বুধবারের লকডাউনের মাঝেই পশ্চিম মেদিনীপুরে করোনায় আক্রান্ত ৪২ জন

জে মাহাতো, আমাদের ভারত, মেদিনীপুর, ৬ আগস্ট:
করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে এই অনিয়মিত লকডাউনের উদ্দেশ্য ও সাফল্য নিয়ে বিশেষজ্ঞ মহলে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। ২৯ জুলাইয়ের পর গতকাল বুধবার রাজ্যে সম্পূর্ণ লকডাউন হয়েছে। এরপর তা হবে ৮ আগস্ট এবং ২০ আগস্ট। এই অনিয়মিত লকডাউনে সংক্রমণের রাশ কতটা টানা যাচ্ছে তা নিয়ে বিশেষজ্ঞ মহলে ইতিমধ্যেই গুঞ্জন শুরু হয়েছে। বিভিন্ন ধর্মীয় অনুষ্ঠান ইত্যাদি লকডাউনে বাধা সৃষ্টি করায় তার উদ্দেশ্যই মাঠে মারা যাচ্ছে বলে বিশেষজ্ঞ মহলের অভিমত।

বুধবারের লকডাউনের মাঝখানে সারা রাজ্যের মত আক্রান্তের সংখ্যা লাফিয়ে বেড়েছে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলাতেও। গত চব্বিশ ঘন্টায় জেলায় নতুন করে ৪২ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। আক্রান্তরা চন্দ্রকোনা, দাসপুর, বেলদা, খড়গপুর, ঘাটাল, শালবনি এবং মেদিনীপুর শহরের বাসিন্দা। আক্রান্তদের মধ্যে চন্দ্রকোনা রোডের পাঁচজন যুবক, বেলদার একই পরিবারের তিনজন, কেশিয়াড়ির দুজন, দাঁতন দু’নম্বর ব্লকের নয়জন, খড়গপুর রেলের তিনজন এবং ঘাটাল ও দাসপুর এক ও দুই নম্বর ব্লকের ন’জনের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট পাওয়া গেছে। মেদিনীপুর শহরে আক্রান্ত হয়েছেন দু’জন। সবমিলিয়ে বুধবার  সন্ধ্যার পর নতুন করে আক্রান্ত ৪২ জনের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট প্রকাশ করেছে জেলা স্বাস্থ্য ভবন। এই নিয়ে জেলায় ১১৩২ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। মৃত্যু হয়েছে ২৭ জনের। বর্তমানে সক্রিয় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৩১০ জন। ৭৯৫ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন বলে জেলা স্বাস্থ্য ভবন সূত্রে জানা গিয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here