পরিযায়ী শ্রমিকদের নিয়ে আজমীর থেকে ডানকুনির উদ্দেশ্য রওনা বিশেষ ট্রেনের

আমাদের ভারত, হুগলী, ৪ মে: কর্মহীন হয়ে পার হয়ে গেল প্রায় দেড় মাস, রোজগার তো নেই, তার ওপর যা জমানো টাকা ছিল তাও প্রায় শেষের পথে। এই পরিস্থিতিতে ঘরের মানুষগুলির জন্য দুশ্চিন্তা! বহু আবেদন বহু নিবেদনের পর সরকারের উদ্যোগে এই সমস্থ পরিযায়ী শ্রমিকদের নিয়ে আজমীর থেকে রওনা দিচ্ছে একটি বিশেষ ট্রেন। যা আগামীকাল এসে পৌছোবে হুগলীর ডানকুনিতে।

রাজ্যে ইতিমধ্যেই বেশ কিছু পরিযায়ী শ্রমিকদের ফিরিয়ে আনা হয়েছে। যাদের অনেকেরই শারিরিক পরীক্ষার পর করোনা পজিটিভ পাওয়া গেছে বলে খবর। তাই এই বার কোনো ঝুকি নিতে চায় না রাজ্য সরকার। বেশ কয়েকটি যায়গায় ট্রেন দাঁড়ানো নিয়ে সমস্যা দেখা দিয়েছে ইতিমধ্যেই। তাই প্রশাসনের সিদ্ধান্ত কোনো স্টেশন নয়, জনবসতি থেকে দূরে হুগলীর ডানকুনি ফ্রেড করিডরে এই ট্রেনটি দাঁড় করিয়ে সেখানেই নামানো হবে এই সব মানুষদের। সরকারি নিয়ম মেনে প্রাথমিক চিকিৎসাও করা হবে তাদের। তারপর সরকারি বাসে চাপিয়ে তাদের পৌছে দেওয়া হবে নির্দিষ্ট গন্তব্যে। এরজন্য সব ব্যবস্থা করছে রাজ্য সরকার। সোমবার ডানকুনি স্টেশন সংলগ্ন এলাকা পরিদর্শন করেন ডানকুনি পুরসভা ও রাজ্য পরিবহন দপ্তরের আধিকারিকরা। তাদের মতে ট্রেন আসা ও আসার পর পুরো এলাকা স্যানিটাইজ করা হবে। সেই সঙ্গে যাতে সাধারণ মানুষের মধ্যে এর কোনও প্রভাব না পরে তার জন্য ডানকুনির রেলের কারখানায় সব ব্যবস্থা থাকবে।

তবে এখানেও প্রশ্ন তুলেছেন কেউ কেউ। তাদের মতে এই সব মানুষদের বাড়িতে এখনই যদি না যেতে দিয়ে তাদের চৌদ্দ দিনের কোয়ারেনটাইনের ব্যবস্থা করা হত তাহলে হয়ত রাজ্যবাসী বেশী উপকৃত হতেন। কারণ এরা যদি ফিরে গিয়ে নিজস্ব এলাকায় রোগ ছড়ান তবে তার দায় কে নেবে?

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here