বিচারের দাবিতে সাংসদের বাড়ির দরজায় ধর্না শ্রমিক স্পেশাল ট্রেনে পুরুলিয়ার নিহত শিশুর পরিবারের

সাথী দাস, পুরুলিয়া, ২৫ জুন: উপযুক্ত বিচার এবং ক্ষতিপূরণের দাবিতে সাংসদ জ্যোতির্ময় সিং মাহাতোর বাড়ির সামনে ধর্নায় বসেন শ্রমিক স্পেশাল ট্রেনে নিহত শিশুর পরিবার। বৃহস্পতিবার দুপুরে পুরুলিয়া শহরের রাঁচি রোডে সাংসদের বাড়ির সামনে রীতিমত প্ল্যাকার্ড নিয়ে অবস্থানে বসে যান কোটশিলার বালি গ্রামের বাসিন্দা মৃত শিশুকন্যার মা রেশমা আনসারী, বাবা দিলদার আনসারী সহ পরিবারের অনান্য সদস্যরা।

গত ১০ জুন শ্রমিক স্পেশাল ট্রেনে কেরালা থেকে পশ্চিমবঙ্গে ফেরার পথে ট্রেনে মৃত্যু হয় ওই পরিবারের ১৮ দিনের শিশু কন্যার। দিলদার আনসারী অভিযোগের সুরে জানান, অসুস্থ থাকার কথা তাঁরা বার বার বলেছিলেন রেল কর্তৃপক্ষকে। কিন্তু তারা কর্ণপাত করেনি। বরং তাদের হুমকি দেওয়া হয় ট্রেন থেকে নামার জন্য। পরে এনিয়ে অভিযোগ করা হলেও তার কোনও উত্তর আজও আসেনি রেল থেকে। দম্পতি আরও অভিযোগ করেন, এই নিয়ে পুরুলিয়ার বিজেপি সাংসদ কোনও উদ্যোগ নেননি। জয়পুরে দলীয় কাজে গেলেও সাংসদ তাঁদের খোঁজ নেওয়ার জন্য আর একটু এগিয়ে গ্রামে যাননি। এমনকি সাংসদকে অন্যায়ের কথা জানানো হলেও বিষয়টি নিয়ে তিনি নিরব থাকেন। তাই সাংসদের কাছে ঘটনার উপযুক্ত বিচার চেয়ে অবস্থানে বসেন তাঁরা।

সাংসদ জ্যোতির্ময় সিং মাহাতো বলেন, লিখিত ভাবে পুরো বিষয়টি জানাতে বলেছেন তিনি। তিনি আরও বলেন, কারও প্রতি কোনও পক্ষপাতিত্বের প্রশ্ন নেই তাঁর। তবে সবার বাড়িতে যাওয়া সম্ভব নয়। আজ পরিকল্পিত ধর্নার পিছনে বিরোধিদের ইন্ধন আছে বলেও তিনি মনে করেন। অসহায় সবার পাশে সব সময় রয়েছেন বলে এদিন জানান সাংসদ জ্যোতির্ময়।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here