মাস্ক না পড়লে জরিমানা ১ লক্ষ টাকা আর লকডাউনের বিধি ভাঙলে ২ বছর জেল

আমাদের ভারত, ২৩ জুলাই: করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় এবার কঠোর পদক্ষেপ নিল ঝাড়খন্ড সরকার। মানুষকে সতর্ক করতে শেষ পর্যন্ত কড়া শাস্তির বিধান দিয়েছে সোরেন সরকার। ঝাড়খন্ডে মাস্ক না পড়লে ১ লাখ টাকা জরিমানা এবং লকডাউন না মানলে দুই বছরের জেল হবে বলে ঘোষণা করেছে রাজ্য সরকার।

সংক্রামক রোগ অধ্যাদেশ ২০২০ পাশ করেছে ঝাড়খন্ড সরকার ইতিমধ্যেই। এই অধ্যাদেশের বলে এবার থেকে লকডাউনের বেশ কিছু নতুন নিয়ম সেখানে চালু হবে। যেভাবে প্রতিদিন করোনা ভাইরাসের আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে চলেছে তাতে উদ্বিগ্ন রাজ্য প্রশাসন। তাই কোন উপায় না দেখে এই পদক্ষেপ নিতে বাধ্য হয়েছে তারা।

ঝাড়খণ্ডের স্বাস্থ্যমন্ত্রী বন্না গুপ্তা জানিয়েছেন অধ্যাদেশ এখনো পর্যন্ত সম্পূর্ণরূপে বলবৎ করা হয়নি। কাউকে জরিমানা করা হলে এবং তার উপর চলা মামলায় সে যদি দোষী প্রমাণিত হয় তবে তাকে ১ লাখ টাকা জরিমানা দিতে হবে। স্পোট চেকিং-র সময় মাস্ক পড়া না থাকলে তখনই তাকে ১ লাখ টাকা দিতে হবে তা নয়। তবে দোষী প্রমাণিত হলে তবেই এই টাকা জরিমানা দিতে হবে। তিনি জানান তাদের সরকার করোনার বিরুদ্ধে যুদ্ধ চালিয়ে যাচ্ছে। তাই লকডাউনের নিয়মকে কঠোরভাবে পালনের জন্য একাধিক ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে ঝারখন্ড সরকার। নিয়ম ভাঙলে এবং দোষী প্রমাণিত হলে দু’বছর পর্যন্ত জেল হতে পারে।

এখনো পর্যন্ত ঝাড়খন্ডে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৬৪৮৫। এরমধ্যে সক্রিয় রয়েছে ৩৩৯৭। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৩০২৪ জন। করোনায় মৃতের সংখ্যা ৬৪ সেখানে। এদিকে দেশে বেনজির রেকর্ড গড়েছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। একদিনে প্রায় ৪৬ হাজার মানুষ একদিনে আক্রান্ত হয়েছে করোনায়। এর ফলে দেশে করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১২ লাখ পেরিয়ে গেছে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here