যেকোন রকম বিজ্ঞাপনের জন্য আমাদের সঙ্গে যোগাযোগের মাধ্যম : amaderbharatdesk@gmail.com    চলে গেলেন দক্ষিণ ভারতে বিজেপির পদ্ম ফোটানোর অন্যতম কারিগর ও সৈনিক অনন্ত।    হিন্দু শরণার্থীদের নাগরিকত্ব, অবৈধ অনুপ্রবেশকারি বিতাড়নের দাবিতে রাজ্য জুড়ে আন্দোলনের পথে হিন্দু সংহতি।    মদ ও মাংস বিক্রিতে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হল অযোধ্যা জেলায়।    রথযাত্রার অনুমতি নিয়ে পুলিশের বিরুদ্ধে গড়িমসির অভিযোগ, আদালতে যাওয়া হুমকি দিলীপ ঘোষের।    মোদী উদ্বোধন করলেন দেশের প্রথম আন্তঃ রাজ্য জলপথ পন্য পরিবহন পরিষেবা, জলপথে যুক্ত হল উত্তর প্রদেশ -পশ্চিমবঙ্গ।    দাড়িভিট কাণ্ডে জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের রিপোর্ট চায় হাইকোর্ট।    এসআরএফটিআই ক্যাম্পাসে ভিন রাজ্যের ছাত্রীর শ্লীলতাহানির অভিযোগ।    বন্দিদশা থেকে মুক্তি, দেশে ফিরলেন মালয়েশিয়ায় নিপীড়িত কলকাতার সঞ্জয় মল্লিক।    রোগী মৃত্যুকে ঘিরে গাফিলতির অভিযোগে ফের রণক্ষেত্র পিয়ারলেস, ভাঙচুর।    সহবাস করার পরে ভুয়ো ফেসবুক অ্যাকাউন্ট খুলে সেই ছবি পোষ্ট করায় গ্রেফতার যুবক।    রাজ্য সরকারি কর্মীদের জন্য এবার ছট পুজোয় দু’দিন ছুটি ঘোষণা রাজ্য সরকারের।    আইএসএলের ধাঁচে সুন্দরবন মাতল ফুটবল উৎসবে।    আজ আপনার কেমন যাবে জেনে নিন।    গ্যাসের আলো থেকে এলইডি, জগদ্ধাত্রীর শহরে আলোর বিবর্তন।
BREAKING NEWS:
  • পুরীগামী ধৌলি এক্সপ্রেস লাইনচুত্য।
  • পাঁশকুড়ার কাছে লাইনচুত্য হয় ধৌলি।
  • দূর্ঘটনায় কোন হতাহতের খবর নেই।
{"effect":"slide-h","fontstyle":"normal","autoplay":"true","timer":4000}


অগ্নিমিত্রার পোশাকে র‍্যাম্পে অ্যাসিড আক্রান্তরা, সৌজন্যে ‘দ্য কালারফুল মাইন্ড’

আমাদের ভারত, কলকাতা, ১১ সেপ্টেম্বর: রূপ ঝলসে গেলেও মন নষ্ট হয়ে যায় না। তাই অ্যাসিড আক্রান্ত মহিলাদের জন্য আয়োজন করা হল এক ফ্যাশন প্রতিযোগিতা। প্রথমবারের জন্য র‍্যাম্পে হাঁটলেন অ্যাসিড অ্যাটাকে আক্রান্ত মহিলারা। সৌজন্যে ‘দ্য কালারফুল মাইন্ড’।

এই সংস্থার উদ্যোগে আয়োজিত হয়েছিল এক সুন্দরী প্রতিযোগিতা। যার নাম ‘তনয়া-দ্য কুইন অফ কলকাতা’। ৮ সেপ্টেম্বর আয়োজিত হয়েছিল এই ফ্যাশন শো-এর ফাইনাল রাউন্ড। আর সেখানেই র‍্যাম্পে হাঁটলেন অ্যাসিড আক্রান্ত মহিলারা। পাঁচজন অ্যাসিড আক্রান্ত মহিলা এই প্রতিযোগীতায় অংশগ্রহণ করেছিলেন।

এই অনুষ্ঠান প্রসঙ্গে ‘দ্য কালারফুল মাইন্ড’-এর কর্ণধার অনিন্দ্য চ্যাটার্জি জানিয়েছেন, “এটা শুধু মহিলাদের আর সুন্দরী বানানোর অনুষ্ঠান নয়। বরং সমাজের সব বাধা পেরিয়ে সব চ্যালেঞ্জ যেন এই অ্যাসিড আক্রান্ত মহিলা অনায়াসেই পার করতে পারেন সেই জন্যই এই অনুষ্ঠানের আয়োজন। এখানে বিভিন্ন ধাপে গ্রুমও করা হয় প্রতিযোগীদের। তনয়াতে অংশগ্রহণ করা প্রত্যেক মহিলা যেন এক্সপার্টদের গ্রুমিংয়ের সাহায্যে যাতে ভবিষ্যতে নিজেদের একটা পরিচয় বানাতে পারেন সেই চেষ্টাই করা হয়।”

চলতি বছরে এই প্রতিযোগীতা পা দিয়েছে দ্বিতীয় বছরে। অনিন্দ্য চ্যাটার্জি জানিয়েছেন, এই অনুষ্ঠানের মূল উদ্দেশ্যই হল ‘নারীত্ব’ উদ্‌যাপন করা। আর ‘তনয়া’ হলেন এমন একজন মহিলা যাঁর মধ্যে সৌন্দর্য্য এবং বুদ্ধির একটা সুন্দর কম্বিনেশন থাকবে। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন শুভাপ্রসন্ন, অলকানন্দা রায়, অগ্নিমিত্রা পাল, ইমন চক্রবর্তী, রুদ্রনীল ঘোষ এবং বৈশালী ডালমিয়া। আর র‍্যাম্পে ‘তনয়া’-দের সঙ্গে ছিলেন নারী ও শিশু কল্যাণ দফতরের মন্ত্রী মাননীয়া শশী পাঁজা, অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী এবং ফ্যাশন ডিজাইনার অগ্নিমিত্রা পাল। অগ্নিমিত্রার ডিজাইন করা পোশাক পরেই এ দিন র‍্যাম্পে হেঁটেছেন প্রতিযোগীরা।

Leave a Reply

avatar
  Subscribe  
Notify of