দঃ দিনাজপুরের জাহাঙ্গিপুরে সিপিএম, তৃণমূল ছেড়ে ৩০টি পরিবার যোগ দিল বিজেপিতে

শ্রীরূপা চক্রবর্তী, আমাদের ভারত, ১২ জুন :
আবারও দক্ষিণ দিনাজপুরের তৃণমূল ও সিপিএম ছেড়ে ৩০টি পরিবার যোগ দিল বিজেপিতে। জেলার জাহাঙ্গিপুর এলাকার মাহুর কিসমতপুরে শুক্রবার বিজেপির সাংসদ সুকান্ত মজুমদারের উপস্থিতিতে তাঁরা যোগ দেন পদ্মশিবিরে। একই সঙ্গে সেখানকার ২২ জন‌ পরিযায়ী শ্রমিকদের হাতে ত্রাণ সাহায্য তুলে দেন বিজেপি সাংসদ।

দিন পাঁচেক আগেই তৃণমূলের বুথ সভাপতি সহ ৪০টি পরিবার দক্ষিণ দিনাজপুরের তপনে বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন। শুক্রবার ফের ওই জেলার জাহাঙ্গিপুরে ৩০টি পরিবার তৃণমূল সিপিএম ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিল।

২১-এর নির্বাচনের প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছে বিজেপি। ইতিমধ্যেই যেমন ভার্চুয়াল জনসভা করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। তেমনি শুরু হয়েছে তৃণমূল স্তরের সংগঠনকে মজবুত করাও। তার মধ্যেই রাজ্যের বিভিন্ন এলাকায় দেখা যাচ্ছে তৃণমূল, সিপিএম ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন বহু রাজনৈতিক কর্মীরা। সেই ধারা অব্যাহত রেখে রবিবারে পর আজ ফের দক্ষিণ দিনাজপুরের মেহুর কিসমতপুরে সিপিএম, তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিল ৩০টি পরিবার। এদের মধ্যে যেমন বেশ কয়েকটি সংখ্যালঘু পরিবার রয়েছে তেমনি রয়েছে তৃণমূল কংগ্রেসের পঞ্চায়েত সদস্য ও কর্মীরা।

বিজেপি সাংসদ সুকান্ত মজুমদার বলেন, “রাজ্য জুড়ে নরেন্দ্র মোদীর কাজে অনুপ্রাণিত হয়ে ও রাজ্যের তৃণমূল সরকারের দুর্নীতিতে বিতশ্রদ্ধ হয়ে দলে দলে বিজেপিতে যোগদান করছে।” সাংসদ আরও বলেন, মোদীর উন্নয়নের কাজ মানুষ দেখছে। মোদী মানুষকে দেওয়া কথা রেখেছেন। মানুষের অ্যাকাউন্টে টাকা ঢুকেছে, মহিলারা বিনামূল্যে গ্যাস পেয়েছেন, রেশন পেয়েছেন। এই অভিজ্ঞতা থেকেই মানুষ বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন।”

এছাড়াও,ওই এলাকায় কেরলা ফেরত ২২ জন পরিযায়ী শ্রমিকের হাতে ত্রিপল ও শুকনো খাবার তুলে দেন বালুরঘাটের বিজেপি সাংসদ। ওই পরিযায়ী শ্রমিকদের অভিযোগ, এই বর্ষায় তাঁরা কোনো রকমে তাঁবু খাটিয়ে রয়েছেন। তাদের খাবারের কোনো ব্যবস্থা নেই। রাজ্য প্রশাসন তাদের বিষয়ে উদাসীন।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here