটকর্মীদের বিক্ষোভ

আমাদের ভারত, শিলিগুড়ি,১৬ মে: ভোট কর্মীরা ঘড়ি মোড়ে দীর্ঘক্ষন অবরোধের পরেও আন্দোলনকারীদের দাবি মতো উপযুক্ত আশ্বাস দিতে ঘটনাস্থলে জেলাশাসক ও পুলিশ সুপার না আসায় আরও তীব্রতর হচ্ছে ভোটকর্মীদের আন্দোলন। প্রশাসনের উপর চাপ সৃষ্টি করতে তাঁরা শিলিগুড়ির ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়ক অবরোধের সিদ্ধান্ত নেন। ভোটকর্মীরা নিহত প্রিসাইডিং অফিসার রাজকুমার রায়ের ছবি নিয়ে বিক্ষোভ মিছিল করে শিলিগুড়ি মোড়ে ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়ক ও রায়গঞ্জ-বালুঘাট রাজ্য সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে। বিক্ষোভের জেরে অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে জাতীয় সড়ক।অথচ কোনও হেলদোল নেই প্রশাসনের।
বুধবার সকাল থেকে রায়গঞ্জ শহরের ঘড়ি মোড় এলাকায় সহকর্মী প্রিসাইডিং অফিসার রাজকুমার রায়ের মৃত্যুর প্রতিবাদে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন ভোটকর্মীরা। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, অতিরিক্ত জেলা শাসক, মহকুমা শাসক প্রশাসনিক আধিকারিকরা বারবার বুঝিয়ে অবরোধ তোলার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন। উলটে অবরোধকারীদের বোঝাতে গিয়ে চূড়ান্ত হেনস্থার শিকার হন মহকুমা শাসক  টি এন শেরপা। ধাক্কাধাক্কি, কিল,ঘুষি সহ এসডিওকে লক্ষ্য করে জুতোও ছোঁড়েন বিক্ষোভকারীরা। এখানেই ক্ষান্ত না হয়ে এসডিওর গায়ে ও মাথায় জল ঢেলে দেন ক্ষুব্ধ ভোটকর্মীরা। তাদের দাবি যতক্ষন না জেলা শাসক ও পুলিশ সুপার তাদের আশ্বাস দেবেন, ততক্ষণ তাদের আন্দোলন চলবে। তাদের আরো অভিযোগ, পুলিশের কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন রাজকুমার বাবুর স্ত্রী,কিন্তু তাদের অভিযোগের রিসিভ কপি দিলেও তাদের কেশ নাম্বার দেয়নি। যদিও পুলিশের বক্তব্য, বিভিন্ন কারণেই তাদের কেশ নাম্বার দিতে দেরি হয়। এই অবরোধের যেরে বহু দূর পাল্লার গাড়ি আটকে পড়েছে। ঘটনা স্থলে বিশাল পুলিশ বাহিনী। 

Leave a Reply

avatar
  Subscribe  
Notify of