বাঙালি হেনস্থা! ২৭ জনকে সাসপেন্ডের প্রতিবাদে ধর্নায় ১৫০ প্যান্টালুন্স কর্মী, পাশে বাংলাপক্ষ

5

সৌভিক বন্দ্যোপাধ্যায়, কলকাতা, ৩০ জানুয়ারি: খোদ নিজের রাজশাহী অপমান এবং হেনস্থার শিকার হতে হচ্ছে বাঙালিকে। বহুজাতিক সংস্থার মালিক অবাঙালি হওয়ায় দোকানে আসা গ্রাহকদেরও নমস্কারের বদলে বলতে হবে নমস্তে। আর তার প্রতিবাদ করেই ৬ দিনে সাসপেন্ড হলেন ২৭ জন কর্মী। ক্যামাক স্ট্রিটের প্যান্টালুন্সে এই ঘটনার প্রতিবাদে ধরনায় বসেছেন ওই সংস্থার কর্মীরা তাদের আন্দোলনের প্রতিবাদকে সমর্থন জানিয়েছে বাংলা পক্ষ।

অভিযোগ, হিন্দি না বলে বাংলায় কথা বললেই সাসপেন্ড হতে হচ্ছে। যদি ভিন রাজ্য হতো তাহলে সমস্যা ছিল না। কিন্তু ক্রেতারা বাংলায় কথা বললেও তাদের সাথে বাংলা কথা বলা যাবে না, এ কেমন ফরমান! বাঙালি হলেও হেনস্থার শিকার হতে হচ্ছে বলে কর্মীদের অভিযোগ। এমনকি হিন্দিতে ‘নমস্তে’ না বলে বাংলায় ‘নমস্কার’ বললে অপদস্থ করা হচ্ছে। কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে উঠেছে শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগও। শুধু তাই নয়, প্রজাতন্ত্র দিবসের দিন বাংলায় দেশাত্মবোধক গান চালাতে বলা হলেও কর্মচারী সাসপেন্ড করার অভিযোগ উঠেছে মালিক পক্ষের বিরুদ্ধে।

আন্দোলন চালানোর জন্য কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে হুমকির অভিযোগ দেওয়া হচ্ছে বলেও কর্মীদের দাবি। প্রায় ১৫০ কর্মী শপিংমলের ভেতরেই লাগাতার ধর্নায় রয়েছেন। মহিলা কর্মীরা কোলের সন্তানকে নিয়েই অবস্থান করছেন।আন্দোলনকে সমর্থন জানিয়েছে বাঙালি জাতীয়তাবাদী সংগঠন বাংলাপক্ষ। বুধবার বিকেল ৫ টা থেকে বাংলাপক্ষ নেতৃত্ব-কর্মী-সমর্থকরা ক্যামাক স্ট্রিটের প্যান্টালুন্সে জড়ো হয়েছে। কর্তৃপক্ষের কাছে কর্মীদের পুনরায় নিয়োগের দাবি জানাবে ওই সংগঠন। একইসঙ্গে এই রাজ্যে ব্যবসা করলে এভাবে বাঙ্গালীদের হেনস্থা বরদাস্ত করা হবে না, সেটাও বোঝানোর চেষ্টা করা হবে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here