১৫ হাজারের গণ্ডি পার! ২৪ ঘন্টায় ফের করোনায় আক্রান্ত ৪৪৫, সুস্থ ৪৮৪, মৃত ১১

রাজেন রায়, কলকাতা, ২৪ জুন: রাজ্যে সুস্থতার হার বাড়লেও উর্ধ্বগামী করোনা সংক্রমণ যেন কমছেই না। যা রীতিমত চিন্তা বাড়িয়েছে রাজ্যের স্বাস্থ্য আধিকারিকদের। ফের ২৪ ঘন্টায় ৪৪৫ জন করোনা পজিটিভে রাজ্যে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ১৫১৭৩ জনে। আরও ১১ জনের মৃত্যু হওয়ায় রাজ্যে সরকারি হিসেবে মোট করোনায় মৃত্যু ৫৯১ জনের। এদিকে আরও ৪৮৪ জন সুস্থের হিসেব ধরলে মোট সুস্থ হলেন ৯৭০২ জন। তার মধ্যে এদিন অন্যান্য জেলার সঙ্গে কলকাতাতে এদিনও ১৩৩ জন, উত্তর ২৪ পরগনায় ১২৫ জন এবং হাওড়ায় ৬৮ জন সুস্থ হওয়ার জেরে সুস্থতার হার ফের বেড়ে দাঁড়াল ৬৩.৯৪ শতাংশে।

এই মুহূর্তে রাজ্যে করোনা আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন ৪৮৮০ জন। বুধবার স্বাস্থ্য দফতর থেকে প্রকাশিত বুলেটিনে আরও জানানো হয়েছে, এদিন পর্যন্ত রাজ্যের ৪৯টি ল্যাবে মোট করোনা টেস্টের সংখ্যা ৪২৯৭৬৬ জনের। তার মধ্যে ২৪ ঘন্টায় রাজ্যে করোনা পরীক্ষা হয়েছে ৯৪৮৯ জনের। সরকারি ৫৮২টি কোয়ারেন্টাইনে এখন রয়েছেন ৮৫৮৫ জন। ছেড়ে দেওয়া হয়েছে ৯২১৮৯ জনকে। হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন ১১০৮০৩ জন। ছেড়ে দেওয়া হয়েছে ১৯০৩৮৫ জনকে। শ্রমিক স্পেশাল ট্রেন ফেরত পরিযায়ী শ্রমিকদের তথ্যে জানানো হয়েছে, ৫১৪২টি কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে ৩৭৯৩৩ জন শ্রমিককে কোয়ারেন্টাইন করে রাখা হয়েছে। করোনা পরীক্ষা করে সুস্থ দেখে ২২০৭০২ জন শ্রমিককে কোয়ারেন্টাইন সেন্টার থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। রাজ্যে সেফ হোম ও তার বেড সংখ্যা এবং সেখানে রোগীদের সংখ্যা উল্লেখ করে বলা হয়েছে, রাজ্যের ১০৬টি সেফ হোমে ৬৯০৮টি বেড রয়েছে এবং তাতে ৫১০ জন রোগী রয়েছেন।

এছাড়া এদিনের বুলেটিনে জেলাওয়াড়ি তথ্যে জানানো হয়েছে, কলকাতায় এদিন ১৫৫ আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ায় মোট সংক্রমণ ৪৯৭০ জনের। এদিন কলকাতায় আরও মাত্র ৬ জনের মৃত্যু হওয়ায় কলকাতাতে মোট মৃত্যু ৩৪৫ জনের। এছাড়া এদিন হাওড়ায় ২ জন, উত্তর ২৪ পরগনা, দক্ষিণ ২৪ পরগনা এবং দার্জিলিংয়ে ১ জন করে মোট আরও ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদিন অন্যান্য জেলার সঙ্গে উত্তর ২৪ পরগনায় ১১১ জন এবং দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ৬৮ জনের সংক্রমণ উল্লেখযোগ্য হারে সংক্রমণ বৃদ্ধি পেয়েছে। এদিনও উত্তরবঙ্গের কালিম্পং, দক্ষিণ দিনাজপুর এবং দক্ষিণবঙ্গের বীরভূম, পুরুলিয়া, পূর্ব বর্ধমান ও ঝাড়গ্রাম ছাড়া সংক্রমণ বেড়েছে রাজ্যের বাকি সমস্ত জেলাতেই।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here