যেকোন রকম বিজ্ঞাপনের জন্য আমাদের সঙ্গে যোগাযোগের মাধ্যম : amaderbharatdesk@gmail.com    ৩ হাজারের বেশি অ্যান্টি ট্যাংক মিসাইল কিনতে পারে ভারত ফ্রান্স থেকে।     কংগ্রেসের ইস্তেহারে রামমন্দির যুক্ত হলে আমরা তাদের সমর্থনের কথা ভাবতে পারি : ভিএইচপি।    বিজেপির বিরুদ্ধে কংগ্রেসের প্রার্থী হতে পারেন করিনা কাপুর।    মমতা নয় রাহুলকেই নেতা দেখতে চান তারা, ব্রিগেডের পরেই জানালেন তেজস্বী, স্টালিনরা।     একসময় কাগজ কুড়াতেন আজ চণ্ডীগড়ের মেয়র এই বিজেপি নেতা।    ব্রিগেডে খরচের উসুল তুলতে ব্যর্থ তৃণমূল, সোশ্যাল মিডিয়ায় মোদিকে হারিয়েই সন্তুষ্ট।    মালদায় অমিত শাহ-যোগীর সভা সফল করার জন্য বিজেপির তিন প্ল্যান।    ব্রিগেডের সভার বদলে আসানসোলে সভা করবে প্রধানমন্ত্রী, জানালেন দিলীপ ঘোষ।    জম্মু-কাশ্মীরে একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাবে বিজেপি , দাবি রাম মাধবের।    জয়নগরে অমিত শাহের সভার আগেই রাস্তাঘাট তৃণমূলের দখলে।    লোকসভা নির্বাচনকে মাথায় রেখে সফরে জিটিএর প্রতি মুক্তহস্ত মমতা।    ডুয়ার্সে চিতাবাঘের চামড়া সহ আটক পাঁচ চোরাচালানকারী।    আজ আপনার কেমন যাবে জেনে নিন।    বিজেপি নেতার মাতৃবিয়োগে সমবেদনা জানাতে দুর্গাপুরে রাজ্যপাল।


সমাধি থেকে তুলে মৃতের মাথা কাটার অভিযোগ

আমাদের ভারত, সিউড়ি, ১২ জানুয়ারি:  বীরভূমের পাঁড়ুই থানার বল্লভপুর গ্রামে সমাধি থেকে এক মহিলার মৃতদেহের মাথা কাটার ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়াল । পরিবারের দাবি তন্ত্রসাধনার জন্যই দুষ্কৃতীরা সমাধি থেকে মৃতদেহ তুলে মাথা কেটে নেওয়া হয়েছে। তবে কাটা মাথা কিছুটা দূরে ফেলে পালিয়ে যায় দুষ্কৃতীরা।
জানা গিয়েছে, পাঁড়ুই থানার রাধাকৃষ্ণপুর গ্রামের বাসিন্দা অশ্বিনী সর্দার (৭৫) মারা যান বুধবার রাতে। পরদিন সকালে ওই আদিবাসী বৃদ্ধার মৃতদেহ গ্রাম সংলগ্ন বল্লভপুর গ্রামের কাছে কোপাই নদীর ধারে নির্দিষ্ট স্থানে সমাধি দেন ছেলেমেয়েরা। এদিন ওই মহিলার মৃত্যুতে ক্ষৌরকর্ম ছিল পরিবারের। সেই জন্য বাজার থেকে সমস্ত জিনিসপত্র কিনে বাড়ি ফিরে যাতে পারেন অশ্বিনীদেবীর কাটা মাথা একটি ব্রিজের নিজে পড়ে রয়েছে। শুক্রবার সকালে এলাকার মানুষ ব্রিজের নিচে মহিলার কাঁটা মাথা পড়ে থাকতে দেখেন। পাশেই রয়েছে লোহার ধারালো অস্ত্র।

ছেলে অসুর সর্দার বলেন, “মা দীর্ঘদিন থেকে অসুস্থ ছিলেন। আমরা সাত ভাই বোন মায়ের দেখাশোনা করতাম। দিন সাতেক থেকে খাওয়াদাওয়া বন্ধ করে দিয়েছিলেন। বুধবার রাতে মায়ের মৃত্যু হয়। আমরা দিনমজুর করে সংসার চালায়। ফলে কাছেই সমাধি দিয়ে চলে আসি। এদিন সকালে বাজার থেকে ফেরার পথে পুলিশ এবং গ্রামের বাসিন্দাদের কাছ থেকে মায়ের কাট মাথা পড়ে থাকার খবর পায়। আমার মনে হচ্ছে কেউ তন্ত্রসাধনার জন্য মৃতদেহ সমাধি থেকে তুলে মাথা কেটে নেয়। কিন্তু কোন কারণে তারা মাথা নিয়ে যেতে পারেনি”। তবে এনিয়ে মুখ খুলতে চায়নি পুলিশ”।

Leave a Reply

avatar
  Subscribe  
Notify of