গাছের সুপারি পাড়াকে কেন্দ্র করে পারিবারিক সংঘর্ষ, গুরুতর আহত দুই

আমাদের ভারত, দক্ষিণ ২৪ পরগণা, ১১ অক্টোবর:
বাগানের সুপারি পাড়তে বাধা দেওয়াকে কেন্দ্র করে দুই ভাইয়ের সংঘর্ষে ছড়াল উত্তেজনা। অভিযোগ, এক ভাই অপর ভাই ও তার স্ত্রীকে ধারাল অস্ত্র দিয়ে আঘাত করেছে। গুরুতর আহত অবস্থায় দু’জনকে বারুইপুর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে স্ত্রীর অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাঁলকে কলকাতার একটি হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়েছে। বারুইপুর থানার কল্যাণপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের ধামনগরে ঘটেছে এই ঘটনা।

দীর্ঘ কুড়ি বছর ধরে কল্যাণপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের বাসিন্দা আফজালের সঙ্গে আনোয়ার হোসেনের নয় বিঘার জমির দখল নিয়ে মামলা চলছে। আর সেই জমি বিবাদকে কেন্দ্র করে প্রায়ই দুই ভাইয়ের মধ্যে ঝগড়া এবং অশান্তি লেগেই থাকত। এদিন তা চরম আকার নেয়। বিবাদমান জমিতে সুপারি পাড়তে আসেন আনোয়ার হোসেন। সঙ্গে তার কিছু লোকজন ছিল। কিন্তু তাদের বাধা দেন আফজাল ও তার স্ত্রী আয়েশা বেগম। অভিযোগ, এরপরই ওই দু’জনের উপর চড়াও হন আনোয়ার হোসেন ও তার লোকজন। ধারালো অস্ত্র দিয়ে দু’জনকেই এলোপাতাড়ি আঘাত করতে থাকেন তাঁরা।

জানা গিয়েছে, আয়েশা বেগমের কোমরে হাতে ও মাথায় গুরুতর আঘাত লেগেছে। আফজালের হাত ভেঙ্গে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। এই ঘটনার পর থেকেই ওই এলাকায় যথেষ্ট উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। রক্তাক্ত অবস্থায় স্বামী স্ত্রীকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান স্থানীয় বাসিন্দারা। ততক্ষণে ঘটনাস্থল থেকে চম্পট দেন আনোয়ার। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে পুলিশ। অভিযুক্তের খোঁজে তল্লাশি শুরু হয়েছে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here