কুমারগঞ্জে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বিশ্রামাগারে ঢুকল যাত্রী বোঝাই বাস, দেওয়াল চাপা পড়ে মৃত্যু মহিলার, আহত ১৫

আমাদের ভারত, বালুরঘাট, ৩০ ডিসেম্বর: নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে যাত্রী বোঝাই বাস ঢুকলো বিশ্রামাগারে। দেওয়াল চাপা পড়ে মৃত্যু মহিলা বাসযাত্রীর। আহত আরও ১৫। সোমবার দুপুরে কুমারগঞ্জের সুন্দরতলা এলাকার ঘটনা।

পুলিশ জানিয়েছে, মৃত ওই মহিলার নাম রুবিনা খাতুন (২৫)। কুমারগঞ্জের আঙিনার কানুরা এলাকার বাসিন্দা সে। ঘটনার পরেই এলাকায় ছুটে যায় কুমারগঞ্জ থানার বিরাট পুলিশ বাহিনী। আহতদের উদ্ধারের পাশাপাশি দুর্ঘটনাগ্রস্থ বাসটিকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে। পলাতক বাস চালক।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রের খবর, এদিন দুপুরে কুমারগঞ্জের মোল্লাদিঘি থেকে বালুরঘাটের দিকে আসছিল একটি যাত্রী বোঝাই বাস। পথে সুন্দরতলা এলাকায় আচমকা নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে থাকা একটি যাত্রী প্রতিক্ষালয়ে সজোরে ধাক্কা মারলে দুর্ঘটনা ঘটে। ঘটনায় বাসের সামনের অংশ দুমড়ে মুচড়ে গিয়ে যাত্রী প্রতীক্ষালয়ের ভেতরে ঢুকে যায় বাসটি। কাঁচ ভেঙ্গে বাইরে বেড়িয়ে আসে বাসের এক মহিলা যাত্রী। যার উপর ভেঙ্গে পড়ে যাত্রী প্রতিক্ষালয়ের ইটের দেওয়াল। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় ওই মহিলার। গাড়ির ভেতরে থাকা অন্যান্য যাত্রীরাও গুরুতর আহত হন।যাদের প্রত্যেককেই স্থানীয় লোকজন ও পুলিশের তৎপরতায় কুমারগঞ্জ ব্লক হাসপাতাল এবং বালুরঘাট জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান বেপরোয়া বাসের গতির কারণেই এমন দুর্ঘটনা।

মৃত মহিলার আত্মীয় মামনি খাতুন জানিয়েছেন, দুপুর নাগাদ বালুরঘাটের দিকে আসার সময় দুর্ঘটনা ঘটে।যাত্রী প্রতীক্ষালয়ের ভেতরে ঢুকে যায় বাসটি। ঘটনার পর রুবিনাকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোষণা করেছে।

কুমারগঞ্জ থানার ওসি সঞ্জয় মুখার্জি জানিয়েছেন, পথ দুর্ঘটনায় এক মহিলার মৃত্যু হয়েছে। ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো বেশ কয়েকজন যাত্রী। দুর্ঘটনাগ্রস্থ গাড়িটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here