যেকোন খবরের জন্য আমাদের সঙ্গে যোগাযোগের মাধ্যম : amaderbharatnews@gmail.com    ফ্রিতে ৫০ লাখ স্মার্টফোন আর জিও সিম।    ফেসবুকে মুখ্যমন্ত্রীর অশালীন ছবি প্রচার,  গ্রেফতার শালবনীর যুবক।    “তৃণমূল বিরোধী শূন্য পঞ্চায়েত গড়তে চাইছে বলেই এত গণ্ডগোল”, বললেন দিলীপ ঘোষ।    আমডাঙা কাণ্ডে রাজস্থান থেকে গ্রেফতার সিপিএম নেতা জাকির।    এবার ভেঙে খসে পড়তে শুরু করল জ্বলন্ত বাগরি মার্কেট।    বীরভূমে আদিবাসী ছাত্রীর ধর্ষণের ঘটনায় ধর্ষকের দ্রুত বিচার চাইলেন লকেট।    তিন সপ্তাহের মধ্যে এসএসসির সম্পূর্ণ মেধাতালিকা প্রকাশের নির্দেশ হাইকোর্টের।    সারদা মামলায় বিধাননগরের প্রাক্তন গোয়েন্দা কর্তা অর্ণব ঘোষকে তলব সিবিআইয়ের।    বাগরি মার্কেটের সিঁড়ি, বাথরুমও ব্যবসায় লিজ, জার্মানি থেকেও ক্ষোভ মুখ্যমন্ত্রীর।    বালুরঘাটে কাজের দিনেও সরকারি অফিসে মদ-মাংসের আসর, আতঙ্কিত দপ্তরের এক মহিলা কর্মী।    হিলিতে ভোগের খিচুড়ির ভাগাভাগি নিয়ে সিভিক ভলান্টিয়ারকে বেধড়ক মার এনভিএফের।    কুলতলিতে রোগী মৃত্যুকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা, প্রহৃত চিকিৎসক।    আজ আপনার কেমন যাবে জেনে নিন।    দেড়বছর পর জামিন পেলেন উদ্বাস্তু আন্দোলনের নেতা সুবোধ বিশ্বাস।    ডিভোর্স না দেওয়ায় স্ত্রীকে খুনের চেষ্টা চিকিৎসক স্বামীর, গ্রেফতার অভিযুক্ত।    গোর্খাল্যান্ডের দাবিতে পাহাড়ে ফের পোস্টার, সিঁদুরে মেঘ দেখছে পাহাড়বাসী।    দিলীপ ঘোষের উপর হামলার প্রতিবাদে রাজ্যজুড়ে পথ অবরোধ কর্মসূচি বিজেপির।    হোয়াটসঅ্যাপে খুব গুরুত্বপূর্ণ তিনটি পরিবর্তন হতে চলেছে।    এবার ভাঁজ করে রাখতে পারবেন আপনার স্মার্টফোন।
BREAKING NEWS:
  • নিম্নচাপের জেরে দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টি
  • বৃষ্টি চলবে শুক্রবার পর্যন্ত বলে
  • আবহাওয়া দপ্তর সূত্রে জানানো হয়েছে।
{"effect":"slide-h","fontstyle":"normal","autoplay":"true","timer":4000}


উপার্জিত অর্থ থেকে কম্বল ক্রয় করে অসহায় পথবাসীদের তা জড়িয়ে পরিতৃপ্ত হলেন মানবাজারের প্রবীণ প্রাক্তন শিক্ষক

আমাদের ভারত ডেস্ক,পুরুলিয়া,১৬ জানুয়ারি: অবসরের পরেও সমাজ তৈরির কারিগরের ভূমিকা পালন করে চলেছেন মানবাজারের চাঁদড়া গ্রামের অবসর প্রাপ্ত প্রবীণ শিক্ষক অনাদিচরণনায়ক। মানবাজার-১ ব্লকের মুকুন্দ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকতা করতেন। ২০০৪ সালে প্রধান শিক্ষকের দায়িত্বে থেকে অবসর নেন। শিক্ষকতা করার সময় নিজের গ্রাম চাঁদড়া এবং পার্শ্ববর্তী গ্রাম ছোট সাগেন, বড় সাগেন, শ্যামনগর, দাতারডি, পায়রাচালি প্রভৃতি গ্রামের অসহায়, স্কুল ছাত্র-ছাত্রীদের প্রকৃত শিক্ষার আলো দেখাতে নিজের মতো করে পাশে রাখতেন। সেই ধারা অব্যহত রয়েছে। সমাজ সেবায় নিজেকে নিয়জ্জিত করার পাশাপাশি উপার্জনের অর্থ দিয়ে গ্রামের রাস্তা, পুকুরের ঘাট নির্মাণ করেছেন। অসুস্থ, দুস্থ ও অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িছেন নিজের সাধ্যের মধ্যে থেকে। সোমবার গভীর রাত্রে সেই ধারা বজায় রাখলেন তিনি। পুরুলিয়ার পথবাসী এবং অসহায় দুস্থ মানুষের কাছে গিয়ে শীতের হাত থেকে রক্ষা পেতে কম্বল নিজের হাতে জড়িয়ে দেন। পুরুলিয়া জেলা সদর বাস স্ট্যান্ড, হাসপাতাল, স্টেশনে রাত্রে গিয়ে সাধ্যমতো প্রায় ৫০ জন মানুষের গায়ে কম্বল জড়িয়ে দিয়ে তাঁদের কাছ থেকে খুশির বার্তা নিয়ে পরিতৃপ্ত হলেন এই প্রাক্তন শিক্ষক। এর আগে সরকারিভাবে পুরুলিয়ায় কম্বল বিতরণ করা হলেও প্রকৃত প্রাপকদের কাছে পৌঁছায়নি সেই সাহায্য। এদিন সেই আক্ষেপ জানিয়ে প্রবীণ শিক্ষককে ধন্যবাদ দিলেন পথবাসীরা।
তাঁর পরামর্শ এবং বক্তব্য শুনতে নারাজ বর্তমান সমাজের একাংশ। এই নিয়ে বৃদ্ধ শিক্ষকের আক্ষেপ নেই, শুধু ইচ্ছে পূরণ আর স্বপ্ন বাস্তবে করার লক্ষ্যে এগিয়ে চলেছেন মনের জোরকে সম্বল করে। দুই ছেলে প্রতিষ্ঠিত। এই অবস্থায় থেকে নিজের উপার্জিত এবং পেনশন ইচ্ছে পূরণে মশগুল অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক অনাদি।

Leave a Reply

avatar
  Subscribe  
Notify of