চিকিৎসার গাফিলতিতে বিজেপি নেতার মৃত্যুর অভিযোগ, হাবড়া হাসপাতালে উত্তেজনা, বিক্ষোভ  

আমাদের ভারত, উত্তর ২৪ পরগণা, ৫ অক্টোবর:
চিকিৎসার গাফিলতিতে বিজেপি নেতার মৃত্যুকে ঘিরে উত্তেজনার সৃষ্টি হয় হাসপাতালে। বিজেপি কর্মী সমর্থকরা হাসপাতালের সমানে দীর্ঘক্ষণ বিক্ষোভ দেখান। সোমবার ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর ২৪ পরগনার হাবড়া হাসপাতালে।

অভিযোগ, তৃণমূল নেতাদের নির্দেশে হাবড়া হাসপাতালের চিকিৎসকরা সাপে কাটা রোগীকে চার ঘণ্টা বেডে ফেলে রাখেছে। তার ফলেই হাবড়া দক্ষিণ মণ্ডলের সহ সভাপতি বৃন্দাবন হালদারের মৃত্যু হয়েছে বলে। পরিবার সূত্রের খবর, রবিবার রাত
১২টা নাগাদ হাবড়া দক্ষিণ মন্ডলের বাসিন্দা
বৃন্দাবন মন্ডলকে সাপে কামড়ায়। তড়িঘড়ি  
পরিবারের লোকেরা তাঁকে হাবড়া হাসপাতালে 
নিয়ে আসেন। অভিযোগ, রাত বারোটায়
হাবড়া হাসপাতালে নিয়ে আসা হলেও ভোর চারটে
পর্যন্ত কোনও চিকিৎসা না করেই বেডে ফেলে রাখা হয়। আর সে কারণেই মৃত্যু হয় বৃন্দাবন মন্ডলের।হাসপাতালে কোনও চিকিৎসা না হওয়ায় ক্ষোভে ফেটে পড়েন বিজেপি 
কর্মীরা।বিজেপি কর্মীরা এদিন রাজ্য সরকারের বেহাল চিকিৎসা
ব্যবস্থার অভিযোগ তুলে সরব হন। 

বিজেপি নেতা স্বপন বিশ্বাস
বলেন, হাবড়ার লড়াকু নেতা ছিলেন বৃন্দাবনবাবু। আর সেই কারণেই তৃণমূলের নির্দেশে চিকিৎসা না করে হাসপাতালের বেডে ফেলে রেখে তাকে খুন করা হয়েছে।   

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here