ব্যক্তিগত উদ্যোগে সাধারণ মানুষকে খাদ্য সামগ্রী দিলেন মতুয়াভক্ত ডা. সন্দীপ কীর্তনীয়া

আমাদের ভারত, ব্যারাকপুর, ৮ এপ্রিল: সম্পূর্ণ ব্যক্তিগত উদ্যোগে সঙ্কটে পড়া দিনমজুর, দরিদ্র সীমার নিচে বসবাসকারী মানুষ এবং সাধারণ মানুষের মধ্যে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করলেন মতুয়াভক্ত ডা.সন্দীপ কীর্তনীয়া। আজ তিনি ব্যারাকপুর দু’নম্বর ব্লকে একশ কুড়িটি পরিবারের হাতে এই খাদ্য সামগ্রী তুলে দেন।

সর্বভারতীয় মতুয়া মহাসংঘের সংঘাধিপতি সাংসদ শান্তনু ঠাকুর লকডাউনের ফলে অসহায় মানুষদের সাহায্য করার আবেদন জানিয়েছিলেন। তিনি বলেছিলেন, এই লকডাউন সাধারণ মানুষ, দিনমজুর, দরিদ্র সীমার নিচে বসবাসকারীরা করুন অবস্থার মধ্যে রয়েছেন, খাদ্য সংকট দেখা দিয়েছে। এই অবস্থায় মতুয়া ভক্তদের উচিৎ তাঁদের সামর্থ্য অনুযায়ী সাহায্য করা। সেই ডাকে সাড়া দিয়ে ডা. সন্দীপ কীর্তনীয়া সাধারণ মানুষকে সাহায্য করতে এগিয়ে আসেন। আজ সকালেই হিন্দু নেতা মৃত্যুঞ্জয় পাল এবং আশুতোষ কীর্তনীয়া সহ কয়েকজনকে নিয়ে বেরিয়ে পড়েন এবং ব্যারাকপুর ব্লক ২–র যুগবেড়িয়া, তালবান্দা উত্তর দক্ষিণ, হেমনগর এবং শহরপুর এলাকায় সাধারণ মানুষের মধ্যে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন। তিনি ১১০টি পরিবারের হাতে খাদ্যসামগ্রী তুলে দেন। প্রতিটি পরিবারকে ৫ কেজি চাল, ২ কেজি আলু, ৫০০ গ্রাম ডাল এবং ১ কেজি নুন দেন।

ডা.কীর্তনীয়া বলেন, করোনা মহামারির আকার নিয়েছে। লকডাউন এর ফলে বহু মানুষ করুণ অবস্থায় রয়েছেন। তাই আমাদের সঙ্ঘাধিপতি সাংসদ শান্তনু ঠাকুর এর আহবানে আমি সাধারন মানুষকে সাহায্য করার জন্য এগিয়ে এসেছি। শুধু তিনি নন এই পরিবারের আরএক সদস্য অশোক কীর্তনীয়া তিনিও সাধারণ মানুষকে সাহায্য করার জন্য ব্যক্তিগতভাবে এগিয়ে এসেছেন। অশোকবাবু মতুয়া মহাসঙ্ঘের সাধারণ সম্পাদক। তিনিও ইতিমধ্যে বনগাঁ এলাকায় প্রায় ১৫০০ পরিবারের হাতে খাদ্য সামগ্রী তুলে দিয়েছেন।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here