টাকা শেষ,খাবার নেই, ফিরতেই হবে বাড়ি! টানা ১২ ঘণ্টা পথ হাঁটলেন সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা

আমাদের ভারত, ৬ মে: লক ডাউনের বিপাকে রোজগার নেই। জমানো টাকা প্রায় সবই ফুরিয়ে এসেছে। ফুরিয়েছে খাবার। তাই উপায় না দেখে পায়ে হেঁটেই বাড়ি ফেরার সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়েছে সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা নিকিতা। প্রখর রোদে হনহনিয়ে টানা ১২ ঘন্টা একভাবে হেঁটেছেন বছর ৩২ এই অন্তঃসত্ত্বা। উদ্দেশ্য একটাই সব বাধা পেরিয়ে নিজের গ্রামে পৌঁছাতে হবেই। দীর্ঘশ্বাস ফেলা লক ডাউন পরিস্থিতিতে আবার এমন করুণ ছবি লকডাউন ধরা পড়ল মহারাষ্ট্রে।

নভি মুম্বাইয়ের ঘানশোলি থেকে মহারাষ্ট্রের বুলধানা নেহাত কম রাস্তা নয়। কয়েক কিলোমিটারের পথ। কিন্তু উপায় নেই। প্রথমটা প্রশাসনের ওপর ভরসা রাখলেও আর ধৈর্য রাখতে পারেনি নিকিতা। কারণ সে একা নয়। তার শরীরের ভেতরে বেড়ে উঠছে যে আরেকটা প্রাণ। অথচ খাবার শেষ। তাই ওই আগামীর কথা ভেবে যেভাবেই হোক তাকে ফিরতেই হবে।

তাই কোনরকমে পায়ে হেঁটেই বাড়ি ফিরতে শুরু করে নিকিতা। একমাত্র সঙ্গী মনের জোর। মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭ টা থেকে একটানা হেঁটেছে সে। অল্প কিছুক্ষণ জিরিয়ে আবার হাটা। সংবাদমাধ্যমের ক্যামেরা দেখে নিকিতা বলেছে, ” আমাদের মত মানুষের জন্য জলখাবারের বেশি কিছু ব্যবস্থা নেই বাবু। সবশেষ, হাত ফাঁকা তাই ফিরতেই হবে।”

নিকিতার চোখে স্বপ্ন তার ভিতর বেড়ে ওঠা একটা কুঁড়ি এই দুর্যোগ সরিয়ে ঝলমলে সকালে যেনো পাঁপড়ি মেলতে পারে। তাই স্বপ্ন সত্যি করতে মনের জোরে হেঁটে চলেছে নিকিতা। কিন্তু নিকিতার এই পদক্ষেপ প্রশ্ন তুলে দিয়েছে প্রশাসনের দায়িত্ববোধ নিয়েও।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here