যেকোন খবরের জন্য আমাদের সঙ্গে যোগাযোগের মাধ্যম : amaderbharatnews@gmail.com    ফ্রিতে ৫০ লাখ স্মার্টফোন আর জিও সিম।    ফেসবুকে মুখ্যমন্ত্রীর অশালীন ছবি প্রচার,  গ্রেফতার শালবনীর যুবক।    “তৃণমূল বিরোধী শূন্য পঞ্চায়েত গড়তে চাইছে বলেই এত গণ্ডগোল”, বললেন দিলীপ ঘোষ।    আমডাঙা কাণ্ডে রাজস্থান থেকে গ্রেফতার সিপিএম নেতা জাকির।    এবার ভেঙে খসে পড়তে শুরু করল জ্বলন্ত বাগরি মার্কেট।    বীরভূমে আদিবাসী ছাত্রীর ধর্ষণের ঘটনায় ধর্ষকের দ্রুত বিচার চাইলেন লকেট।    তিন সপ্তাহের মধ্যে এসএসসির সম্পূর্ণ মেধাতালিকা প্রকাশের নির্দেশ হাইকোর্টের।    সারদা মামলায় বিধাননগরের প্রাক্তন গোয়েন্দা কর্তা অর্ণব ঘোষকে তলব সিবিআইয়ের।    বাগরি মার্কেটের সিঁড়ি, বাথরুমও ব্যবসায় লিজ, জার্মানি থেকেও ক্ষোভ মুখ্যমন্ত্রীর।    বালুরঘাটে কাজের দিনেও সরকারি অফিসে মদ-মাংসের আসর, আতঙ্কিত দপ্তরের এক মহিলা কর্মী।    হিলিতে ভোগের খিচুড়ির ভাগাভাগি নিয়ে সিভিক ভলান্টিয়ারকে বেধড়ক মার এনভিএফের।    কুলতলিতে রোগী মৃত্যুকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা, প্রহৃত চিকিৎসক।    আজ আপনার কেমন যাবে জেনে নিন।    দেড়বছর পর জামিন পেলেন উদ্বাস্তু আন্দোলনের নেতা সুবোধ বিশ্বাস।    ডিভোর্স না দেওয়ায় স্ত্রীকে খুনের চেষ্টা চিকিৎসক স্বামীর, গ্রেফতার অভিযুক্ত।    গোর্খাল্যান্ডের দাবিতে পাহাড়ে ফের পোস্টার, সিঁদুরে মেঘ দেখছে পাহাড়বাসী।    দিলীপ ঘোষের উপর হামলার প্রতিবাদে রাজ্যজুড়ে পথ অবরোধ কর্মসূচি বিজেপির।    হোয়াটসঅ্যাপে খুব গুরুত্বপূর্ণ তিনটি পরিবর্তন হতে চলেছে।    এবার ভাঁজ করে রাখতে পারবেন আপনার স্মার্টফোন।
BREAKING NEWS:
  • বিজেপি রাজ্যসভাপতি দিলীপ ঘোষ
  • আক্রান্ত। গাড়ি ভাঙচুর।
  • কর্মী সহ বিজেপি ছাড়লেন লক্ষ্মণ শেঠ
  • কলকাতার বাগরি মার্কেটে আগুন
  • দীর্ঘ সময় পরও জ্বলছে আগুন
  • দমকলের ৩০টি ইঞ্জিন আগুন নেভাচ্ছে
{"effect":"slide-h","fontstyle":"normal","autoplay":"true","timer":4000}


“কলকাতায় সভা হলে লোক কম হত, তাই মেদিনীপুর কলেজ মাঠকেই বেছে নিয়েছেন নরেন্দ্র মোদী”: মানস ভুঁইয়া

