ফের সর্বোচ্চ সংক্রমণ- মৃত্যু! রাজ্যে ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত ২৭৩৯, মৃত্যু ৪৯, সুস্থ ২২১৩

রাজেন রায়, কলকাতা, ২ আগস্ট: করোনা টেস্ট বাড়ায় রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়লেও এবার রাজ্যে উর্ধ্বগামী মৃত্যু চিন্তায় রেখেছে রাজ্য প্রশাসনকে। বিশেষ করে কলকাতা, উত্তর ২৪ পরগনা ও হাওড়া। যদিও প্রত্যেকদিনই সামান্য সুস্থতার হার বাড়ছে। সেই কারণেই ফের সর্বোচ্চ মৃত্যু ও সংক্রমণের রেকর্ড তৈরি হল রাজ্যে।

রবিবারের প্রকাশিত বুলেটিন অনুযায়ী, ফের ২৪ ঘন্টায় ২৭৩৯ জন নতুন আক্রান্তে রাজ্যে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৭৫৫১৬ জন। এদিন রেকর্ড সংখ্যক ৪৯ জনের মৃত্যু হওয়ায় রাজ্যে সরকারি হিসেবে মোট করোনায় মৃত্যু ১৬৭৮ জনের। ২৪ ঘন্টায় আরও ২২১৩ জন সুস্থের হিসেব ধরলে মোট সুস্থ হলেন ৫২৭৩০ জন। ফলে বিপুল সংক্রমণেও রেকর্ড সুস্থতার হার বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬৯.৮৩ শতাংশে।

এদিন অন্যান্য জেলার সঙ্গে কলকাতাতে ৫৭৭ জন, উত্তর ২৪ পরগনায় ৫১৭ জন, হাওড়ায় ২৪২ জন, দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ১৫০ জন, হুগলিতে ১৪৭ জন, দার্জিলিংয়ে ১১৮ জন সুস্থ হয়েছেন। এই মুহূর্তে রাজ্যে করোনা আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন ২১১০৮ জন। এদিন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রোগীর সংখ্যা বেড়েছে মাত্র ৪৭৭ জনের।

বুলেটিনে আরও জানানো হয়েছে, এদিন পর্যন্ত রাজ্যের ৫৭টি ল্যাবে মোট করোনা টেস্টের সংখ্যা ৯৩৪৫৩৭ জনের। তার মধ্যে ২৪ ঘন্টায় রাজ্যে করোনা পরীক্ষা হয়েছে রেকর্ড সংখ্যক ২১০৭২ জনের। রাজ্যের ৮৩টি করোনা হাসপাতাল, ২৮টি সরকারি এবং ৫৫টি বেসরকারি হাসপাতালে মোট ১১৫৫২টি বেড আছে, আইসিইউ পরিষেবা রয়েছে ৯৪৮ জনের। ভেন্টিলেটর রয়েছে ৩৯৫টি। তার ৩৭.৮৮ শতাংশ রোগী ভর্তি আছেন।

সরকারি ৫৮২টি কোয়ারেন্টাইনে এখন রয়েছেন ৩১৭৮ জন। ছেড়ে দেওয়া হয়েছে ১০৫৫৯২ জনকে। হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন ৩৩৪৭৯ জন। ছেড়ে দেওয়া হয়েছে ৩৮৩৪৫৮ জনকে। রাজ্যের ১০৬টি সেফ হোমে ৬৯০৮টি বেড রয়েছে এবং তাতে ১৫৬৫ জন রোগী রয়েছেন।

এছাড়া এদিনের বুলেটিনে জেলাওয়াড়ি তথ্যে জানানো হয়েছে, যার মধ্যে কলকাতায় সংক্রমণ ৭০৯ জন, উত্তর ২৪ পরগনায় সংক্রমণ ৫৮৬ জন। এদিন রাজ্যে মৃত্যু হয়েছে ৪৯ জনের, যার মধ্যে ২০ জন কলকাতার, ১৪ জন উত্তর ২৪ পরগনার, ৭ জন হাওড়ার। এছাড়া মালদা, পশ্চিম বর্ধমান ও দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ২ জন করে এবং দার্জিলিং ও পশ্চিম মেদিনীপুরে
১ জন করে ৮ জন রোগীর মৃত্যু হয়েছে।

কলকাতায় এদিন ৭০৯ আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ায় মোট সংক্রমণ ২৩০৬২ জনের। এদিন কলকাতায় আরও ২০ জনের মৃত্যু হওয়ায় কলকাতাতে মোট মৃত্যু ৭৯৯ জনের। এছাড়া এদিন উত্তর ২৪ পরগনাতেও ৫৮৬ জন সংক্রামিতের সংখ্যা বাড়ায় মোট আক্রান্ত সংখ্যা ১৬৩২৫ জন। এখানেও এদিন আরও ১৪ জনের মৃত্যু হওয়ায় মোট মৃত্যু ৩৬৮ জন। এদিন অন্যান্য জেলার সঙ্গে হাওড়ায় ২৪৫ জন, দার্জিলিংয়ে ১৫০ জন, দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ১৪৭ জন, কোচবিহারে ১৪৪ জন, দক্ষিণ দিনাজপুরে ১০২ জন, মালদায় ৯৯ জনের উল্লেখযোগ্য হারে সংক্রমণ বৃদ্ধি পেয়েছে। এদিনও সংক্রমণ বেড়েছে রাজ্যের সব জেলাতেই।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here