হাথরসের ঘটনায় কেন্দ্রের বিজেপি সরকারকে আক্রমণে অভিষেক, পার্থ, নুসরত

রাজেন রায়, কলকাতা, ৩০ সেপ্টেম্বর: একুশের বিধানসভা নির্বাচনের আগে বঙ্গ বিজেপির ইস্যু থাকুক বা না থাকুক, কেন্দ্রের মোদি সরকারকেও যে কোন ইস্যুতে আক্রমণ করতে ছাড়ছে না তৃণমূল। দিন কয়েক আগেই ঘটে গিয়েছে উত্তরপ্রদেশে হাথরসে নারকীয় ধর্ষণের ঘটনা। এই নিয়ে দেশের অন্যান্য রাজ্যগুলি থেকে নিন্দা ও সমালোচনার ঝড় উঠলেও বুধবার থেকে আসরে নামল তৃণমূল। শুধু কেন্দ্রের বিজেপি সরকার নয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকেও তারা বাক্যবাণে বিদ্ধ করেন। তৃণমূলের পক্ষ থেকে বলা হয়, ‘দু’দিনে পরপর দুটি অমানবিক অপরাধ সংগঠিত হল। এই ঘটনা স্পষ্ট করে দিয়েছে দেশের দলিত ও মহিলাদের সুরক্ষা ব্যবস্থা, যা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির শাসনকালে হাস্যকর হয়ে পড়েছে। কেন্দ্রের বিজেপি সরকার এখন দেশের দলিত সম্প্রদায়ের জন্য বড় ভয়ের বিষয়।’

বুধবার উত্তরপ্রদেশের হাথরসে কিশোরীর মৃত্যু নিয়ে প্রথম কড়া প্রতিক্রিয়া জানান যুব সভাপতি তথা সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, ‘হাথরসে নরেন্দ্র মােদীর রাজত্বে অবর্ণনীয় অপরাধ ঘটল। অথচ, তিনি মুখ বন্ধ করে আছেন। টানা ১৫ দিন যন্ত্রণায় লড়াই করার পর মেয়েটি মারা গেল। উত্তরপ্রদেশ পুলিশ তার মরদেহে সম্পূর্ণ অশ্রদ্ধা দেখাল। এটা অামনবিকতা।’

প্রসঙ্গত, ১৯ বছরের ওই কিশােরীকে দিন পনেরাে আগে গণধর্ষণ করা হয়। তাকে দিল্লির এইমসে আনা হয়েছিল। কিন্তু মঙ্গলবার ভােরে তার মৃত্যু হয়। ধর্ষিতা ও মৃত দলিত কিশােরীর দেহ লুকিয়ে রাতের অন্ধকারে দাহ করা হয়েছে বলেও অভিযােগ উঠেছে। একটি সর্বভারতীয় টিভি চ্যানেলের ভিডিও ফুটেজ দেখিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াতে অভিষেক এই দাবি করেন।

এদিকে হাথরসের ঘটনায় প্রধানমন্ত্রী মােদীর নীরবতা নিয়ে প্রশ্ন তুললেন পশ্চিমবঙ্গের শিক্ষা ও পরিষদীয় মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ও। পার্থবাবু এদিন টুইটে লেখেন, ‘কুয়েতের আমিরের মৃত্যুতে শােক প্রকাশ করার মত মন এবং সময় আছে নরেন্দ্র মােদীর। কিন্তু হাথরসে আমাদের প্রতিবেশী একজন দলিত মেয়ের নৃশংস ধর্ষণ ও হত্যার ব্যাপারে তিনি একেবারে চুপ । তাঁর এই নীরবতা কিসের নিদর্শন?’ এর আগে মােদী এদিন টুইটে কুয়েতের আমির শেখ সাবা আল আহমেদ আল জাবের আল সাবার মৃত্যুতে শােক প্রকাশ করেছিলেন।

দলিতকন্যার গণধর্ষণের ঘটনা নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথকে প্রশ্ন করলেন টলিউড অভিনেত্রী তথা তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ নুসরত জাহানও। তিনি টুইটারে লিখেছেন, “জানি বিজেপি নারী বিরোধী, দলিত বিরোধী। কিন্তু এই নৃংশসতা মেনে নেওয়া যায় না যোগী আদিত্যনাথজি। বিজেপি শাসিত উত্তরপ্রদেশে গুণ্ডাদের রমরমা। নরেন্দ্র মোদীজি আপনি চুপ কেন এখন?”

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here