অামাদের ভারত, কুমারেশ রায়, পশ্চিম মেদিনীপুর, ১১ জুলাই : আগামী ১৬ জুলাই মেদিনীপুরের কলেজ মাঠে সভা করতে আসছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। মোদীর সভার জন্য মেদিনীপুরকে বেছে নেওয়ার প্রসঙ্গ তুলে বিজেপিকে একহাত নিলেন তৃণমূলের রাজ্যসভার সাংসদ মানস ভুঁইয়া।

একুশে জুলাই এর প্রস্তুতি মিটিং এ এদিন পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার বিভিন্ন ব্লকে যুব তৃণমূলের ডাকা প্রস্তুতি সভাতে হাজির হন তিনি। সাথে ছিলেন জেলা সভাপতি অজিত মাইতি, শ্যাম পাত্র, কৌশিক কুলভি, শৈবাল গিরি, সুদীপ মন্ডল, জেলা যুব সভাপতি রমা গিরি প্রমুখ। প্রথম সভাটি হয় ক্ষীরপাই টাউন হলে, দ্বিতীয় সভাটি হয় ঘাটাল টাউন হলে, তৃতীয় সভা হয় দাসপুরের মিলন মঞ্চে। বক্তব্য রাখতে গিয়ে মানস ভুইয়া বলেন, কলকাতায় একুশে জুলাই এর আগে প্রধানমন্ত্রীর সভা হলে একুশে জুলাই এর মত লোক না করতে পারলে অসম্মানিত হতে হতো। তাই চালাকি করে কলকাতার বদলে তুলনামূলকভাবে অনেক ছোট মাঠ মেদিনীপুর কলেজ মাঠ কে বেছে নেওয়া হয়েছে মোদীর সভার জন্য। পাশাপাশি মোদী আসার উদ্দেশ্য হিসেবে বেছে নেওয়া কেন্দ্রের কৃষি দপ্তর কে একহাত নিয়ে তিনি বলে, সারা দেশে প্রতিবছর হাজার হাজার কৃষক আত্মহত্যা করছে, প্রধানমন্ত্রী কৃষকদের কথা বলছেন আর সারা দেশে প্রতি বছর হাজার হাজার কৃষক আত্নহত্যা করছেন। পাশাপাশি এরাজ্যে কৃষকদের ভালো অবস্থার পরিসংখ্যান তুলে ধরেন তিনি এবং বলেন মমতা ব্যানার্জির সরকার কৃষকদের পাশে অাছেন।

তিনি অারও জানান, অন্যান্য বারের মতো ২১ শে জুলাই এর সভায় ব্যাপক জনসমাগম হবে বলে দাবি করেন। শুধু তাই নয়, ঘাটাল মাস্টার প্ল্যান কেনো হয়নি সে প্রশ্ন তুলে মোদীর সভার দিন হাজার হাজাত ফ্লেক্স লাগানোরও বার্তা দেন তিনি। অন্যদিকে এদিন যুব সভাপতি রমা গিরি জানান, সমস্ত রাস্তাতে মুখ্যমন্ত্রীর ছবি লাগিয়ে দিতে হবে। জেলা সভাপতি অজিত মাইতি বলেন, মেদিনীপুরে মোদী সভা করার জন্য ১৬ জুলাই অাসছেন। ছোট মাঠে লোক অানার কথা ভাবছেন বাইরের জেলা ও রাজ্য থেকে। কিন্তু এরপরই মুখ্যমন্ত্রীর সভা হবে ওই মাঠেই বিপুল সংখ্যক মানুষ এই জেলা থেকেই ভরিয়ে দেবে ভাড়া করতে হবে না জনগনকে। মেদিনীপুর শহর জুড়ে মমতা ব্যানার্জির ছবি, ব্যানার, পোস্টার, কার্ট অাউটে ছেয়ে দেব। যাতে ওরা বুঝতে পারে মেদিনীপুর তৃণমূলের শক্ত ঘাঁটি।

Leave a Reply

avatar
  Subscribe  
Notify of