কমল সুস্থতা! রাজ্যে ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত আরও ৩২২৭, মৃত ৫৯, সুস্থ ২৯১৯

রাজেন রায়, কলকাতা, ১৫ সেপ্টেম্বর: অনেকদিন পরে বিপুল হারে সংক্রমণ বৃদ্ধি ঘটলেও অনেকটাই কমল সুস্থতার সংখ্যা। হাসপাতালেও রোগীর সংখ্যা বাড়ল বিপুল পরিমাণে। মঙ্গলবারের বুলেটিন অনুযায়ী, ফের রাজ্যে ২৪ ঘন্টায় নতুন সংক্রমণের হদিশ ৩২২৭ জনের, মৃত্যু ৫৯ জনের এবং সুস্থ হয়েছেন ২৯১৯ জন। তবে সুস্থতার হার খুব সামান্য বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৮৬.৬১ শতাংশ। উল্লেখ্য, গতকালের তুলনায় ২৭ জনের সংক্রমণ ও ১ জনের মৃত্যু বাড়লেও সুস্থতা কমেছে ১৬৫ জনের।

২৪ ঘন্টায় ৩২২৭ জন নতুন আক্রান্তে রাজ্যে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ২০৯১৪৬ জন। এদিন আরও ৫৯ জনের মৃত্যু হওয়ায় রাজ্যে সরকারি হিসেবে মোট করোনায় মৃত্যু ৪০৬২ জনের। ২৪ ঘন্টায় আরও ২৯১৯ জন সুস্থের হিসেব ধরলে মোট সুস্থ হলেন ১৮১১৪২ জন।

এদিনও অন্যান্য জেলার সঙ্গে উত্তর ২৪ পরগনাতে ৫১০ জন, কলকাতায় ৩৮৩ জন, পূর্ব মেদিনীপুরে ২৭৩ জন, হুগলিতে ১৭৯ জন, পশ্চিম মেদিনীপুরে ১৬৭ জন, পশ্চিম বর্ধমানে ১৪৮ জন, দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ১৪২ জন, হাওড়ায় ১৩৭ জন, জলপাইগুড়িতে ১০২ জন সুস্থ হয়েছেন। এই মুহূর্তে রাজ্যে করোনা আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন ২৩৯৪২ জন। এ দিন হাসপাতালে রোগীর সংখ্যা বেড়ে গিয়েছে ২৪৯ জন। করোনা পরিস্থিতি পরিবর্তনের পর এটিই সর্বোচ্চ রোগী বৃদ্ধি বলে দাাবি চিকিৎসকদের।

বুলেটিনে আরও জানানো হয়েছে, এদিন পর্যন্ত রাজ্যের ৭৬টি ল্যাবে মোট করোনা টেস্ট করা হল ২৫৬২৮২১ জনের। যার মধ্যে ২৪ ঘন্টায় রাজ্যে করোনা পরীক্ষা হয়েছে রেকর্ড সংখ্যক ৪৫২২৬ জনের। রাজ্যের ৯২টি কোভিড ডেডিকেটেড হাসপাতাল, ৩৭টি সরকারি এবং ৫৫টি বেসরকারি হাসপাতালে মোট ১২৬৭৫টি বেড আছে, আইসিইউ পরিষেবা রয়েছে ১২৪৩ জনের। ভেন্টিলেটর রয়েছে ৭৯০টি। তার মধ্যে মাত্র ৩২.৮৭ শতাংশ রোগী ভর্তি আছেন।

সরকারি ৫৮২টি কোয়ারেন্টাইনে এখন রয়েছেন ২৫০৯ জন। ছেড়ে দেওয়া হয়েছে ১০৭৫১৫ জনকে। হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন ৭২৬৯৫ জন। ছেড়ে দেওয়া হয়েছে ৫৪১৬২৮ জনকে। রাজ্যের ২০০টি সেফ হোমে ১১৫০৭টি বেড রয়েছে এবং তাতে ১৬৯৭ জন রোগী রয়েছেন।

এছাড়া এদিনের মৃত্যু হিসেবে বুলেটিনে জেলাওয়াড়ি তথ্যে জানানো হয়েছে, এদিন রাজ্যে মৃত্যু হয়েছে ৫৯ জনের। এ দিন কলকাতায় মৃত্যু ১১ জনের, উত্তর পরগনায় মৃত্যু ১৫ জনের, হাওড়ায় মৃত্যু ৬ জনের। এছাড়া আলিপুরদুয়ারে ৪ জন, পূর্ব মেদিনীপুর, পূর্ব বর্ধমান ও দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ৩ জন করে, কোচবিহার, জলপাইগুড়ি, পুরুলিয়া, বাঁকুড়া ও পশ্চিম মেদিনীপুরে ২ জন করে আর দার্জিলিং, মালদা, মুর্শিদাবাদ ও হুগলিতে ১ জন করে মোট আরও ২৭ জন করোনা রোগীর মৃত্যু হয়েছে।

এছাড়া এদিন অন্যান্য জেলার সঙ্গে উত্তর ২৪ পরগনায় ৫১৬ জন, কলকাতায় ৪৮৭ জন, পশ্চিম মেদিনীপুরে ২৪২ জন, দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ২০২ জন, হুগলিতে ১৯৮ জন, পূর্ব মেদিনীপুরে ১৩৭ জন, হাওড়ায় ১৩৪ জন, নদিয়ায় ১২৪ জন, দার্জিলিংয়ে ১১৯ জন, পুরুলিয়ায় ১১৪ জন, পশ্চিম বর্ধমানে ১০৮ জন, মুর্শিদাবাদে ১০২ জনের উল্লেখযোগ্য হারে সংক্রমণ বৃদ্ধি পেয়েছে। এদিনও সংক্রমণ বেড়েছে রাজ্যের সব জেলাতেই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here