পেগাসাস কান্ডে তদন্তের জন্য তিন সদস্যের কমিটি সুপ্রিম কোর্টের, ৮ সপ্তাহের মধ্যে রিপোর্ট

রাজেন রায়, নয়াদিল্লি, ২৭ অক্টোবর: পেগাসাস সফটওয়্যার নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে গত কয়েক মাস আগে থেকেই শোরগোল ফেলেছিল বিরোধী রাজনৈতিক দল গুলি। অভিযোগ, এই সফটওয়্যারের মাধ্যমে বিরোধী রাজনৈতিক নেতা থেকে শুরু করে সাংবাদিক, বিচারপতি থেকে শির্ষ নেতাদের ফোনে আড়ি পাতা হচ্ছে। খবরের শিরোনামে উঠে আসে প্রস্তুতকারক ইজরায়েলি সংস্থা এনএসও-র নাম। তারপরেই এ নিয়ে মামলা দায়ের হয়েছিল সুপ্রিম কোর্টে।

গভ ১৬ সেপ্টেম্বর সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি এনতি রামান্নার থেকে শুনানি শেষ হয়। তারপর বুধবারই এই নিয়ে রায় ঘোষণা সুপ্রিম কোর্টের। জানানো হয়েছে, পেগাসাস কাণ্ডে তদন্তের জন্য ৩ সদস্যের কমিটি গঠন করতে হবে। সেই কমিটিতে থাকবেন একজন প্রাক্তন বিচারপতি, একজন আইপিএস অফিসার এবং একজন ফরেনসিক সাইবার বিশেষজ্ঞ। নির্দেশ অনুযায়ী, তদন্ত কমিটির অন্যতম সদস্য হিসেবে সুপ্রিম কোর্টের অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি আর ভি রবীন্দ্রন তদন্ত পরিচালনা করবেন। তাঁকে সহযোগিতা করবেন ১৯৭৬ সালের ব্যাচের
আইপিএস অফিসার অলোক যোশী এবং ন্যাশানাল ফরেনসিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শীর্ষস্থানীয় বিশেষজ্ঞ সন্দীপ ওবেরয়। এই তিন সদস্যের তদন্ত কমিটিকেও সাহায্য করবে আরও তিন সদস্যের টেকনিক্যাল কমিটি। যারা হলেন নবীন কুমার চৌধুরী, ডক্টর পি প্রভাবন এবং ডক্টর অশ্বিন অনিল গুমস্তে। সমস্ত কিছু খতিয়ে দেখে ৮ সপ্তাহের মধ্যে রিপোর্ট জমা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত, বিবোধীদের দাবিকে সুপ্রিম কোর্টেও নস্যাৎ করেছিলেন কেন্দ্রীয় সরকারের আইনজীবী। কিন্তু সুপ্রিম কোর্টের বক্তব্য, সাধারণ মানুষ থেকে সংবাদমাধ্যমের বাক স্বাধীনতার প্রসঙ্গও রয়েছে। সেই কারণেই এই তদন্ত হওয়া প্রয়োজন। দেশের স্বার্থে সুপ্রিম কোর্টের তদন্তের এই নির্দেশকে সাধুবাদ জানাচ্ছেন আইনজীবী থেকে সাইবার বিশেষজ্ঞরা। এখন দেখার বিরোধীদের অভিযোগ সত্যি প্রমাণিত হয় না কি নতুন কোনও তথ্য উঠে আসে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here