ঘাটালে গুরুদাস উচ্চ বিদ্যালয়ের ৫০ বর্ষপূর্তি উৎসব

কুমারেশ রায়, আমাদের ভারত, মেদিনীপুর,
৯ জানুয়ারি: গুরুদাস উচ্চ বিদ্যালয়ের ৫০ বর্ষপূর্তিতে বৃহস্পতিবার সকালে ছাত্রছাত্রীরা বর্ণাঢ্য র‍্যালি সহযোগে সূচনা করে। উৎসব তিন দিন ধরে চলবে। স্কুলের ছাত্রছাত্রীরা ও বহিরাগত শিল্পী সহযোগে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান রয়েছে তিন দিন ধরেই। স্কুলের প্রাক্তন ছাত্রদের নিয়ে একটি প্রাক্তনী সম্মেলনী রয়েছে।

বৃহস্পতিবার বিকেলে উৎসবের উদ্বোধন করেন স্বামী জ্ঞানলোকানন্দ মহারাজ। উদ্বোধন করে বলেন, যা সমাজ থেকে নেব তার থেকে বেশি ফেরত দিতে হবে সমাজকে তবেই সার্থক হবে জীবন ছেলেমেয়েদের উদার হতে হবে। জীবনের আশাটাকে জাগিয়ে রাখতে হবে তবে প্রকৃত লক্ষ্যে পৌঁছানো যাবে। স্বামী জ্ঞানলোকানন্দ মহারাজ পাগল বাবা গুরুদাসের মূর্তি উম্মোচন করে মাল্যদান করেন। সুপ্রিম কোর্টের প্রাক্তন বিচারপতি অশোক গাঙ্গুলি অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে তিনি বলেন, বিদ্যালয় হচ্ছে একটা বাড়ির সংস্করণ। আসল শিক্ষা হয় বাড়িতে বিদ্যালয়ে।বিদ্যালয় হচ্ছে বাড়ির সংস্করণ। এখান থেকেই একটা জাতি একটা মানুষ গড়ে ওঠে।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে সিএএ নিয়ে তিনি বলেন, আমি এই দুটো আইনের বিরোধী আমার ধারণা এই আইন আমাদের সংবিধানের যে ধর্মনিরপেক্ষতার মূলধারা আছে তা লঙ্ঘিত হচ্ছে এই আইন নিয়ে বিক্ষোভ চলতে পারে তবে ভাঙ্গচুর করাটা গুন্ডামি করা আমি সমর্থন করি না। ভাঙ্গচুর করা গুন্ডামি করা একদম উচিত নয় মানুষের। আর এই আইন নিয়ে সুপ্রিম কোর্ট বিচার করবে ভবিষ্যতে দেখুন কি হয়। এরপর বিদ্যাসাগরের মূর্তি উন্মোচন করেন তিনি স্কুলকে এবং শিল্পীকেও ধন্যবাদ জানান। স্কুলের প্রধান শিক্ষক সমরেন্দ্র আদক এই অনুষ্ঠানের আগত অতিথি ছাত্র-ছাত্রীদের ধন্যবাদ জানান।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here