বিশ্বকাপে ফুটবল মাঠে বরাবর‌ই স্বপ্রতিভ ছিলেন ক্রোট প্রসিডেন্ট।    ফরাসীদের বিশ্বকাপ জয়, আনন্দে মাতল চন্দননগর।    বিশ্বকাপের মহারণে মাঠে সাক্ষী থাকলেন মহারাজ।    সমুদ্রে মাছ ধরতে গিয়ে নিখোঁজ তিনটি ট্রলার সহ ১৯ মৎস্যজীবী।    মা মাটি মানুষের সরকার সিন্ডিকেটের ইচ্ছাতেই চলছে : মোদী।    কৃষকদের উন্নতির জন্য বিজেপির অাগে কেউ এত ভাবেনি : মোদী।    মেটিয়াবুরুজে দুর্ঘটনায় মৃত বাবা-মেয়ে, প্রতিবাদে ১০টি গাড়িতে ভাঙচুর ক্ষুব্ধ জনতার।    তৃণমূলের জুলুম থেকে আর কয়েক মাসের মধ্যেই মিলবে মুক্তি : মোদী।     হাতজোড় করে স্বাগত জানালেন মমতা! ধন্যবাদ জানালেন মোদী।    মোদীর সভায় চাঁদোয়া ভেঙ্গে অাহত ৩০।    পুলিশের বাধায় প্রধানমন্ত্রীর সভায় যেতে পারলেন না অনেকে, খড়্গপুরে বিজেপি কর্মীদের হাতে আক্রান্ত পুলিশ।    বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে কিশোরীকে ধর্ষণ, গ্রেপ্তার সিভিক ভলান্টিয়ার।    বজবজে ভাইস চেয়ারম্যান অনুগামীদের বিরুদ্ধে বিজেপি কর্মীদের মারধর,বাড়ি ভাঙ্গচুরের অভিযোগ।    আপনার দিনটি কেমন যাবে জেনে নিন আমাদের দৈনিক রাশিফল থেকে।    চিৎপুরের যাত্রাপাড়ায় বিশেষ গিমিক টেলিভিশন সিরিয়ালের জুটি।    মস্তিষ্কের পুষ্টিতে সুপ অপরিহার্য, বলছেন খাদ্য বিশেষজ্ঞরা।
BREAKING NEWS:
  • ২০১৮ বিশ্বকাপ ফুটবলে জয়ী ফ্রান্স।
  • ফাইনালে ফ্রান্স-৪ ক্রোয়েশিয়া-২
  • তৃতীয় স্থানের খেলায় বেলজিয়াম জয়ী
{"effect":"slide-h","fontstyle":"normal","autoplay":"true","timer":4000}


“কলকাতায় সভা হলে লোক কম হত, তাই মেদিনীপুর কলেজ মাঠকেই বেছে নিয়েছেন নরেন্দ্র মোদী”: মানস ভুঁইয়া

অামাদের ভারত, কুমারেশ রায়, পশ্চিম মেদিনীপুর, ১১ জুলাই : আগামী ১৬ জুলাই মেদিনীপুরের কলেজ মাঠে সভা করতে আসছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। মোদীর সভার জন্য মেদিনীপুরকে বেছে নেওয়ার প্রসঙ্গ তুলে বিজেপিকে একহাত নিলেন তৃণমূলের রাজ্যসভার সাংসদ মানস ভুঁইয়া।

একুশে জুলাই এর প্রস্তুতি মিটিং এ এদিন পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার বিভিন্ন ব্লকে যুব তৃণমূলের ডাকা প্রস্তুতি সভাতে হাজির হন তিনি। সাথে ছিলেন জেলা সভাপতি অজিত মাইতি, শ্যাম পাত্র, কৌশিক কুলভি, শৈবাল গিরি, সুদীপ মন্ডল, জেলা যুব সভাপতি রমা গিরি প্রমুখ। প্রথম সভাটি হয় ক্ষীরপাই টাউন হলে, দ্বিতীয় সভাটি হয় ঘাটাল টাউন হলে, তৃতীয় সভা হয় দাসপুরের মিলন মঞ্চে। বক্তব্য রাখতে গিয়ে মানস ভুইয়া বলেন, কলকাতায় একুশে জুলাই এর আগে প্রধানমন্ত্রীর সভা হলে একুশে জুলাই এর মত লোক না করতে পারলে অসম্মানিত হতে হতো। তাই চালাকি করে কলকাতার বদলে তুলনামূলকভাবে অনেক ছোট মাঠ মেদিনীপুর কলেজ মাঠ কে বেছে নেওয়া হয়েছে মোদীর সভার জন্য। পাশাপাশি মোদী আসার উদ্দেশ্য হিসেবে বেছে নেওয়া কেন্দ্রের কৃষি দপ্তর কে একহাত নিয়ে তিনি বলে, সারা দেশে প্রতিবছর হাজার হাজার কৃষক আত্মহত্যা করছে, প্রধানমন্ত্রী কৃষকদের কথা বলছেন আর সারা দেশে প্রতি বছর হাজার হাজার কৃষক আত্নহত্যা করছেন। পাশাপাশি এরাজ্যে কৃষকদের ভালো অবস্থার পরিসংখ্যান তুলে ধরেন তিনি এবং বলেন মমতা ব্যানার্জির সরকার কৃষকদের পাশে অাছেন।

তিনি অারও জানান, অন্যান্য বারের মতো ২১ শে জুলাই এর সভায় ব্যাপক জনসমাগম হবে বলে দাবি করেন। শুধু তাই নয়, ঘাটাল মাস্টার প্ল্যান কেনো হয়নি সে প্রশ্ন তুলে মোদীর সভার দিন হাজার হাজাত ফ্লেক্স লাগানোরও বার্তা দেন তিনি। অন্যদিকে এদিন যুব সভাপতি রমা গিরি জানান, সমস্ত রাস্তাতে মুখ্যমন্ত্রীর ছবি লাগিয়ে দিতে হবে। জেলা সভাপতি অজিত মাইতি বলেন, মেদিনীপুরে মোদী সভা করার জন্য ১৬ জুলাই অাসছেন। ছোট মাঠে লোক অানার কথা ভাবছেন বাইরের জেলা ও রাজ্য থেকে। কিন্তু এরপরই মুখ্যমন্ত্রীর সভা হবে ওই মাঠেই বিপুল সংখ্যক মানুষ এই জেলা থেকেই ভরিয়ে দেবে ভাড়া করতে হবে না জনগনকে। মেদিনীপুর শহর জুড়ে মমতা ব্যানার্জির ছবি, ব্যানার, পোস্টার, কার্ট অাউটে ছেয়ে দেব। যাতে ওরা বুঝতে পারে মেদিনীপুর তৃণমূলের শক্ত ঘাঁটি।

loading...

Leave a Reply

Be the First to Comment!

avatar
  Subscribe  
Notify of