জানুয়ারিতে এরাজ্যে আত্মপ্রকাশের পরিকল্পনা, ব্রিগেডের সভার অনুমতি চাইল আসাদউদ্দিনের দল

আমাদের ভারত,৫ ডিসেম্বর:বিহারের কিশানগঞ্জ বিধানসভায় উপনির্বাচন হয়েছিল মহারাষ্ট্র ও হরিয়ানা বিধানসভা ভোটের সঙ্গে সঙ্গেই।আর তাতে রীতিমত চমক দিয়ে জয় পেয়েছে হায়দ্রাবাদের সাংসদ আসাদউদ্দিন ওয়েশির দল অল ইন্ডিয়া মজলিস-ই-ইত্তেহাদুল মুসলিমিন। বিহারে জয়ের স্বাদ পেতেই বাংলাযতেও নিজেদের সংগঠনের ভিত শক্ত করার কাজ শুরু করেছে তারা। আর প্রস্তুতিতে জানুয়ারি মাসেই ব্রিগেড ময়দানে সভার অনুমতি চাইল এআইএমআইএম।

একুশের বিধানসভার নির্বাচনকে পাখির চোখ করেছে ওয়েসির দল। আর সেটা আগেভাগেই বুঝেছেন দিদি। তাই কয়েকদিন আগে কোচবিহারে গিয়ে আসাদউদ্দিন এর দলকে চূড়ান্ত আক্রমণ করেন তৃণমূল সুপ্রিমো। বলেন বিজেপি টাকায় কিছু মানুষ হায়দরাবাদ থেকে এসে রাজ্যে অশান্তি তৈরীর চেষ্টা করছে। রাজ্যের মানুষের মনে সাম্প্রদায়িক বিভাজনের চেষ্টা করছে। এই রাজ্যে তারা কোন রকম ঠাঁই পাবে না।

কিন্তু মুখ্যমন্ত্রীর মন্তব্যের পাল্টা দিতে গিয়ে আসাদউদ্দিন বলেন, তৃণমূল তাকে এবং তার দলকে আসলে ভয় পাচ্ছে। একইসঙ্গে তিনি স্পষ্ট করে দেন তিনি পশ্চিমবঙ্গে শক্তিশালী সংগঠন তৈরি করার সমস্ত রকম চেষ্টা চালাবেন।আর সেই লক্ষ্যেই জানুয়ারি মাসে ব্রিগেড ময়দানে আনুষ্ঠানিকভাবে আত্মপ্রকাশের পরিকল্পনা নিয়েছে এআইএমআইএম।

ব্রিগেডের এই সভায় উপস্থিত থাকার কথা দলের প্রধান আসাদউদ্দিন ও তার ভাই আকবরউদ্দিনের।

জানা গেছে জানুয়ারি মাসের মাঝামাঝি সময়ে ব্রিগেড সভার করার প্রস্তুতি চলছে। ইতিমধ্যেই সভা করার জন্য সেনাবাহিনীর কাছে অনুমতি চেয়ে আবেদন জানানো হয়েছে। কমপক্ষে ১০ লক্ষ মানুষের জমায়েত করার চেষ্টা চালাচ্ছেন তারা। জমায়েত সফল করতে রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় ছোট ছোট সভাও করছেন তারা।

নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল এবং এনআরসি নিয়ে সংখ্যালঘু মানুষের মধ্যে আতঙ্ক রয়েছে। রাজ্যের শাসক কিংবা বিরোধী দল উভয়েই এই বিষয়টির উপযুক্ত উত্তর দিতে পারছে না। আর এই বিষয়টিকেই হাতিয়ার করেছে তারা। এই ইস্যুগুলোকে নিয়েই পশ্চিমবঙ্গে সংগঠনের ভিত শক্ত করতে চাইছে আসাদউদ্দিন এর দল।

এআইএমআইএম-এর এক নেতা জানিয়েছেন জানুয়ারির সভায় বিষয়টি আপাতত পরিকল্পনা স্তরেই রয়েছে। কিন্তু অন্য আরেক নেতা সূত্রে খবর ইতিমধ্যেই সেনাবাহিনীর কাছে সভা করার জন্য আবেদন জানানো হয়েছে। এই ব্রিগেডের সভা থেকেই এই রাজ্যের সভাপতির নাম ঘোষণা করা হবে। তারপরই রাজ্যজুড়ে সংগঠন বৃদ্ধির লক্ষ্যে ঝাঁপিয়ে পড়বে দল।ব্রিগেডের পর আসাদ উদ্দিন ও তার ভাই আকবরউদ্দিন বিভিন্ন জেলাতেও সভা করবেন বলে পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে তাদের দল ।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here