বান্দোয়ানে স্কুল বাস উল্টে আহত ৩৪ পড়ুয়া

সাথী দাস, পুরুলিয়া, ২৩ নভেম্বর: স্কুল বাস উল্টে আহত হল ৩৪ জন ছাত্র ছাত্রী। আজ ঘটনাটি ঘটে বান্দোয়ানের দুয়ারসিনি রাস্তায় কড়পা গ্রামে। আহতদের মধ্যে এগারো জনের আঘাত বেশ গুরুতর। উন্নত চিকিৎসার জন্য টাটা মেন হসপিটালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে তাদের।

বুধবার বান্দোয়ান থেকে কুচিয়াগামী রাস্তার উপর নিয়ন্ত্রন হারিয়ে উল্টে যায় একটি বেসরকারি স্কুল বাস। তাতে প্রায় ৪৫ জন স্কুল পড়ুয়া ছিল। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, বান্দোয়ান ব্লকের বিভিন্ন গ্রাম থেকে ৪৫ জন স্কুল পড়ুয়াকে নিয়ে স্থানীয় ভালোপাহাড়ের বেসরকারি বিদ্যালয়ে যাচ্ছিল ওই স্কুল বাসটি। হঠাৎ কড়পা গ্রাম সংলগ্ন রাস্তায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ওই স্কুল বাসটি উল্টে যায়। ঘটনায় বাসের ভেতরে আটকে পড়ে ছাত্র-ছাত্রীরা। স্থানীয়রাই শুরু করেন উদ্ধার কাজ। অল্প সময়ের মধ্যেই পৌঁছে যায় বান্দোয়ান থানার পুলিশ। আহতদের উদ্ধার করে প্রথমে বান্দোয়ান ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানে চিকিৎসকরা গুরুতরভাবে জখম ১১জনকে তড়িঘড়ি স্থানান্তরিত করেন অন্যত্র। আহত ছাত্র-ছাত্রীদের পার্শ্ববর্তী রাজ্য ঝাড়খণ্ডের জামশেদপুরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে চিকিৎসার জন্য।

এ প্রসঙ্গে বান্দোয়ান হাসপাতালের চিকিৎসক ধনেশ্বর মাণ্ডী বলেন, এগারো জন পড়ুয়ার আঘাত গুরুতর। তাদের মধ্যে একজনের মাথা জখম রয়েছে। বাকিদের অনেকেরই হাতের এবং পায়ের আঙ্গুলে রয়েছে মারাত্মক আঘাত। বেশ কয়েকজন পড়ুয়ার আঙ্গুল নষ্টও হয়েছে। কি ভাবে দুর্ঘটনাটি ঘটেছে তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। প্রাথমিক তদন্তে পাওয়া গেছে নিয়ন্ত্রণ হারানোর কারণে ব্রেক ফেল হতে পারে। গাড়ির চালকও আঘাত পাওয়ায় আপাতত তার চিকিৎসা চলছে। সুস্থ হবার পর তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

এই মর্মে স্থানীয় থানায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে। বান্দোয়ানের বিধায়ক রাজিব লোচন সোরেন বলেন, বাসটি কিভাবে দুর্ঘটনায় পড়ল তার তদন্ত হওয়া প্রয়োজন। স্কুলের বাসের গতি বেশি ছিল কিনা তাও দেখা দরকার। এই প্রসঙ্গে অবশ্য ওই বেসরকারি বিদ্যালয়ের তরফে কেউ কোনো মন্তব্য করতে চাননি।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here