আরও খবর জেলার খবর

বাইককে বাঁচাতে গিয়ে উলটে গেল বাস, পুলিশ জনতা খণ্ডযুদ্ধ

আমাদের ভারত, কালনা, ৭ নভেম্বর :
মোটর বাইক আরোহীকে বাঁচাতে গিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে গেল যাত্রীবাহী বাস। দুর্ঘটনায় দুজনের মৃত্যু হয়েছে আহত হয়েছে ৪৬ জন। আজ দুপুর নাগাদ ঘটনাটি ঘটেছে কালনার ধাত্রীগ্রাম মোড় সংলগ্ন কেষ্টপুর এলাকায়।
ঘটনার পরেই উত্তেজিত জনতা রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখাতে থাকে। পুলিশের বাইকেও আগুন ধরিয়ে দেয় বলে অভিযোগ। এরপর পুলিশের সঙ্গে জনতার খণ্ডযুদ্ধ বেধে যায়। দফায় দফায় চলে পথ অবরোধ।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, নদীয়া শান্তিপুর এলাকার বাসিন্দা শাহজাহান শেখ, ফিরোজ মল্লিক বাইকে করে আসছিল। সেই সময় ওই বাইককে পুলিশের গাড়ি তাড়া করে বলে অভিযোগ। তাড়া খেয়ে পালানোর চেষ্টা করলে উল্টো দিক থেকে একটা বাস মুখোমুখি চলে আসে। বাইকটিকে বাঁচাতে গিয়ে বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পাশের নয়ানজুলিতে উল্টে যায়। বাইকে থাকা ওই দুই যুবক বাসের তলায় পড়ে গিয়ে পিষে যায়। বাসটি গুসকরা থেকে কালনা যাচ্ছিল। বাসে থাকা ৪৬ জন আহত হয়। স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে কালনা মহকুমা হাসপাতালে পাঠায়।

এরপর পুলিশ ঘটনাস্থলে এলে পুলিশকে ঘিরে ধরে বিক্ষোভ দেখাতে থাকে জনতা। জনতা-পুলিশ খণ্ডযুদ্ধ বেধে যায়। পুলিশের বাইকে আগুন ধরিয়ে দেওয়ার অভিযোগ ওঠে। স্থানীয়রা রাস্তার মধ্যে গাছের গুঁড়ি ফেলে দফায় দফায় অবরোধ করতে থাকে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে অবরোধকারীদের সঙ্গে পুলিশের ঝামেলা বেধে যায়। দুপুর থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত অবরোধ চলে।

স্থানীয়দের অভিযোগ, দিনের পর দিন কালনা এলাকায় পুলিশ তোলাবাজি চালাচ্ছে। পুলিশের তাড়া খেয়ে পালাতে গিয়ে দুর্ঘটনায় পড়ছে একের পর এক সাধারন মানুষ। অন্যদিকে পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে দুর্ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে পুলিশের ওপর হামলা চালায় জনতা।

Leave a Comment

three − 2 =

Welcome To Amaderbharat. We would like to keep you updated with the Latest News.