ফের সংক্রমণের নতুন রেকর্ড! রাজ্যে ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত ১৩৪৪, মৃত্যু ২৬, সুস্থ ৬১১

রাজেন রায়, কলকাতা, ১১ জুলাই: ফের রাজ্যে সংক্রমণে নয়া রেকর্ড! রাজ্যে ২৪ ঘন্টায় নতুন সংক্রমণের হদিশ মিলেছে ১৩৪৪ জনের। এদিনও রাজ্যে মৃত্যু হয়েছে ২৬ জনের, যার মধ্যে ১৬ জন কলকাতারই। সুস্থ হয়েছেন ৬১১ জন।

২৪ ঘন্টায় ১৩৪৪ জন করোনা পজিটিভে রাজ্যে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ২৮৪৫৩ জনে। আরও ২৬ জনের মৃত্যু হওয়ায় রাজ্যে সরকারি হিসেবে মোট করোনায় মৃত্যু ৯০৬ জনের। এদিকে আরও ৬১১ জন সুস্থের হিসেব ধরলে মোট সুস্থ হলেন ১৭৯৫৯ জন। এর মধ্যে কলকাতাতেই সংক্রমণ রেকর্ড ৪১২ জনের, রেকর্ড মৃত্যু হয়েছে ১৬ জনের। মৃত ৯০৬ জনের মধ্যে ৪৮৬ জন কলকাতারই। ৩২৭ জন সংক্রমণে বিপজ্জনক পরিস্থিতিতে উত্তর ২৪ পরগনারও।

এদিন অন্যান্য জেলার সঙ্গে কলকাতাতে এদিনও ১৮৩ জন, উত্তর ২৪ পরগনায় ১৪১ জন, হাওড়ায় ৫৪ জন এবং দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ৪৯ জন সুস্থ হয়েছেন। কিন্তু বিপুল সংক্রমণের জেরে সুস্থতার হার কমে দাঁড়িয়েছে ৬৩.১১ শতাংশে। এই মুহূর্তে রাজ্যে করোনা আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন ৯৫৮৮ জন। তার মধ্যে এদিন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রোগীর সংখ্যা বেড়েছে ৭০৭ জন।

বুলেটিনে আরও জানানো হয়েছে, এদিন পর্যন্ত রাজ্যের ৫৪টি ল্যাবে মোট করোনা টেস্টের সংখ্যা ৬০৫৩৭০ জনের। তার মধ্যে ২৪ ঘন্টায় রাজ্যে করোনা পরীক্ষা হয়েছে ১১৪০৩ জনের। রাজ্যের ৮০টি করোনা হাসপাতাল, ২৬টি সরকারি এবং ৫৪টি বেসরকারি হাসপাতালে মোট ১০৮৩০টি বেড আছে, আইসিইউ পরিষেবা রয়েছে ৯৪৮ জনের। ভেন্টিলেটর রয়েছে
৩৯৫টি। তার ২৬.৪৫ শতাংশ রোগী ভর্তি আছেন।

সরকারি ৫৮২টি কোয়ারেন্টাইনে এখন রয়েছেন ৪৮০৫ জন। ছেড়ে দেওয়া হয়েছে ১০০৬৩৪ জনকে। হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন ৩২৪৬০ জন। ছেড়ে দেওয়া হয়েছে ৩১৯৬০৭ জনকে। শ্রমিক স্পেশাল ট্রেন ফেরত পরিযায়ী শ্রমিকদের তথ্যে জানানো হয়েছে, ১৬৪১টি কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে ৮৯৩৩ জন শ্রমিককে কোয়ারেন্টাইন করে রাখা হয়েছে। করোনা পরীক্ষা করে সুস্থ দেখে ২৬৫৮৯৫ জন শ্রমিককে কোয়ারেন্টাইন সেন্টার থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। রাজ্যে সেফ হোম ও তার বেড সংখ্যা এবং সেখানে রোগীদের সংখ্যা উল্লেখ করে বলা হয়েছে, রাজ্যের ১০৬টি সেফ হোমে ৬৯০৮টি বেড রয়েছে এবং তাতে ২৩৯ জন রোগী রয়েছেন।

এছাড়া এদিনের বুলেটিনে জেলাওয়াড়ি তথ্যে জানানো হয়েছে, কলকাতায় এদিন রেকর্ড ৪১২ আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ায় মোট সংক্রমণ ৯১৫৪ জনের। এদিন কলকাতায় আরও ১৬ জনের মৃত্যু হওয়ায় কলকাতাতে মোট মৃত্যু ৪৮৬ জনের। এছাড়া এদিন উত্তর ২৪ পরগনাতেও রেকর্ড ৩২৭ জন সংক্রামিতের সংখ্যা বাড়ায় মোট আক্রান্ত সংখ্যা ৫২৭২ জন। এখানেও এদিন আরও ৫ জনের মৃত্যু হওয়ায় মোট মৃত্যু ১৬১ জন। এছাড়া হাওড়ায় ৪ জন, দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ১ জন করোনা রোগীর মৃত্যু হয়েছে। এদিন অন্যান্য জেলার সঙ্গে হাওড়ায় ১৩০ জন, দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ১৪৯ জন, হুগলিতে ৫৬ জন, জলপাইগুড়িতে ৪৬ জনের উল্লেখযোগ্য হারে সংক্রমণ বৃদ্ধি পেয়েছে। এদিনও উত্তরবঙ্গের কালিম্পং এবং দক্ষিণবঙ্গের পুরুলিয়া ও ঝাড়গ্রাম ছাড়া এদিন সংক্রমণ বেড়েছে রাজ্যের বাকি সমস্ত জেলাতেই।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here