শুভেন্দুকে নজিরবিহীন আক্রমণ করলেন আবু তাহের

আমাদের ভারত, মুর্শিদাবাদ, ৯ নভেম্বর :
ফের মুর্শিদাবাদ জেলাতে তৃণমূল কংগ্রেসের বিভাজন তৈরি হল। প্রকাশ্য চলে এল ফের তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব। বহরমপুরে নাম না করে শুভেন্দু অধিকারীকে আক্রমণ করলেন মুর্শিদাবাদ জেলা তৃণমূল সভাপতি আবু তাহের খান । সোমবার বহরমপুর টাউন তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে দলীয় কর্মসূচির পর সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে শুভেন্দু অধিকারী নাম না করে নজিরবিহীন ভাবে আক্রমণ করেন আবু তাহের খান।
তিনি বলেন, মুর্শিদাবাদ জেলাতে যদি কেউ তৃণমূল দল ভাঙতে চান তাহলে আমরা উচিৎ শিক্ষা দেব। অন্যদিকে, রবিবার শুভেন্দু অধিকারীকে নিয়ে মন্তব্য করেছিলেন লোকসভা পরিষদীয় দলনেতা অধীর চৌধুরী । তিনি বলেছিলেন তৃণমূলের উত্থানের পিছনে শুভেন্দু অধিকারী এবং অধিকারী পরিবারের অবদান আছে। সেই প্রসঙ্গে আবু তাহের খান জানান, অধীর চৌধুরীকে দেখেছি কিছু দিন আগেই, তিনি লোহা চোর বলে সম্বোধন করত শুভেন্দু অধিকারীকে। আর সেই অধিকারী পরিবারের উপর এত প্রীতি এত ভালোবাসা, দুর্ভাগ্য আমাদের অধীর চৌধুরী কেমন মানুষ। তিনি মুখে এক কথা বলেন আর পিছনে আর এক কথা বলেন।
পাশাপাশি শুভেন্দু অধিকারী প্রসঙ্গে বলেন, শুভেন্দু অধিকারী আমাদের লোক। এখনও মন্ত্রী সভার সদস্য আছেন। কিন্তু দলের বাইরে গিয়ে যদি কিছু করেন সেটা মুর্শিদাবাদ জেলা তৃণমূল কংগ্রেস কোনও ভাবেই বরদাস্ত করবে না।
খড়গ্রামে স্মরন সভা প্রসঙ্গে বলেন, স্মরন সভা স্মরন সভাই , কিন্তু পাটি ভাঙার খেলায় যদি কেউ মাতেন, তাকে শিক্ষা দেওয়া জন্য তৃণমূল কংগ্রেস পিছুপা হঠবে না। যদি কংগ্রেস, বিজেপি ও সিপিএম কেউ পিছন থেকে বাতাস দেয় তাহলে তার মোকাবিলা তৃণমূল করবে বলে মন্তব্য করেন তিনি ।
অন্যদিকে বহরমপুর শহরে দাদার অনুগামী নিয়ে একাধিক পোষ্টার লাগানো হয়েছে শুভেন্দু অধিকারী ছবি দিয়ে। সেই প্রসঙ্গে আবু তাহের খান জানান, কেউ যদি কোন ফ্লেক্স লাগান সেটার দেখার দায়িত্ব আমাদের নেই। কেউ বাপের বেটা থাকলে সরাসরি কথা বলুক ।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here