মন্দির সংলগ্ন ক্লাবের দখল নিয়ে ঝামেলা জগদ্দলে, গুলি বিদ্ধ এক কিশোর

আমাদের ভারত, কলকাতা, ২১ জুলাই: জগদ্দল নতুন গ্রাম এলাকায় মন্দির সংলগ্ন ক্লাবের দখল নিয়ে ঝামেলার ঘটনায় গুলি চালানোর ঘটনা ঘটলো। এই জেরেই দুষ্কৃতিদের গুলিতে আহত হয়েছে সরাজ নামে এক কিশোর। এই গোটা ঘটনায় ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়েছে জগদ্দল নতুন গ্রাম এলাকায়। এই ঘটনায় জড়িত দুষ্কৃতিদের খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে জগদ্দল থানার পুলিশ।

জগদ্দল পৌরসভার ৩০ নম্বর ওয়ার্ডের অন্তর্গত নতুন গ্রাম এলাকায় একটি মনসা মন্দির রয়েছে। সেই মন্দির লাগোয়া একটি ক্লাবের দখল নিয়ে ওই এলাকার বাসিন্দাদের সাথে প্রথমে গণ্ডগোল শুরু হয় মঙ্গলবার রাতে। এলাকাবাসীদের অভিযোগ, বেশ কিছু দিন ধরে ওই দুষ্কৃতীরা মন্দিরের পাশে থাকা ক্লাবে মদ ও জুয়ার আসর বসাত। রাতে গান চালিয়ে হল্লা করত। তাই স্থানীয় বাসিন্দারা মঙ্গলবার এর প্রতিবাদ জানায় ও মন্দির সংলগ্ন ওই ক্লাব তুলে দেওয়ার কথা বলেন। এই নিয়ে সন্ধে বেলায় ওই দুষ্কৃতীদে সাথে বচসা বাধে এলাকার বাসিন্দাদের। কিন্তু তখন তারা ফিরে যায়।

এরপরে দুষ্কৃতিরা গভীর রাতে ফের চারটি বাইকে চেপে আসে। সেই সময় নিজের বাড়ির সামনে ঘুরছিল এলাকার যুবক কুটু রায়। দুষ্কৃতীরা এলাকা দখল করতে ও পাড়ার লোকজনকে ভয় দেখাতে এলোপাথাড়ি পাঁচ রাউন্ড গুলি চালায়। দুষ্কৃতিদের ছোড়া গুলিতে আহত হয় সরাজ রায় ওরফে কুটু নামে ওই কিশোর। এই ঘটনায় পরপর দুই রাউন্ড গুলি চলে যার মধ্যে একটি তার হাতে এবং অপরটি তার বুকের পাশে লাগে। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাকে ভাটপাড়া স্টেট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে তাকে কলকাতায় স্থানান্তরিত করা হয়। বর্তমানে তার চিকিৎসা চলছে আরজিকর হাসপাতালে।

এই ঘটনা সম্পর্কে আতঙ্কিত এলাকাবাসীদের বক্তব্য, “দুষ্কৃতীদের এলাকা থেকে দূর করতে গিয়েই এই বিপত্তি ঘটেছে। তবে কারা এই ঘটনা ঘটিয়েছে সেটা আমরা বলতে চাইছি না, কারণ তাহলে আমাদের সাথেও এই ঘটনা ঘটতে পারে”। তবে এই গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে জগদ্দল থানার পুলিশ।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here