৩৭০ পরবর্তী প্রথম স্বাধীনতা দিবস, প্রদীপের আলোয় কাশ্মীর ফুটিয়ে বরণ এবিভিপির

৩৭০ পরবর্তী প্রথম স্বাধীনতা দিবস, প্রদীপের আলোয় কাশ্মীর ফুটিয়ে বরণ এবিভিপির

চিন্ময় ভট্টাচার্য

আমাদের ভারত, ১৪ অগস্ট: কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা প্রত্যাহারের পর এই প্রথম স্বাধীনতা দিবসের মুখোমুখি হচ্ছে দেশ। ৩৭০ ধারা প্রত্যাহার যেন, শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের ‘এক দেশ, এক বিধান, এক নিশান’-এর স্বপ্নকে সফল করার পথে দেশকে অনেকটাই এগিয়ে দিয়েছে। সেকথা মাথায় রেখে আলোর মালায় কাশ্মীরের প্রতিকৃতি ফুটিয়ে তুলল এবিভিপি। আজ রাতে, স্বাধীনতা দিবসের প্রাক্কালে তারা কলকাতায় প্রদীপের আলোয় কাশ্মীরের এই প্রতিকৃতি ফুটিয়ে তুলেছে। কালও সন্ধ্যার পর এভাবেই কাশ্মীরের প্রতিকৃতি প্রদীপের আলোয় কলকাতার বুকে তারা ফুটিয়ে তুলবে বলে, এবিভিপির তরফে জানানো হয়েছে।

রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সঙ্ঘের এই ছাত্র সংগঠন সম্প্রতি কলকাতাতেই তাদের জাতীয় কর্মসমিতির বৈঠক সেরেছে। সেই বৈঠকেও অন্যতম বিষয় ছিল, কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা প্রত্যাহার। ওই বৈঠকে এই ইস্যুকে সংগঠনের প্রচারে তুলে ধরা নিয়েও বিস্তারিত আলোচনা হয়েছে। কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা প্রত্যাহারের দাবিতে সঙ্ঘের সুরেই দীর্ঘদিন ধরে সরব এবিভিপি। সঙ্ঘের এক প্রাক্তন প্রচারকের প্রধানমন্ত্রিত্বে সেই দাবিপূরণ হওয়ায় খুশি এই ছাত্র সংগঠন।

সেই খুশিকে সামনে রেখেই স্বাধীনতা দিবসে প্রতিবারের মতো বেশ কিছু কর্মসূচি গ্রহণ করেছে সঙ্ঘ পরিবারের ছাত্র সংগঠনটি। সেই সব কর্মসূচির অঙ্গ হিসেবে প্রদীপের সাহায্যে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে কাশ্মীরের মানচিত্র। ঘাসের এপর ফুল দিয়ে তৈরি সেই মানচিত্রের মধ্যের অংশ, অর্থাৎ গোটা কাশ্মীর উপত্যকাকে জাতীয় পতাকার রঙে রাঙিয়ে তুলেছে এই ছাত্র সংগঠন। মানচিত্রের বাইরে লিখেছে ৩৭০ সংখ্যা। যা কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা প্রত্যাহারের প্রতীক বলেই মনে করছেন এবিভিপি নেতৃত্ব।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

4 × 3 =