গোবরডাঙ্গায় পণ চেয়ে গৃহবধূকে খুনের অভিযোগ, গ্রেফতার ৩

আমাদের ভারত, উত্তর ২৪ পরগণা, ১৫ অক্টোবর: পণের জন্য বধূকে গলায় ফাঁস লাগিয়ে খুন করার অভিযোগ উঠল স্বামী সহ পরিবারে লোকজনদের বিরুদ্ধে। ঘটনার অভিযোগ পেয়ে গোবরডাঙ্গার পুলিশ মৃতের স্বামী সহ তিন জনকে গ্রেফতার করে। মৃতের নাম তাজমিরা বিবি (৩০)। ঘটনাটি উত্তর ২৪ পরগনার গোবরডাঙ্গা থানার বেরগুম এলাকার।

মৃতের পরিবার সূত্রের খবর, বছর পাঁচেক আগে বেরগুমের বাসিন্দা রাজু মণ্ডলের সঙ্গে কাতিয়ার্বাগ চম্পাপুকুরের বাসিন্দা তাজমিরা মণ্ডলের বিয়ে হয়। তাদের দুই ছেলে। বিয়ের পর থেকে পণের জন্য চাপ দিত তাজমিরাকে। এই নিয়ে বেশ কয়েক বার সালিশি সভাও হয় গ্রামে। দিন ১০ আগে অশান্তি চরমে ওঠে। রাগ করে ওই বধূ ছোট ছেলেকে সঙ্গে নিয়ে বাপের বাড়ি চলে যায়।

মৃতার বাবা মাহাতাব আবেদীন মন্ডল বলেন, বড় ছেলে ওর শ্বশুরবাড়িতেই ছিল। তাজমিরা জানিয়ে ছিলেন যে স্বামী রাজু মন্ডল ওকে মারধর করে এবং বাড়ি থেকে টাকা নিয়ে আসার জন্য চাপ দিত। সোমবার লোনের টাকা তোলার নাম করে রাজু বাইকে করে তাজমিরাকে নিয়ে যায়। এরপর মঙ্গলবার গভীর রাতে আনুমানিক তিনটে নাগাদ তাজমিরা বিবির বাবাকে ফোন করে মৃত্যু খবর জানায়। মাহাতাব অভিযোগ, বাপের বাড়ি থেকে টাকা নিয়ে আসার জন্য চাপ দিত রাজু ও তার পরিবার। আমরা মেয়েকে টাকার জন্য খুন করেছে। আমি নিতান্ত দিনমজুর, অত টাকা কোথা থেকে পাব। আমরা চাই দোষীদের চরম শাস্তির দাবি করেন বধূর পরিবার।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here