বিজ্ঞাপনের জন্য আমাদের সঙ্গে যোগাযোগের মাধ্যম : amaderbharatdesk@gmail.com    “ওদেরকে শাস্তি দেওয়ার সময় এসে গেছে” কংগ্রেসকে তোপ যোগগুরু রামদেব বাবার।    রাত পোহালেই রাজ্যে দ্বিতীয় দফায় নির্বাচন।     দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি ও রায়গঞ্জ লোকসভা কেন্দ্রে হবে ভোটগ্রহণ।    “টাকার থলি নিয়ে রাস্তায় রাস্তায় ঘুরছে আরএসএসের দালালরা” অভিযোগ মমতার।    সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেলে ছয় মাসের মধ্যেই বিধানসভা ভোট করাব বললেন আলুয়ালিয়া।    ঝাঁটা হাতে কেন্দ্রীয় বাহিনীকে এলাকা ছাড়া করার নিদান রাজ্যের মন্ত্রীর।    কান্দিতে অধীর গড়ে দাঁড়িয়ে কংগ্রেস ও বিজেপিকে তোপ মমতার।    নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার জন্য “ইউনিক কালার কোডিং” ব্যবস্থা।    আরও কড়া হল কমিশন, দুবের মাথায় বসল নতুন পর্যবেক্ষক।    অমিত, যোগীর জোড়া ফলায় মমতাকে ঘায়েলের চেষ্টা বিজেপির।    জয়ের প্রচারে আমতায় রাজনাথ সিং।    ঘাটালে একা কুম্ভ ভারতী।    আজ আপনার কেমন যাবে জেনে নিন।    ভোটের দিনগুলোয় কেন্দ্রীয় নেতাদের এনে কিস্তিমাত করতে কৌশল বিজেপির।


অগ্নিমিত্রার পোশাকে র‍্যাম্পে অ্যাসিড আক্রান্তরা, সৌজন্যে ‘দ্য কালারফুল মাইন্ড’

আমাদের ভারত, কলকাতা, ১১ সেপ্টেম্বর: রূপ ঝলসে গেলেও মন নষ্ট হয়ে যায় না। তাই অ্যাসিড আক্রান্ত মহিলাদের জন্য আয়োজন করা হল এক ফ্যাশন প্রতিযোগিতা। প্রথমবারের জন্য র‍্যাম্পে হাঁটলেন অ্যাসিড অ্যাটাকে আক্রান্ত মহিলারা। সৌজন্যে ‘দ্য কালারফুল মাইন্ড’।

এই সংস্থার উদ্যোগে আয়োজিত হয়েছিল এক সুন্দরী প্রতিযোগিতা। যার নাম ‘তনয়া-দ্য কুইন অফ কলকাতা’। ৮ সেপ্টেম্বর আয়োজিত হয়েছিল এই ফ্যাশন শো-এর ফাইনাল রাউন্ড। আর সেখানেই র‍্যাম্পে হাঁটলেন অ্যাসিড আক্রান্ত মহিলারা। পাঁচজন অ্যাসিড আক্রান্ত মহিলা এই প্রতিযোগীতায় অংশগ্রহণ করেছিলেন।

এই অনুষ্ঠান প্রসঙ্গে ‘দ্য কালারফুল মাইন্ড’-এর কর্ণধার অনিন্দ্য চ্যাটার্জি জানিয়েছেন, “এটা শুধু মহিলাদের আর সুন্দরী বানানোর অনুষ্ঠান নয়। বরং সমাজের সব বাধা পেরিয়ে সব চ্যালেঞ্জ যেন এই অ্যাসিড আক্রান্ত মহিলা অনায়াসেই পার করতে পারেন সেই জন্যই এই অনুষ্ঠানের আয়োজন। এখানে বিভিন্ন ধাপে গ্রুমও করা হয় প্রতিযোগীদের। তনয়াতে অংশগ্রহণ করা প্রত্যেক মহিলা যেন এক্সপার্টদের গ্রুমিংয়ের সাহায্যে যাতে ভবিষ্যতে নিজেদের একটা পরিচয় বানাতে পারেন সেই চেষ্টাই করা হয়।”

চলতি বছরে এই প্রতিযোগীতা পা দিয়েছে দ্বিতীয় বছরে। অনিন্দ্য চ্যাটার্জি জানিয়েছেন, এই অনুষ্ঠানের মূল উদ্দেশ্যই হল ‘নারীত্ব’ উদ্‌যাপন করা। আর ‘তনয়া’ হলেন এমন একজন মহিলা যাঁর মধ্যে সৌন্দর্য্য এবং বুদ্ধির একটা সুন্দর কম্বিনেশন থাকবে। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন শুভাপ্রসন্ন, অলকানন্দা রায়, অগ্নিমিত্রা পাল, ইমন চক্রবর্তী, রুদ্রনীল ঘোষ এবং বৈশালী ডালমিয়া। আর র‍্যাম্পে ‘তনয়া’-দের সঙ্গে ছিলেন নারী ও শিশু কল্যাণ দফতরের মন্ত্রী মাননীয়া শশী পাঁজা, অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী এবং ফ্যাশন ডিজাইনার অগ্নিমিত্রা পাল। অগ্নিমিত্রার ডিজাইন করা পোশাক পরেই এ দিন র‍্যাম্পে হেঁটেছেন প্রতিযোগীরা।

Leave a Reply

avatar
  Subscribe  
Notify of