বিজ্ঞাপনের জন্য আমাদের সঙ্গে যোগাযোগের মাধ্যম : amaderbharatdesk@gmail.com    পাকিস্তানকে জবাব দিতে আরব সাগরে নামানো হলো আইএনএস বিক্রমাদিত্য ও নিউক্লিয়ার সাবমেরিন।    মুম্বই স্টেশনে ফুটব্রিজ ভেঙে হত ৫, আহত ৩০।    তৃণমূলে বড় ধাক্কা, বিজেপিতে যোগ দিলেন অর্জুন সিং।    বিজেপিই রাজ্যের ভবিষ্যৎ, তাই অনেকেই বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন : দিলীপ ঘোষ।    লড়বেন কী, ঘরেই বিড়ম্বনায় বিজেপির নতুন কৃষ্ণ-অর্জুন।    অর্জুন সিং দু’লক্ষের বেশি ভোটে হারবে দীনেশ ত্রিবেদির কাছে: অভিষেক।    বাংলার মানুষ উন্নয়ন দেখে ৪২ এ ৪২ উপহার দেবে : অপরূপা পোদ্দার।    প্রয়াত বিধায়ককে শ্রদ্ধা জানিয়ে রাজনীতির আঙিনায় সত্যজিত জায়া।     মুকুলের পথ ধরেই কি বিজেপিতে এবার ছেলে শুভ্রাংশু!    সমঝোতা না হলে রাজ্যে একাই লড়বে কংগ্রেস, সাফ জানালেন সোমেন মিত্র।    লোকসভা ভোটে বিপ্লব নয়, বালুরঘাটে অর্পিতার সেনাপতি হচ্ছে বাচ্চু ও শঙ্কর।    জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের বৈঠক এড়ালেন অর্জুন ঘনিষ্ঠ ২২ জন কাউন্সিলার।    আজ আপনার কেমন যাবে জেনে নিন।    বিদেশে বর্ণবিবাদের শিকার হলেন বলিউডের এই অভিনেত্রী!


কৃষ্ণ-বকুলের অমর প্রেম,শোকাহত বাঁকুড়ার তালডাংরা

আমাদের ভারত, বাঁকুড়া, ১০ আগস্ট:
প্রেমের জোয়ারে ভাসতে চেয়েছিল ওরা। ভালোবাসার জোয়ারে ভেসে গেল ঠিকই কিন্তু অনেক দূরে, ওপারে। অন্য কোথাও, অন্য কোনখানে। প্রেম অমর হল কৃষ্ণ-বকুলের।

আজ সকালে প্রেমিক যুগলের ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধারকে কেন্দ্র করে তীব্র চাঞ্চল্য ছড়ালো বাঁকুড়ার তালডাংরার কদমা গ্রাম এলাকায়। মৃত যুগল বছর চব্বিশের কৃষ্ণ লোহার ও বছর ষোলোর বকুল লোহার। দুজনেরই বাড়ি সিমলাপাল থানা এলাকার একটি গ্রামে।

সিমলাপালের জিরাবাইদ-ভুরুডাঙ্গা গ্রামের পেশায় রাজমিস্ত্রী কৃষ্ণ লোহারের সঙ্গে ঐ এলাকারই বাঁশীপুর গ্রামের তরুণী বকুল লোহারের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। অত্মঘাতী বকুল দীর্ঘদিন ধরে মামাবাড়ি জিরাবাইদেই থাকত। এখানে থাকার সময়ই মনে ধরে কৃষ্ণকে। সম্পর্ক ভালোবাসায় রূপ নেয়। কিন্তু হঠাৎই শুক্রবার সকালে কদমা আশ্রম এলাকার একটি গাছে যুগলের ঝুলন্ত মৃতদেহ দেখতে পেয়ে স্থানীয়রাই পুলিশে খবর দেন। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় তালডাংরা থানার পুলিশ।

মৃতা বকুল লোহারের মামা ধনঞ্জয় লোহার বলেন, ‘এক বছর বয়স থেকে ভাগনীকে আমাদের বাড়িতে এনে রেখেছিলাম। দু’জনের মধ্যে যে গভীর প্রেমের সম্পর্ক তৈরী হয়েছে তা বুঝতে পারিনি।’ তিনি বলেন, বৃহস্পতিবার রাত্রে খাওয়া-দাওয়ার পর শুয়ে পড়েছিল বকুল। তারপর কখন যে বাড়ি ছেড়ে বেড়িয়ে পরে তা কেউ জানতেই পারেনি। এই রকম ঘটনা যে ঘটে যেতে পারে তাও আন্দাজ করতে পারেননি তারা। এই ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

খবর পেয়ে তালডাংরা থানার পুলিশ মৃতদেহ দুটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বাঁকুড়া সম্মিলনী মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠিয়েছে। পুলিশের পক্ষ থেকে একটি অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা রুজু করে তদন্ত শুরু হয়েছে বলে জানানো হয়েছে।

Leave a Reply

avatar
  Subscribe  
Notify of