লক ডাউনের নিয়ম ভাঙলে ও ভুল তথ্য ছড়ালে ২ বছর জেল ও জরিমানা হবে, কড়া নির্দেশ কেন্দ্রের

আমাদের ভারত, ৩ এপ্রিল :দু-বছর পর্যন্ত জেল হতে পারে যদি লকডাউনের নিয়ম ভাঙেন অথবা ফেক নিউজ বা ভুল তথ্য ছড়ান। দেশ ছাড়াও হতে পারে আর্থিক জরিমানা। এই শাস্তি যথাযথভাবে যাতে দেশের প্রতিটি রাজ্যে কার্যকর হয় সেই বিষয়ে সব রাজ্যের প্রশাসনকে সক্রিয় ভূমিকা গ্রহণ করে তার নির্দেশিকা পাঠিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

বৃহস্পতিবার সমস্ত রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের পক্ষ থেকে লক ডাউন সংক্রান্ত একটি নির্দেশিকা পাঠানো হয়েছে। নির্দেশিকায় বলা হয়েছে যারা এই সময় লকডাউন এর আইন ভাঙবেন এবং ভুল তথ্য ছড়াবেন তাদের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির বিপর্যয় মোকাবিলা আইন ২০০৫-এর ভিত্তিতে প্রশাসনিক পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। সব রাজ্যের মুখ্য সচিবকে লেখা চিঠিতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফে লক ডাউন কি এবং তা কিভাবে মোতায়েন করা দরকার তার নির্দেশিকা দেওয়া হয়েছে।

গত ২৫ মার্চ থেকে সারাদেশে লকডাউন চলছে। চিঠিতে বলা হয়েছে, যারা এই সরকার ঘোষিত লকডাউনে বিরোধিতা করছেন তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেবে সরকার। লকডাউন ভাঙলে কিংবা ভূয়ো খবর ছড়ালে দু বছর পর্যন্ত জেল হতে পারে, সঙ্গে হতে পারে আর্থিক জরিমানাও। একই সঙ্গে এই শাস্তি যাতে যথাযথভাবে কার্যকর হয় সে বিষয়ে সভ রাজ্য প্রশাসনকে সক্রিয় ভূমিকা গ্রহণ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে চিঠিতে।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের মুখ্য সচিব লিখেছেন, যারা লকডাউনের আইনের বিরোধিতা করবেন তাদের বিরুদ্ধে ২০০৫- এর বিপর্যয় মোকাবিলা আইনের ৫১ ও ৬০ নম্বর ধারায় এবং ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৮৮ নম্বর ধারায় আইনি প্রক্রিয়া শুরু করতে পারবে যেকোনো প্রশাসন। চিঠিতে আরও বলা হয়েছে, সাধারণ মানুষকে জানাতে এই দুটি আইন নিয়ে ব্যাপকভাবে প্রচার চালাতে হবে। একইসঙ্গে পুলিশের কাছেও এ বিষয়ে তথ্য পৌঁছে দিতে হবে। লক ডাউনের সময় সুশাসন বজায় রাখতে পুলিশ বা অন্যান্য প্রশাসনিক কাজে কেউ যদি বাধা সৃষ্টি করে তাকেও দু বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড দেওয়া হতে পারে। একইসঙ্গে ত্রাণ সাহায্যের অর্থ যদি কেউ নয়ছয় করে তাদেরও দু বছরের জেল ও আর্থিক জরিমানা করা হতে পারে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here