ঝাড়গ্রাম জেলা পুলিশ লাইনে লাগাতার গুলি চালাচ্ছে কনস্টেবল

আমাদের ভারত, ঝাড়গ্রাম, ২৩ এপ্রিল: পুলিশ লাইনের সেন্ট্রি থেকে ডিউটিতে থাকা কনস্টেবল দফায় দফায় গুলি চালানোয় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে ঝাড়গ্রাম শহরে। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত জানা গেছে স্বয়ংক্রিয় রাইফেল থেকে দফায় দফায় গুলি ছুড়ছে বিনোদ কুমার। অস্ত্রাগারের দায়িত্বে থাকা ওই কনস্টেবলের কাছে দেড়শো রাউন্ডের মত গুলি রয়েছে। রয়েছে গোলাবারুদও। সেই সমস্ত পেয়ে সে দফায় দফায় গুলি চালাচ্ছে।

প্রাথমিকভাবে মানসিক অবসাদ মনে হলেও সে পুলিশের নিয়ম অনুযায়ী যাতে অযথা গুলি শেষ হয়ে না যায় সেজন্য একটি দুটি করে গুলি চালাচ্ছে ঠান্ডা মাথায়। তার  সাথে যোগাযোগ করার জন্য মাইকে ঘোষণা করা হচ্ছে এবং তার মোবাইল ফোনে ফোন করা হচ্ছে কিন্তু সে একবারের জন্যও ফোন ধরছে না। এজন্য গুলি প্রতিরোধক এন্টি ল্যান্ডমাইন গাড়ি নিয়ে তার কাছাকাছি যাওয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে। কিন্তু তার কাছে প্রচুর গুলি থাকায় ঝুঁকির মুখে পড়তে হচ্ছে পুলিশ বাহিনীকে।

গাড়ি সামনের দিকে এগিয়ে গেলে স্বয়ংক্রিয় এসএলআর থেকে গুলি চালাতে শুরু করছে। তাই গুলির শেষ না হওয়া পর্যন্ত সামনাসামনি যেতে বারণ করা হচ্ছে স্ট্রেকো বাহিনীকে। ঘটনাস্থলে রয়েছেন ঝাড়গ্রামের এসডিপিও এবং আইসি। তাদের নেতৃত্বে অপারেশন চালানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। ডিয়ার পার্কের  দিকে যাওয়ার রাস্তার পাশে নতুন পুলিশ লাইনের ওপর এই ঘটনা ঘটে চলায় ওই রাস্তা দিয়ে পুলিশের পক্ষ থেকে যাতায়াত বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। ফলে ওই এলাকার চার-পাঁচটি গ্রামের মানুষ ঝাড়গ্রাম শহরে আটকে রয়েছে।

রাতে ওই পুলিশ কর্মীর বাড়ির লোকজনকে নিয়ে আসা হয়। পরিবারের লোক, পুলিশ কর্মীদের সাথে কথোপকথনের পর অবশেষে গুলি চালানো বন্ধ করে। রাত ৯টা নাগাদ নিরস্ত্র অবস্থায় ছাদ থেকে নেমে আসে বিনোদ কুমার। এই মুহূর্তে এসপি অফিসে পরিবারের সাথে কথা বলছেন।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here