রেকর্ড সংক্রমণে দুশ্চিন্তা কলকাতায়! রাজ্যে ২৪ ঘন্টায় নতুন আক্রান্ত ৬৫২, মৃত ১৫, সুস্থ ৪১১

রাজেন রায়, কলকাতা, ৩০ জুন: ফের সমস্ত রেকর্ড ভেঙে ফের ২৪ ঘন্টায় নতুন আক্রান্তের সংখ্যা ৬৫২ জন, মৃত্যু হয়েছে ১৫ জন, সুস্থ হয়েছেন ৪১১ জন। মঙ্গলবার প্রকাশিত বুলেটিন এমন তথ্যই প্রকাশ্যে এসেছে। তার মধ্যে কলকাতাতেই রেকর্ড সংক্রমণ ২৩১ জনের, মৃত্যু হয়েছে ৭ জনের। কলকাতায় কিছুতেই করোনাকে নিয়ন্ত্রণে আনতে না পারায় রক্তচাপ বাড়ছে স্বাস্থ্য আধিকারিকদের।

বুলেটিন অনুযায়ী, ফের ২৪ ঘন্টায় ৬৫২ জন করোনা পজিটিভে রাজ্যে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ১৮৫৫৯ জনে। আরও ১৫ জনের মৃত্যু হওয়ায় রাজ্যে সরকারি হিসেবে মোট করোনায় মৃত্যু ৬৬৮ জনের। এদিকে আরও ৪১১ জন সুস্থের হিসেব ধরলে মোট সুস্থ হলেন ১২১৩০ জন।

এদিন অন্যান্য জেলার সঙ্গে কলকাতাতে এদিনও ১৪৪ জন, উত্তর ২৪ পরগনায় ৪০ জন এবং হাওড়ায় ৩৭ জন সুস্থ হয়েছেন। তবে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় সুস্থতার হার কমে দাঁড়াল ৬৫.৩৫ শতাংশে। এই মুহূর্তে রাজ্যে করোনা আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন ৫৭৬১ জন। তার মধ্যে এদিন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রোগীর সংখ্যা বেড়েছে ২২৬ জনের।

বুলেটিনে আরও জানানো হয়েছে, এদিন পর্যন্ত রাজ্যের ৫১ টি ল্যাবে মোট করোনা টেস্টের সংখ্যা ৪৮৮০৩৮ জনের। তার মধ্যে ২৪ ঘন্টায় রাজ্যে করোনা পরীক্ষা হয়েছে ৯৬১৯ জনের। ১০ হাজারের কম টেস্টেও এত পরিমাণ সংক্রমণ আশায় চিন্তা বেড়েছে স্বাস্থ্য আধিকারিকদের। রাজ্যের ৭৮টি করোনা হাসপাতাল, ২৫ টি সরকারি এবং ৫৩টি বেসরকারি হাসপাতালে মোট ১০৪৭৯টি বেড আছে, আইসিইউ পরিষেবা রয়েছে ৯৪৮ জনের। ভেন্টিলেটর রয়েছে ৩৯৫টি। তার ২২.৪৪ শতাংশ রোগী ভর্তি আছেন।

সরকারি ৫৮২টি কোয়ারেন্টাইনে এখন রয়েছেন ৬৭৯৫ জন। ছেড়ে দেওয়া হয়েছে ৯৬১৬২ জনকে। হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন ৬৫৬৯০ জন। ছেড়ে দেওয়া হয়েছে ২৪৭৬১৩ জনকে। শ্রমিক স্পেশাল ট্রেন ফেরত পরিযায়ী শ্রমিকদের তথ্যে জানানো হয়েছে, ৩৫৭৭টি কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে ১৯১৪১ জন শ্রমিককে কোয়ারেন্টাইন করে রাখা হয়েছে। করোনা পরীক্ষা করে সুস্থ দেখে ২৪৪৮৭১ জন শ্রমিককে কোয়ারেন্টাইন সেন্টার থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। রাজ্যে সেফ হোম ও তার বেড সংখ্যা এবং সেখানে রোগীদের সংখ্যা উল্লেখ করে বলা হয়েছে, রাজ্যের ১০৬টি সেফ হোমে ৬৯০৮টি বেড রয়েছে এবং তাতে ৩৯৭ জন রোগী রয়েছেন।

এছাড়া এদিনের বুলেটিনে জেলাওয়াড়ি তথ্যে জানানো হয়েছে, কলকাতায় এদিন রেকর্ড ২৩১ আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ায় মোট সংক্রমণ ৫৯৮৪ জনের। এদিন কলকাতায় আরও মাত্র ৭ জনের মৃত্যু হওয়ায় কলকাতাতে মোট মৃত্যু ৩৭৯ জনের। এছাড়া এদিন উত্তর ২৪ পরগনায় আর হাওড়ায় ২ জন করে এবং দার্জিলিং, বীরভূম, বাঁকুড়া ও হুগলিতে ১ জন করোনা রোগীর মৃত্যু হওয়ায় আরও ৮ জন রোগীর মৃত্যু হয়েছে। এদিন অন্যান্য জেলার সঙ্গে উত্তর ২৪ পরগনায় ১৩৫ জন, দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ৬২ জনের সংক্রমণ উল্লেখযোগ্য হারে সংক্রমণ বৃদ্ধি পেয়েছে। এদিনও উত্তরবঙ্গের কোচবিহার, কালিম্পং এবং দক্ষিণবঙ্গের ঝাড়গ্রাম ছাড়া সংক্রমণ বেড়েছে রাজ্যের বাকি সমস্ত জেলাতেই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here