মহিলাদের আত্মসম্মান রক্ষার্থে হাতে অস্ত্র তুলে নেওয়ার বিধান দিলেন অগ্নিমিত্র পাল

আমাদের ভারত, হাওড়া, ২৫ জুন: পশ্চিমবঙ্গে মহিলাদের উপরে যেভাবে অত্যাচার চলছে সেটা আমরা সহ্য করব না। যা হয়েছে তা হয়েছে কিন্তু এবার যদি কোনও মহিলার গায়ে হাত পড়ে তাহলে রাজ্যের সমস্ত মহিলাদের বলছি হাতে অস্ত্র তুলে নেবেন। নিজেদের আত্মসম্মান রক্ষার্থে হাতে অস্ত্র তুলে নিলে কোনও দোষ নেই। বৃহস্পতিবার দুপুরে বাগনান থানায় এসে এই কথা বলেন বিজেপি মহিলা মোর্চার রাজ্য সভানেত্রী অগ্নিমিত্রা পল।

এদিন বিজেপি নেত্রী বলেন, ভারতের সংবিধান মহিলাদের আত্মসম্মান রক্ষার্থে হাতে অস্ত্র তুলে দেওয়ার অনুমতি দিয়েছে। আলাদা করে কোনও দল বা সরকারের অনুমতির প্রয়োজন নেই। এদিন বিজেপি নেত্রী পুলিশের উদ্দেশ্যে বলেন, হাতে মাত্র ৯ মাস সময় আছে, তারপরে মুখ্যমন্ত্রী আর থাকবেন না তখন আপনাদের বাঁচানোর কেউ থাকবে না। সুতরাং আপনারা শুধরে যান। তৃণমূলের গুন্ডারা নেতা সেজে গর্তে লুকিয়ে থাকলেও তাদের টেনে বার করে উচিত শিক্ষা দেওয়া হবে বলে এদিন হুঁশিয়ারি দেন অগ্নিমিত্র পাল। এদিন বিজেপি নেত্রী বলেন, অনেক খারাপ পুলিশ আছে ২০২১ এর মে মাসে বিজেপি সরকার ক্ষমতায় আসার পর ওইসব পুলিশকর্মীদের উচিত শিক্ষা দেওয়া হবে। এদিন বিজেপি নেত্রী দলের কর্মীদের আইন হাতে না তুলে নেওয়ার পরামর্শ দেন।

প্রসঙ্গত গত মঙ্গলবার মেয়ের সম্মান বাঁচাতে গিয়ে তৃণমূল নেতার হাতে খুন হওয়া মহিলার পরিবারের সাথে দেখা করতে বাগনানের গোপালপুরে আসেন বিজেপি মহিলা মোর্চার রাজ্য সভানেত্রী। এদিন তিনি শ্লীলতাহানির শিকার হওয়া কলেজ ছাত্রীর সঙ্গে কথা বলেন। পরে বাগনান থানায় গিয়ে পুলিশ আধিকারিকদের সঙ্গে দেখা করেন।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here