সর্বোচ্চ আক্রান্ত ও মৃত্যুর জোড়া রেকর্ড! ২৪ ঘন্টায় নতুন আক্রান্ত ৬৬৯, মৃত ১৮, সুস্থ ৫৩৪

রাজেন রায়, কলকাতা, ৩ জুলাই: ফের ২৪ ঘন্টায় নতুন আক্রান্তের সংখ্যা ৬৬৯ জন, মৃত্যু হয়েছে ১৮ জনের, সুস্থ হয়েছেন ৫৩৪ জন। এখনও পর্যন্ত ২৪ ঘন্টার হিসেবে এই মৃত্যু সংখ্যা এবং আক্রান্ত সংখ্যা সর্বোচ্চ বলে দাবি স্বাস্থ্য দফতরের। শুক্রবার প্রকাশিত বুলেটিন এমন তথ্যই প্রকাশ্যে এসেছে। এদিন আক্রান্তের সংখ্যা ২০ হাজারের গণ্ডি ছাড়িয়ে গিয়েছে, মৃত্যুসংখ্যাও ৭০০-এর গন্ডি ছাড়িয়ে গিয়েছে। যার মধ্যে কলকাতাতেই মৃত্যু হয়েছে ৪০২ জনের।

শুক্রবারের বুলেটিন অনুযায়ী, ফের ২৪ ঘন্টায় ৬৬৯ জন করোনা পজিটিভে রাজ্যে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ২০৪৮৮ জনে। আরও ১৮ জনের মৃত্যু হওয়ায় রাজ্যে সরকারি হিসেবে মোট করোনায় মৃত্যু ৭১৭ জনের। এদিকে আরও ৫৩৪ জন সুস্থের হিসেব ধরলে মোট সুস্থ হলেন ১৩৫৭১ জন।

এদিন অন্যান্য জেলার সঙ্গে কলকাতাতে এদিনও ১০২ জন, উত্তর ২৪ পরগনায় ৯১ জন এবং দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ৭৪ জন সুস্থ হয়েছেন। সুস্থতার হার বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬৬.২৩ শতাংশে। এই মুহূর্তে রাজ্যে করোনা আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন ৬২০০ জন। তার মধ্যে এদিন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রোগীর সংখ্যা বেড়েছে ১১৭ জন।

বুলেটিনে আরও জানানো হয়েছে, এদিন পর্যন্ত রাজ্যের ৫১টি ল্যাবে মোট করোনা টেস্টের সংখ্যা ৫১৯০৫৪ জনের। তার মধ্যে ২৪ ঘন্টায় রাজ্যে করোনা পরীক্ষা হয়েছে ১১০৫৩ জনের। রাজ্যের ৭৯টি করোনা হাসপাতাল, ২৬টি সরকারি এবং ৫৩টি বেসরকারি হাসপাতালে মোট ১০৫৯৪টি বেড আছে, আইসিইউ পরিষেবা রয়েছে ৯৪৮ জনের। ভেন্টিলেটর রয়েছে ৩৯৫ টি। তার ২৩.২৫ শতাংশ রোগী ভর্তি আছেন।

সরকারি ৫৮২টি কোয়ারেন্টাইনে এখন রয়েছেন ৬২৮৭ জন। ছেড়ে দেওয়া হয়েছে ৯৭৮০৭ জনকে। হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন ৫১৭৭০ জন। ছেড়ে দেওয়া হয়েছে ২৬৯৬২৪ জনকে। শ্রমিক স্পেশাল ট্রেন ফেরত পরিযায়ী শ্রমিকদের তথ্যে জানানো হয়েছে, ৩০৩৩টি কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে ১৪৭৭১ জন শ্রমিককে কোয়ারেন্টাইন করে রাখা হয়েছে। করোনা পরীক্ষা করে সুস্থ দেখে ২৫৪৩২০ জন শ্রমিককে কোয়ারেন্টাইন সেন্টার থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। রাজ্যে সেফ হোম ও তার বেড সংখ্যা এবং সেখানে রোগীদের সংখ্যা উল্লেখ করে বলা হয়েছে, রাজ্যের ১০৬টি সেফ হোমে ৬৯০৮টি বেড রয়েছে এবং তাতে ৩৪৭ জন রোগী রয়েছেন।

এছাড়া এদিনের বুলেটিনে জেলাওয়াড়ি তথ্যে জানানো হয়েছে, কলকাতায় এদিন ১৮২ আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ায় মোট সংক্রমণ ৬৬২২ জনের। এদিন কলকাতায় আরও মাত্র ৮ জনের মৃত্যু হওয়ায় কলকাতাতে মোট মৃত্যু ৪০২ জনের। এছাড়া এদিন উত্তর ২৪ পরগনায় ও হাওড়ায় ৩ জন করে, দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ২ জন, হুগলি এবং মালদায় ১ জন করে করোনা রোগীর মৃত্যু হওয়ায় আরও ১০ জন রোগীর মৃত্যু হয়েছে। এদিন অন্যান্য জেলার সঙ্গে উত্তর ২৪ পরগনায় ১৩৪ জন, হাওড়ায় ১০২ জন, হুগলি ও দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ৬২ জন করে সংক্রমণ উল্লেখযোগ্য হারে সংক্রমণ বৃদ্ধি পেয়েছে। এদিনও উত্তরবঙ্গের আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার, কালিম্পং, দক্ষিণ দিনাজপুর এবং দক্ষিণবঙ্গের বীরভূম ও ঝাড়গ্রাম ছাড়া সংক্রমণ বেড়েছে রাজ্যের বাকি সমস্ত জেলাতেই।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here