ফের সর্বোচ্চ সংক্রমণ- মৃত্যু! রাজ্যে ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত ২৫৮৯, মৃত ৪৮, সুস্থ ২১৪৩

রাজেন রায়, কলকাতা, ১ আগস্ট: ফের সর্বোচ্চ মৃত্যু ও সংক্রমণের রেকর্ড তৈরি হল রাজ্যে। তবে এদিনও ফের বাড়ল সুস্থতার হার। শনিবারের প্রকাশিত বুলেটিন অনুযায়ী, ফের ২৪ ঘন্টায় ২৫৮৯ জন নতুন আক্রান্তে রাজ্যে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৭২৭৭৭ জন। এদিন রেকর্ড সংখ্যক ৪৮ জনের মৃত্যু হওয়ায় রাজ্যে সরকারি হিসেবে মোট করোনায় মৃত্যু ১৬২৯ জনের। ২৪ ঘন্টায় আরও ২১৪৩ জন সুস্থের হিসেব ধরলে মোট সুস্থ হলেন ৫০৫১৭ জন। ফলে বিপুল সংক্রমণেও রেকর্ড সুস্থতার হার বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬৯.৪১ শতাংশে।

এদিন অন্যান্য জেলার সঙ্গে কলকাতাতে ৫৮৩ জন, উত্তর ২৪ পরগনায় ৫৬৮ জন, হাওড়ায় ১৭৫ জন, দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ১৬৯ জন, হুগলিতে ১০২ জন, পূর্ব মেদিনীপুরে ৯৫ জন সুস্থ হয়েছেন। এই মুহূর্তে রাজ্যে করোনা আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন ২০৬৩১ জন। এদিন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রোগীর সংখ্যা বেড়েছে মাত্র ৩৯৮ জনের।

বুলেটিনে আরও জানানো হয়েছে, এদিন পর্যন্ত রাজ্যের ৫৭টি ল্যাবে মোট করোনা টেস্টের সংখ্যা ৯১৩৪৬৫ জনের। তার মধ্যে ২৪ ঘন্টায় রাজ্যে করোনা পরীক্ষা হয়েছে রেকর্ড সংখ্যক ২০০৬৫ জনের। রাজ্যের ৮৩টি করোনা হাসপাতাল, ২৮টি সরকারি এবং ৫৫টি বেসরকারি হাসপাতালে মোট ১১২৯৯টি বেড আছে, আইসিইউ পরিষেবা রয়েছে ৯৪৮ জনের। ভেন্টিলেটর রয়েছে ৩৯৫টি। তার ৩৯.০৫ শতাংশ রোগী ভর্তি আছেন।

সরকারি ৫৮২টি কোয়ারেন্টাইনে এখন রয়েছেন ৩১৬৯ জন। ছেড়ে দেওয়া হয়েছে ১০৫২৭০ জনকে। হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন ৩১২২৯ জন। ছেড়ে দেওয়া হয়েছে ৩৭৯১৮১ জনকে। রাজ্যের ১০৬টি সেফ হোমে ৬৯০৮টি বেড রয়েছে এবং তাতে ১৬১০ জন রোগী রয়েছেন।

এছাড়া এদিনের বুলেটিনে জেলাওয়াড়ি তথ্যে জানানো হয়েছে, যার মধ্যে কলকাতায় সংক্রমণ ৭১৪ জন, উত্তর ২৪ পরগনায় সংক্রমণ ৬০৮ জন। এদিন রাজ্যে মৃত্যু হয়েছে ৪৮ জনের, যার মধ্যে ১৯ জন কলকাতার, ১৩ জন উত্তর ২৪ পরগনার, ৬ জন হাওড়ার। এছাড়া উত্তর দিনাজপুর, পূর্ব মেদিনীপুর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ২ জন করে এবং জলপাইগুড়ি মুর্শিদাবাদ নদিয়া ও হুগলিতে ১ জন করে ১০ জন রোগীর মৃত্যু হয়েছে।

কলকাতায় এদিন ৭১৪ আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ায় মোট সংক্রমণ ২২৩৫৩ জনের। এদিন কলকাতায় আরও ১৯ জনের মৃত্যু হওয়ায় কলকাতাতে মোট মৃত্যু ৭৭৯ জনের। এছাড়া এদিন উত্তর ২৪ পরগনাতেও ৬০৮ জন সংক্রামিতের সংখ্যা বাড়ায় মোট আক্রান্ত সংখ্যা ১৫৭৩৯ জন। এখানেও এদিন আরও ১৩ জনের মৃত্যু হওয়ায় মোট মৃত্যু ৩৫৪ জন। এদিন অন্যান্য জেলার সঙ্গে হাওড়ায় ২৬২ জন, দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ১৫৬ জন, মালদায় ১১২ জন, পূর্ব বর্ধমানে ১০৫ জন, হুগলিতে ৯৭ জনের উল্লেখযোগ্য হারে সংক্রমণ বৃদ্ধি পেয়েছে। এদিন সংক্রমণ বেড়েছে রাজ্যের সব জেলাতেই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here