যেকোন রকম বিজ্ঞাপনের জন্য আমাদের সঙ্গে যোগাযোগের মাধ্যম : amaderbharatdesk@gmail.com    তেলেঙ্গানায় ক্ষমতায় আসতে চন্দ্রশেখরকে সমর্থনের প্রস্তাব বিজেপির, শর্ত একটাই ত্যাগ করতে হবে ওয়াইসিকে।    অধ্যাদেশ জারি করে রাম মন্দির নির্মাণের দাবিতে গেরুয়া স্রোত রাজধানীতে।    “সংখ্যালঘু ভোটের জন্য হিন্দু বিদ্বেষী বাংলাদেশি ধর্মগুরুকে সভা করার অনুমতি দিয়েছে রাজ্য”: দিলীপ।    প্রাক্তন কেএলও লিঙ্কম্যানদের তৃণমূলে যোগদান।    কেন চোলাই নিয়ন্ত্রণ করা যাচ্ছে না? মন্ত্রিসভার বৈঠকে ক্ষুব্ধ মমতা।    লোকসভার আগে রাজ্যে ৭ হাজার নতুন শিক্ষক পদে নিয়োগ সরকারের।    “বিজেপির রাজ্য গুজরাট, বিহারে মদ নিষিদ্ধ তবে এই বাংলায় কেন তা হচ্ছে না “: মুকুল।    ভুয়ো কল সেন্টার খুলে বিদেশে কোটি টাকার প্রতারণা, পাকড়াও ৪ যুবক।    “শাসক দলের রক্তক্ষয়ী রাজনীতি”: নদিয়ায় বিজেপির রক্তদান শিবির।    আইনজীবী খুনের ঘটনাতেও উঠে আসছে পরকীয়া তত্ত্ব, আটক স্ত্রী।    রোগীমৃত্যুর জেরে বাঙুর হাসপাতালে ভাঙচুর, মারধর চিকিৎসকদের, আটক ৮।    বাড়ি থেকে সংগ্রহশালা, পরিবর্তন হতে চলেছে রাজ কাপুরের জন্মভিটে।    আজ আপনার কেমন যাবে জেনে নিন।    বিয়ের পর প্রথম দীপিকা প্রসঙ্গে মুখ খুললেল রণবীর।


সেলস্ ম্যান সেজে ফ্ল্যাটে ঢুকে লুট সোনারপুরে

আমাদের ভারত, সোনারপুর, ৭ এপ্রিল: সেলস্ ম্যান সেজে ফ্ল্যাটে ঢুকে টাকা পয়সা ও সোনার গহনা লুটের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়াল দক্ষিণ ২৪ পরগণার সোনারপুর থানার মানিকপুরের সুভাষ ব্লক এলাকায়। শুক্রবার বিকেলে এক যুগল নিজেদের সেলস্ ম্যান পরিচয় দিয়ে ওই ফ্ল্যাটে সুগন্ধি বিক্রি করতে আসে। সেই সময় ফ্ল্যাটে ছিলেন একমাত্র মহিলা মানসী দাসগুপ্ত। তাকে সুগন্ধি দেখানোর নাম করে রাসায়নিক দিয়ে বেহুঁশ করে ফ্ল্যাটে লুটপাট চালায় দুষ্কৃতিরা। তারা লুট করে নিয়ে যায় নগদ টাকা ও সোনার গহনা। তবে তার সঠিক পরিমাণ এখনও জানা যায়নি। খবর পেয়ে শুক্রবার রাতেই সোনারপুর থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তদন্ত শুরু করে। এই ঘটনায় এলাকায় সাধারন মানুষের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।
জানা গেছে, প্রতিদিনের মত মানসী দেবীর ছেলে ও বৌমা অফিসে বেড়িয়ে গেলে এদিন তিনি একাই ছিলেন ফ্ল্যাটে। বিকেল চারটে নাগাদ এক যুবক ও যুবতী নিজেদের সেলস্ ম্যান পরিচয় দিয়ে ওই ফ্ল্যাটে ঢোকে। তারা সুগন্ধি বিক্রি করতে এসেছে বলে তাকে জানায়। এরপর সুগন্ধি পরখ করানোর নাম করে মানসী দেবীর উপর রাসায়নিক প্রয়োগ করলে ঘটনাস্থলেই জ্ঞান হারান বছর পঞ্চাশের ওই মহিলা। সেই সুযোগে ফাঁকা ফ্ল্যাটের সমস্ত জিনিষপত্র তছনছ করে বেশকিছু সোনার গহনা ও নগদ টাকা পয়সা নিয়ে চম্পট দেয় অভিযুক্তরা। যাওয়ার সময় মানসী দেবী ও তার পাশের ফ্ল্যাটটিতে বাইরে থেকে ছিটকিনি লাগিয়ে দিয়ে যায়। পরে আশপাশের ফ্ল্যাটের মানুষজন কিছু একটা হয়েছে বুঝতে পেরে সন্ধ্যে নাগাদ ফ্ল্যাটের দরজা খুলে দেখেন ঘরের মধ্যে অচৈতন্য অবস্থায় পরে আছেন মানসী দেবী। তাকে তড়িঘড়ি উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয় চিকিৎসার জন্য। ঘটনার খবর পেয়ে রাতেই স্থানীয় কাউন্সিলর ও সোনারপুর থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। এ বিষয়ে তদন্ত শুরু করেছে সোনারপুর থানার পুলিশ। তবে এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।   

Leave a Reply

avatar
  Subscribe  
Notify of